kalerkantho

আইসিএবির বাজেট প্রস্তাব

করপোরেট কর ২ শতাংশ করে কমালে রাজস্ব বাড়বে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৫ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করপোরেট কর ২ শতাংশ করে কমালে রাজস্ব বাড়বে

সংবাদ সম্মেলনে আইসিএবির প্রেসিডেন্ট এ এফ নেসার উদ্দিনসহ অন্যরা

বিনিয়োগ উৎসাহিত করতে আগামী বাজেট থেকে সবক্ষেত্রে করপোরেট করহার ২ শতাংশ কমানোর প্রস্তাব করেছে পেশাদার হিসাববিদদের নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠান ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট বাংলাদেশ (আইসিএবি)। একই সঙ্গে করনেট বাড়ানো ও রাজস্ব খাতে সংস্কারে আইসিএবির সদস্যদের কাজে লাগানোর দাবি জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

গতকাল রবিবার রাজধানীর সিএ ভবনে ‘আগামী জাতীয় বাজেটের ওপর চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টদের ভাবনা’ শীর্ষক এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন আইসিএবির প্রেসিডেন্ট এ এফ নেসার উদ্দিন। অনুষ্ঠানে আইসিএবির সাবেক সভাপতি ট্যাক্সেশন ও করপোরেট ল কমিটির চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির ও একই কমিটির সদস্য স্নেহাশিষ বড়ুয়া, সচিব মেজর জেনারেল (অব.) মোহাম্মদ ইমরুল কায়েস বক্তব্য দেন।

এনবিআরের ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে অন্তর্ভুক্তির জন্য আয়কর ও মূল্য সংযোজন কর নিয়ে আইসিএবির প্রস্তাব তুলে ধরে এ এফ নেসার উদ্দিন বলেন, ‘আইসিএবির প্রস্তাবগুলো মূলত রাজস্ব আয় বাড়ানো, আইনের বৈপরীত্য পরিহার ও ফাঁক-ফোকর কমানো, আইনের প্রয়োগে স্বচ্ছতা নিশ্চিতকরণ, বিনিয়োগ কার্যক্রমকে অধিকতর উৎসাহ ও দেশ থেকে মূলধন পাচার নিরুৎসাহীকরণের জন্য প্রস্তুত করা। এসব প্রস্তাব বাস্তবায়িত হলে করদাতাদের হয়রানি কমবে এবং দেশে বিনিয়োগ বাড়বে। আমাদের প্রস্তাব হলো, কর আহরণ পদ্ধতি সহজতর করে বিনিয়োগকে উৎসাহিত করা। দেশি-বিদেশি বিনিয়োগের জন্য সবক্ষেত্রে করপোরেট করহার পর্যায়ক্রমে ২ শতাংশ হারে কমিয়ে আনা।’ বাজেট প্রস্তাব তুলে ধরে হুমায়ুন কবির বলেন, ‘উন্নয়নশীল যেকোনো দেশের চেয়ে বাংলাদেশে করপোরেট করহার বেশি। ভারত ও চীনের মতো দেশে এ করহার কমিয়ে আনা হচ্ছে। বিনিয়োগকে উৎসাহিত করতে করপোরেট কর কমাতে হবে। এক বছর অনেক বেশি না কমিয়ে প্রতিবছর ২ শতাংশ হারে কমানোর প্রস্তাব দিচ্ছি আমরা। এতে দীর্ঘ মেয়াদে সরকার লাভবান হবে। রাজস্ব আহরণ বাড়বে।’ ব্যক্তিশ্রেনির করদাতাদের করহার কমানোর প্রস্তাব দিয়ে তিনি বলেন, বিদ্যমান করদাতাদের ওপর অতিরিক্ত কর দায় না চাপিয়ে করযোগ্য ব্যক্তিদের কর নেটে অন্তর্ভুক্ত করে রাজস্ব আহরণ বাড়ানো যায়। অনুষ্ঠানে আইসিএবির সহসভাপতি এন কে এ মুবিন, মো. মনিরুজ্জামান, সাবেক সভাপতি ও কাউন্সিল সদস্য ড. আবু সাঈদ খান উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য