kalerkantho

‘নতুনদের নিয়ে বাড়াতে হবে করের আওতা’

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর   

১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জনগণের করের টাকাতেই সরকারি নানা ব্যয় এবং দেশের অধিকাংশ অবকাঠামো উন্নয়ন হয়। মানুষ কর দিচ্ছে বলেই দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। আমাদের আরো নতুন নতুন করদাতা শনাক্ত করে অভ্যন্তরীণ সম্পদ বৃদ্ধির মাধ্যমে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।

গতকাল বৃহস্পতিবার গাজীপুর কর অঞ্চলের উদ্যোগে আয়োজিত ‘আয়কর প্রবৃদ্ধি দেশ ও দশের সমৃদ্ধি, উন্নয়নের শীর্ষে যাবো যথাসময়ে কর দিবো’ শীর্ষক অংশীজন রাজস্ব সংলাপে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট আ ক ম মোজাম্মেল হক এসব কথা বলেন।

নগরীর বঙ্গতাজ অডিটরিয়ামে ওই সংলাপ অনুষ্ঠানে গাজীপুর কর অঞ্চলের কমিশনার মো. আলী আজগরের সভাপতিত্বে গেস্ট অব অনার ছিলেন অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া।

তা ছাড়া গাজীপুরের মেয়র মো. জাহাঙ্গীর আলম, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য কালীপদ হালদার ও মো. আলমগীর হোসেন, বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম এ মাননান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. গিয়াস উদ্দিন মিয়া, অতিরিক্ত কর-কমিশনার মো. শাহ্দাৎ সিকদার, আয়কর আইনজীবী সমিতির সভাপতি মো. আহ্সান উল্লাহ অন্তু প্রমুখ।

মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া জানান, সরকারের রূপকল্প ২০২১ ও ২০৪১ বাস্তবায়নের জন্য আয়কর বৃদ্ধির মাধ্যমে রাজস্ব বৃদ্ধির বিকল্প নেই। কিন্তু নানা কারণে দেশের অনেক নাগরিক এখনো আয়করের আওতার বাইরে। তাই এসব নাগরিককে খুঁজে বের করে করের আওতায় এনে রাজস্ব বৃদ্ধি করতে হবে। গত কয়েক বছরে আয়কর প্রদান পদ্ধতি অনেক সহজ করা হয়েছে। এতে মানুষ উৎসাহ নিয়ে আয়কর দিচ্ছে।

আয়োজকরা জানান, আয়করের হার বৃদ্ধি না করে কর আহরণ বৃদ্ধি, কর সংস্কৃতির বিকাশ, আয়কর সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি, কর প্রদানে উৎসাহ সৃষ্টি, অংশীজনদের থেকে আয়কর সম্পর্কে মতামত গ্রহণসহ আয়কর বাড়ানোর নানা দিক সম্পর্কে অবগত করানোর জন্য এ সংলাপের আয়োজন করা হয়।

মন্তব্য