kalerkantho

সমন্বিত শিল্পনীতি প্রণয়নের প্রস্তাব আইবিএফবির

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



সমন্বিত শিল্পনীতি প্রণয়নের প্রস্তাব আইবিএফবির

শিল্পমন্ত্রীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান আইবিএফবির নেতারা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত রূপকল্প ২০২১ ও ২০৪১, সরকারের ইশতেহার এবং টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনে একটি সমন্বিত জাতীয় শিল্পনীতি প্রণয়নের প্রস্তাব করেছেন ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ফোরাম অব বাংলাদেশের (আইবিএফবি) নেতারা। এ নীতিতে নতুন অগ্রাধিকার খাত চিহ্নিত করে রপ্তানি আয় বৃদ্ধির সুযোগ বের করতে হবে। পাশাপাশি একে কাগজে সীমাবদ্ধ না রেখে একটি আইনি ভিত্তিতে রূপ দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।

আইবিএফবির একটি প্রতিনিধিদল গতকাল মঙ্গলবার শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূনের সঙ্গে বৈঠককালে এ প্রস্তাব দেন। শিল্প মন্ত্রণালয়ে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকে আইবিএফবির সভাপতি হুমায়ুন রশীদ, সাবেক সভাপতি হাফিজুর রহমান খান, পরিচালক মতিউর রহমান, লুৎফুন্নিসা সাউদিয়া খান, আলী আফজাল, মুস্তাফিজুর রহমান, মুজিবুর রহমান, আনোয়ার শহিদ, ইকবাল হোসেন, সাজেদুর সিরাজ, তৌহিদা সুলতানা উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে আইবিএফবির নেতারা ব্যবসা ও বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ সৃষ্টিতে কয়েকটি প্রস্তাব তুলে ধরেন। তাঁরা বলেন, শিল্প খাতে স্থানীয় ও বৈদেশিক বিনিয়োগ বাড়াতে ব্যবসার সুযোগ সহজ করতে হবে। শিল্প-কারখানা স্থাপনে ভিন্ন ভিন্ন মন্ত্রণালয় থেকে অনুমোদনের পরিবর্তে শুধু শিল্প মন্ত্রণালয় থেকে সব বিষয়ে অনুমোদনের ব্যবস্থা করতে হবে। এ লক্ষ্যে তাঁরা শিল্প মন্ত্রণালয়ে একটি ওয়ানস্টপ সার্ভিস চালুর পরামর্শ দেন। একই সঙ্গে তাঁরা শিল্প খাতে অর্থায়নের জন্য সিঙ্গেল ডিজিটে ঋণের ব্যবস্থা করতে শিল্পমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার ব্যবসাবান্ধব সরকার। দেশে শিল্পায়ন ও ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসারে সরকারের নীতি সহায়তা অব্যাহত থাকবে। শিল্পায়নে বেসরকারি খাতের ভূমিকা মুখ্য। বেসরকারি খাত নতুন নতুন বিনিয়োগ ও কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে সরকারের ইশতেহার বাস্তবায়ন করতে পারে। তিনি ব্যবসা সহজীকরণে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেওয়া হবে বলে জানান। শিল্প খাতে বিরাজমান পুঞ্জীভূত সমস্যা রাতারাতি সমাধান সম্ভব নয় উল্লেখ করে তিনি পর্যায়ক্রমে এগুলোর বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে প্রতিনিধিদলকে আশ্বস্ত করেন।

ক্রাফট কমপ্লেক্সের জন্য জায়গা বরাদ্দের দাবি : এদিকে দেশে উৎপাদিত হস্ত ও কারু শিল্পপণ্যের প্রদর্শন ও বিপণনের জন্য একটি ক্রাফট কমপ্লেক্স গড়ে তুলতে জায়গা বরাদ্দের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ হস্তশিল্প প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতি (বাংলাক্রাফট)। শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূনের সঙ্গে বৈঠকে সমিতির নেতারা এ দাবি জানান। এদিকে অপর এক বৈঠকে দেশীয় পেইন্ট ম্যানুফ্যাকচারিং শিল্পের স্বার্থ সুরক্ষায় সরকারের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় সহায়তা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী। তিনি গতকাল বাংলাদেশ পেইন্ট ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশনের এক প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বৈঠককালে এ কথা জানান।

মন্তব্য