kalerkantho


‘গ্রামকে শহর করার কাজ শুরু হয়ে গেছে’

নরসিংদী প্রতিনিধি   

১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



‘গ্রামকে শহর করার কাজ শুরু হয়ে গেছে’

জিপিইউএফপি পরিদর্শন শেষে এক সভায় বক্তব্য দেন শিল্পমন্ত্রী

সরকারের নির্বাচনী ইশতেহার অনুযায়ী গ্রামকে শহর করার যে মেগা উদ্যোগ তা বাস্তবায়নে কাজ শুরু হয়ে গেছে। এরই অংশ হিসেবে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বড়, মাঝারি ও ক্ষুদ্র শিল্প-কারখানা গড়ে তোলা হবে। সেই সঙ্গে দক্ষ জনশক্তি তৈরি করতে একটি শিল্প বিশ্ববিদ্যালয় করা হবে। গতকাল রবিবার নরসিংদীর ঘোড়াশাল পলাশ ইউরিয়া ফার্টিলাইজার প্রকল্প (জিপিইউএফপি) পরিদর্শন শেষে এক সভায় শিল্পমন্ত্রী অ্যাডভোকেট নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন এসব কথা জানান। অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদারও উপস্থিত ছিলেন।

শিল্পমন্ত্রী আরো বলেন, ‘আমাদের বছরে প্রায় ১৭ লাখ মেট্রিক টন সার আমদানি করতে হয়। জিপিইউএফপি প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে আমরা আমদানি নয় বরং রপ্তানি করতে পারব। বর্তমানে নরসিংদীতে ইউএফএফএল ও পিইউএফএল নামের দুটি সার কারখানা রয়েছে। এগুলোর প্রতি টন ইউরিয়া উৎপাদনে গ্যাসের ব্যবহার, ডাউন টাইম এবং রক্ষণাবেক্ষণ পুনরাবৃত্তির হার অস্বাভাবিক বৃদ্ধির বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে বিসিআইসি পলাশ ইউরিয়া সার কারখানার স্থলে যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করে বিল্ডার ফাইন্যান্স পদ্ধতিতে দৈনিক দুই হাজার ৮০০ মেট্রিক টন (বার্ষিক ৯ লাখ ২৪ হাজার মেট্রিক টন) গ্রানুলার ইউরিয়া উৎপাদন ক্ষমতাসম্পন্ন একটি সর্বাধুনিক প্রযুক্তিনির্ভর, শক্তি সাশ্রয়ী ও পরিবেশবান্ধব সার কারখানা স্থাপন করা হবে।’

 

 

 



মন্তব্য