kalerkantho


ওষুধ ও জ্বালানিতে পুঁজিবাজারে উত্থান

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৪ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



ওষুধ ও জ্বালানি খাতের কম্পানির শেয়ারের মূল্যবৃদ্ধিতে ইতিবাচক ধারায় ফিরেছে পুঁজিবাজার। এতে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সূচক ও লেনদেন বৃদ্ধি পেয়েছে। অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) বেশির ভাগ কম্পানির শেয়ারের দাম কমলেও বেড়েছে সূচক ও লেনদেন।

 

সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবস গতকাল মঙ্গলবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৫৩১ কোটি ৫৫ লাখ টাকা। আর মূল্যসূচক বেড়েছে ১৯ পয়েন্ট। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৫১৮ কোটি ৪২ লাখ টাকা। আর মূল্যসূচক কমেছিল প্রায় ৪০ পয়েন্ট।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, লেনদেন শুরুর পর শেয়ার কেনার চাপ বেশি থাকায় সূচক ঊর্ধ্বমুখী হয়। এতে সূচক বাড়ার মধ্য দিয়েই দিনের লেনদেন শেষ হয়েছে। দিন শেষে সূচক দাঁড়িয়েছে পাঁচ হাজার ২৫৮ পয়েন্ট। ডিএস-৩০ মূল্য সূচক ১১ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ৮৬৬ পয়েন্ট ও ডিএসইএস শরিয়াহ সূচক ১০ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ২১৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। লেনদেন হওয়া ৩৩৬টি কম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ১৩৫টির, দাম কমেছে ১৪০টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৬১টি কম্পানির শেয়ারের দাম।

লেনদেনের ভিত্তিতে শীর্ষে রয়েছে ইউনাইটেড পাওয়ার। কম্পানিটির লেনদেন হয়েছে ৩৪ কোটি ৬৮ লাখ টাকা। দ্বিতীয় স্থানে থাকা শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজের লেনদেন হয়েছে ২৩ কোটি ৪৫ লাখ টাকা আর তৃতীয় স্থানে থাকা মুন্নু সিরামিকসের লেনদেন হয়েছে ২০ কোটি ৯০ লাখ টাকা। অন্য শীর্ষ কম্পানিগুলো হলো এস কে ট্রিমস, সায়হাম কটন, খুলনা পাওয়ার, ইনটেক লিমিটেড, ইফাদ অটোস, সামিট পাওয়ার ও পেনিনসুলা চিটাগাং।

সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২৫ কোটি ৬০ লাখ টাকা। আর সূচক বেড়েছে ৪ পয়েন্ট। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ২৫ কোটি ২৫ লাখ টাকা আর সূচক কমেছিল ৬৯ পয়েন্ট। গতকাল সিএসইতে লেনদেন হওয়া ২৩০টি কম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ৭৭টির, কমেছে ১২৬টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৭টি কম্পানির শেয়ারের দাম।



মন্তব্য