kalerkantho


দুই ক্যাডার একীভূত করতে এবার প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



দুই ক্যাডার একীভূত করতে এবার প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

নব্বইয়ের দশক থেকে আলোচনায় থাকা বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (বিসিএস) প্রশাসন ক্যাডারের সঙ্গে ইকোনমিক ক্যাডারকে দ্রুত একীভূত করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির সভায় (একনেক) প্রধানমন্ত্রী এই নির্দেশ দেন। দুই ক্যাডারকে একীভূত করা সংক্রান্ত ফাইল অতি দ্রুত তাঁর কাছে পাঠানোর নির্দেশও দেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিবকে। ফাইলে প্রধানমন্ত্রীর সই মিললে দুই ক্যাডার একীভূত হওয়া সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি হবে। এরপর বিলুপ্ত হয়ে যাবে ১৯৮৫ সালে গঠিত বিসিএস ইকোনমিক ক্যাডার।

গতকাল একনেক সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল সাংবাদিকদের বলেন, ‘দুই ক্যাডারের মধ্যে মিলমিশ ও আন্তরিকতা থাকা জরুরি। দুই ক্যাডার দুই দিকে যাবে, এটা ঠিক নয়। দুই ক্যাডারের কাজের ধরন একই। তাই প্রধানমন্ত্রী এ দুই ক্যাডারকে একীভূত করার কথা বলেছেন।’ পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, গত এক দশকে দেশে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির আকার বেড়েছে। একই সঙ্গে প্রকল্পের সংখ্যাও। তাই বিশাল এই কর্মকাণ্ড বাস্তবায়নে দুই ক্যাডার একীভূত হলে কাজটা সহজ হয়ে যাবে।

গতকালের একনেক বৈঠকে উপস্থিত একাধিক কর্মকর্তা কালের কণ্ঠকে জানিয়েছেন, একনেকে ২৫৭ কোটি টাকা ব্যয়ে বিসিএস ইকোনমিক ক্যাডার একাডেমি নামের একটি প্রকল্প অনুমোদনের জন্য ওঠানো হয়। প্রকল্পটি বিসিএস ইকোনমিক ক্যাডারদের জন্য মিরপুরে একাডেমিক ভবন নির্মাণ সংক্রান্ত ছিল। এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, দুই ক্যাডার তো এক হয়ে যাবে। তাহলে শুধু এক ক্যাডারের কর্মকর্তাদের জন্য প্রকল্প কেন? এই প্রকল্পটি দুই ক্যাডারের কর্মকর্তাদের জন্য। প্রকল্পের নামও পরিবর্তন করে দেন প্রধানমন্ত্রী। তাতে বলেন, প্রকল্পটির নাম দেওয়া হয়েছে জাতীয় উন্নয়ন প্রশাসন একাডেমি। বৈঠকে বিসিএস ইকোনমিক অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব ফরিদ আজিজ তাঁদের ক্যাডারের সমস্যাগুলো প্রধানমন্ত্রীর সামনে তুলে ধরেন। তখন প্রধানমন্ত্রী বলেন, দুই ক্যাডারকে একীভূত করা হবে। এসংক্রান্ত ফাইল তাঁর কাছে শিগগিরই পাঠাতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিবকে নির্দেশ দেন তিনি।

পরিকল্পনা কমিশন সূত্র বলছে, দুই ক্যাডার একীভূত করার পর নাম কী হবে, সেটিও চূড়ান্ত। নতুন নামকরণ দেওয়া হয়েছিল ‘প্রশাসন ও উন্নয়ন’ ক্যাডার। বিএসএস ইকোনমিক অ্যাসোসিয়েশন এবং বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ অ্যাসোসিয়েশনের মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক সই হয়েছিল গত বছর। পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, দুই ক্যাডারের কর্মকর্তারা এখন থেকে সমান সুবিধা পাবেন। কেউ বঞ্চিত হবেন না। সরকারের উপসচিবদের গাড়ির প্রাধিকারভুক্ত করার পর তাঁদেরকে গাড়ি কেনা বাবদ ঋণ সহায়তা দেওয়া হয়েছে। বিসিএস ইকোনমিক ক্যাডারদেরও প্রচলিত নিয়মের ধারাবাহিকতায় উপপ্রধানদের (উপসচিব পদমর্যাদা) গাড়ি কেনা বাবদ ঋণ দেওয়া হবে। একই সঙ্গে ইকোনমিক ক্যাডারদের পদোন্নতিও দ্রুত হবে।

 



মন্তব্য