kalerkantho


বাফেটের ভারতীয় অংশীদার তরুণ বিলিয়নেয়ার শর্মা

বাণিজ্য ডেস্ক   

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বাফেটের ভারতীয় অংশীদার তরুণ বিলিয়নেয়ার শর্মা

বিলিয়নেয়ার ও বিনিয়োগকারী ওয়ারেন বাফেট ভারতে তার প্রথম বাণিজ্যিক অংশীদার খুঁজে নিয়েছে। তার প্রতিষ্ঠান বার্কশেয়ার হ্যাথাওয়ে ভারতীয় প্রতিষ্ঠান ওয়ান৯৭ কমিউনিকেশনসে ৩১৪-৩৫৭ মিলিয়ন ডলার (২২ থেকে ২৫ বিলিয়ন রুপি) বিনিয়োগ করছে। এটি ডিজিটাল পেমেন্ট ব্যবস্থা পেটিএমের প্যারেন্ট কম্পানি। এ বিনিয়োগের ফলে কম্পানিতে বার্কশেয়ার হেথাওয়ের অংশীদারিত্ব হবে ৩ থেকে ৪ শতাংশ।

ভারতীয় পত্রিকা মিন্ট-এর তথ্য অনুযায়ী দুই প্রতিষ্ঠানের চুক্তির ফলে ওয়ান৯৭ এর মূল্য দাঁড়াবে ১০ থেকে ১২ বিলিয়ন ডলার। জাপানি কম্পানি সফটব্যাংকের বিনিয়োগের ফলে ২০১৭ সালে ভারতীয় কম্পানিটির মূল্য বেড়ে হয় সাত বিলিয়ন ডলার। ভারতের তরুণ বিলিয়নেয়ার বিজয় শেখর শর্মা ওয়ান৯৭ কম্পানির ১৬ শতাংশ মালিকানায় রয়েছে। ফোর্বস ম্যাগাজিনের হিসাব অনুযায়ী এ ধনকুবেরের সম্পদের পরিমাণ ১.৭ বিলিয়ন ডলার।

তবে এ বিনিয়োগের ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে বার্কশেয়ার হ্যাথাওয়ে এবং পেটিএম থেকে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। শর্মা অন্যদের সঙ্গে মিলে ২০০১ সালে ওয়ান৯৭ কমিউনিকেশনস প্রতিষ্ঠা করেন। এর ৯ বছর পর গড়ে তোলেন পেটিএম। যেটি ভারতে মোবাইল পেমেন্ট সিস্টেম হিসেবে খ্যাতি পেয়েছে। পেটিএমে ২৫০ মিলিয়ন নিবন্ধনকৃত ব্যবহারকারী রয়েছে। প্রতিদিন সাত মিলিয়ন মানুষ লেনদেন করে। এটি ই-কমার্স ওয়েবসাইট পেটিএম মল এবং পেটিএম পেমেন্ট ব্যাংকও (ভারতের প্রথম মোবাইল ব্যাংক) পরিচালনা করে।

স্কুলশিক্ষকের সন্তান শর্মা উত্তর ভারতের একটি ছোট্ট শহরে বড় হন। ১৪ বছর বয়সে উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল সম্পন্ন করেন। অল্প বয়সে স্কুল পাস করায় তাঁকে এক বছর অপেক্ষা করে কলেজে ভর্তি হতে হয়। তিনি দিল্লি টেকনোলজিক্যাল ইউনিভার্সিটিতে থাকাকালীন ওয়েব পোর্টাল ইনডিয়াসাইটডটনেট গড়ে তোলেন। এরপর তা এক মিলিয়ন ডলারে বিক্রি করে দেন।

শর্মা পেটিএমের যাত্রা শুরু করেন মোবাইল ওয়ালেট হিসেবে। পরবর্তী সময় এটিকে মুদি পণ্য বেচাকেনায় বিশাল একটি প্ল্যাটফর্ম হিসেবে গড়ে তোলেন। সেই সঙ্গে যোগ করেন ফ্লাইট বুকিং এবং ইউটিলিটি বিল পরিশোধ। পরবর্তী সময় ২০১৬ সালে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দেশে ৫০০ ও ১০০০ রুপির নোট বাতিল করলে তাঁর ই-কমার্স ব্যবসা ফুলেফেঁপে ওঠে। ওই সময় পেটিএম সুযোগটি কাজে লাগিয়ে পেমেন্টে নানা সুবিধা দিয়ে গ্রাহক টানতে সক্ষম হয় এবং গ্রামগঞ্জে ছড়িয়ে পড়ে। মাত্র ১০ দিনে কম্পানির লেনদেন দ্বিগুণ হয়।

বিজয় শেখর শর্মা ২০১৭ সালে প্রথম বিশ্ব বিলিয়নেয়ারের তালিকায় নাম লেখান। এ সময় তাঁর বয়স হয় ৩৮ বছর। ওই বছরের জানুয়ারিতে তিনি পেটিএমের কর্মীদের উদ্দেশ্যে এক বক্তব্যে বলেন, ২০১৭ সাল হবে আমাদের। এটা সম্ভব হবে না কেন? পরবর্তী সময় ২০১৮ সালও তাঁর কম্পানির জন্য ভালো খবর নিয়ে এসেছে। ফোর্বস ম্যাগাজিন।

 



মন্তব্য