kalerkantho


এসডিজি সচেতনতায় ঢাকায় যুব সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



আগামী ১৪ অক্টোবর রাজধানীতে অনুষ্ঠিত হবে ‘যুব সম্মেলন ২০১৮; বাংলাদেশ ও এজেন্ডা ২০৩০-তারুণ্যের প্রত্যাশা।’ এসডিজি বাস্তবায়নে নাগরিক প্ল্যাটফর্ম, বাংলাদেশ এ সম্মেলনের আয়োজন করেছে। সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হবে খামারবাড়ির কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটের অডিটরিয়ামে।

গতকাল রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে নাগরিক প্ল্যাটফর্ম আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়। অনুষ্ঠানটির বিস্তারিত তুলে ধরেন নাগরিক প্ল্যাটফর্মের আহ্বায়ক ও সিপিডির রিসার্চ ফেলো ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য। এ সময় নাগরিক প্ল্যাটফর্মের মূল উদ্যোক্তাদের মধ্যে শাহীন আনাম, ড. ইফতেখারুজ্জামানসহ বিভিন্ন সহযোগী প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

যুব সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হবে বেশ কয়েকটি উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে। এর মধ্যে রয়েছে গ্রাম ও শহর উভয় এলাকায় বসবাসরত যুবকদের মাঝে এসডিজির বিভিন্ন লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যের প্রাসঙ্গিকতা সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টি ও জ্ঞান বৃদ্ধি করা, জাতীয় উন্নয়ন সম্পর্কে যুব সমাজের আকাঙ্ক্ষা ও প্রত্যাশা তুলে ধরার জন্য একটি আলোচনার ক্ষেত্র তৈরি করা ও জাতীয় এবং স্থানীয় পর্যায়ে নীতিবিষয়ক বিতর্ক ও আলোচনায় যুব এজেন্ডাকে কার্যকরভাবে দৃঢ় করা।

ঢাকা এবং ঢাকার বাইরের ১৫০০ যুবকদের নিয়ে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সম্মেলনে অংশ নিতে হলে www.youthconf18.bdplatform4sdgs.net এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।

ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য বলেন, অন্তর্ভুক্তিমূলক টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট (এসডিজি) বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, সংস্থা এবং নাগরিক সমাজের যথাযথ অংগ্রহণ জরুরি। যেহেতু দেশের মানুষের এক-তৃতীয়াংশই হলো যুবক, সুতরাং তাদের কাউকে বাদ দিয়ে উন্নয়ন সম্ভব নয়। এর মধ্যে ধনী-গরিব, শারীরিক সমস্যার মধ্যে থাকা, পিছিয়ে পড়া সবাইকে নিয়েই উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে অংশ নিতে হবে। যুবকদের তাদের কর্তব্যের বিষয়ে জানানো, বিভিন্ন সমস্যার উদ্ঘাটন ও তাদের সচেতন করার জন্যই এই সম্মেলন।



মন্তব্য