kalerkantho


তানোরে দা-বঁটির চাহিদা বেড়েছে

তানোর (রাজশাহী) প্রতিনিধি   

১৬ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০



তানোরে দা-বঁটির চাহিদা বেড়েছে

আসছে সপ্তাহে কোরবানির ঈদ। এ কারণে দা, ছুরি, বঁটি ও হাঁসুয়ার চাহিদা বেড়েছে। ফলে এগুলো তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছে তানোরের কামাররা। সুযোগ বুঝে এক শ্রেণির অসাধু কামার বিভিন্ন পণ্যের দামও নিচ্ছে বেশি। ফলে ক্রেতাদের সঙ্গে বিক্রেতাদের ঝামেলাও হচ্ছে প্রতিনিয়তই।

তানোর গোল্লাপাড়া বাজারসহ উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজার ঘুরে দেখা গেছে, সারা বছর অনেকটা অলস সময় পার করে একটি মাত্র দিনের আশায় বসে থাকতে হয় লৌহশিল্পের সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা। তাই কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে তারা সারা বছর চলার মতো অর্থ উপার্জনের আশা করছেন বলে দাবি কামারদের।

তানোর পৌর এলাকার বাজারের দা, ছুরি, বঁটি তৈরির কারিগর উজ্জ্বল কুমার জানান, সারা বছর অনেকটা সময় তাঁদের অলস সময় পার করতে হয়। এতে সংসার চালাতে কষ্ট হয়। তার পরেও এ পেশা ছাড়তে পারেননি। শুধু একটি দিনের আশায় বসে থাকেন। তাই কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে তাঁরা চেষ্টা করেন সারা বছর চলার মতো উপার্জন করতে।

তিনি বলেন, একটি দা সর্বনিম্ন ৩০০ থেকে শুরু করে ৬০০ টাকা, বঁটি ২০০ থেকে ৫০০ টাকা, হাঁসুয়া ২৫০ থেকে ৩৫০ টাকা, ছুরি ১২০ থেকে ৪৫০ টাকা দামে বিক্রি হচ্ছে (বিভিন্ন সাইজের)। কয়েক দিন ধরে ভোর থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে কাজ করতে হচ্ছে। গ্রাহকরা সব একসঙ্গে কাজ দিচ্ছে। ফলে গ্রাহকের চাহিদা অনুযায়ী সঠিক সময়ে তাদের পণ্য ডেলিভারি দিতে কষ্ট হচ্ছে।



মন্তব্য