kalerkantho


ঈদে দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড় ফ্যান্টাসি কিংডমে

বাণিজ্য ডেস্ক   

২১ জুন, ২০১৮ ০০:০০



ঈদে দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড় ফ্যান্টাসি কিংডমে

ঈদের দিন সকাল থেকেই হাজার হাজার বিনোদনপ্রেমীর ভিড়ে মুখরিত হয়ে ওঠে ফ্যান্টাসি কিংডম কমপ্লেক্স

ঈদের দিন থেকে পঞ্চম দিন পর্যন্ত বিপুল দর্শনার্থীর ভিড় দেখা গেছে ঢাকার আশুলিয়ায় অবস্থিত বিনোদনকেন্দ্র ফ্যান্টাসি কিংডম কমপ্লেক্সে। ঈদের দিন সকাল থেকেই হাজার হাজার বিনোদনপ্রেমীর ভিড়ে মুখরিত হয়ে ওঠে ফ্যান্টাসি কিংডম কমপ্লেক্স। অনেক দূর-দূরান্ত থেকে আগত পরিবার-পরিজন নিয়ে ঘুরতে আসা দর্শনার্থীরা সবাই আনন্দে মাতিয়ে কাটিয়েছে। পার্কের ভেতরে সব ধরনের রাইডসে ছিল দর্শনার্থীদের লম্বা লাইন। ফ্যান্টাসি কিংডম কমপ্লেক্স ঈদ উপলক্ষে সেজে ছিল বর্ণিল আলোকসজ্জায়, যা দর্শনার্থীদের মনোমুগ্ধ করে তোলে। গতকাল এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দেশের সর্ববৃহৎ বিনোদনকেন্দ্র কনকর্ড এন্টারটেইনমেন্ট কম্পানি লিমিটেডের অনবদ্য সৃষ্টি ফ্যান্টাসি কিংডম কমপ্লেক্স। বিনোদনের সব সুযোগ-সুবিধা নিয়ে গড়ে ওঠা এই কমপ্লেক্সে রয়েছে ফ্যান্টাসি কিংডম, ওয়াটার কিংডম, এক্সট্রিম রেসিং (গো কার্ট)—এই তিনটি বিশ্বমানের বিনোদনকেন্দ্র এবং রিসোর্ট আটলান্টিস। ফ্যান্টাসি কিংডম কমপ্লেক্সে আগত দর্শনার্থীদের প্রবেশমুখে ম্যাজিক ফাউন্টেনসহ পার্কের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা ফাউন্টেনগুলোতে দর্শানার্থীদের উপচে পড়া ভিড় ছিল। দুরন্ত গতিতে ছুটে চলা রাইড রোলার কোস্টার এই পার্কের সবচেয়ে জনপ্রিয় রাইডগুলোর মধ্যে অন্যতম। বিনোদনের স্বর্গরাজ্য এই ফ্যান্টাসি কিংডম কপ্লেক্সের রাজা আশু ও রানী লিয়া। এ ছাড়া রয়েছে ফেরিস হুইল, জুজু ট্রেন, হ্যাপি ক্যাঙ্গারু, বাম্পার কার, ম্যাজিক কার্পেট, সান্তা মারিয়া, জায়ান্ট স্প্লাশ, জিপ অ্যারাউন্ড, পনি অ্যাডভেঞ্চার, ইজি ডিজিসহ ছোট-বড় সবার জন্য মজাদার সব রাইড। এসব রাইড উপভোগ করেছে দর্শনার্থীরা।

এ ছাড়া দর্শনার্থীদের রসনা বিলাসের জন্য রয়েছে তিনতারা মানের রেস্টুরেন্ট আশু ক্যাসল ও ওয়াটার টাওয়ার ক্যাফে। চমৎকার ও আকর্ষণীয় সব দেশি ও বিদেশি মুখরোচক সব খাবারের সমারোহ রয়েছে এসব রেস্টুরেন্টগুলোতে। এ ছাড়া পুরো পার্কের ভেতর ছড়িয়ে রয়েছে আরো অনেক ফুড কোর্ট। 

ফ্যান্টাসি কিংডমের প্রবেশপথে দর্শনার্থীদের দীর্ঘ লাইন দেখা গেছে; কিন্তু কারো চোখে মুখে ছিল না ক্লান্তির ছাপ সবার মধ্যে ছিল উৎসব ও আনন্দের উত্ফুল্ল।

সবচেয়ে বেশি উপচে পড়া ভিড় ছিল এবার ওয়াটার কিংডমে ছোট-বড়, কিশোর-কিশোরী, তরুণ-তরুণী থেকে শুরু করে ঘুরতে আসা পরিবার-পরিজন ওয়েব পুলের ঢেউয়ের সঙ্গে এবং ডিজে মিউজিকের তালে তালে নেচেগেয়ে এক উৎসব ও আনন্দঘন মুহূর্ত কাটিয়েছে সবাই। আয়োজন ছিল ছোট্ট শিশুমণিদের জন্যও পার্কে আগত দর্শনার্থীদের সঙ্গে বেড়াতে আসা ছোট্ট ছেলে-মেয়েদের জন্য আয়োজন করা হয়েছে গেমস শোয়ের, যেখানে ছড়া, গান ও নাচ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে পুরস্কার অর্জন করে নেয়। সন্ধায় আয়োজন করা হয় ড্যান্স শোর, যেখানে ফ্যান্টাসি কিংডমের গ্রুপ ড্যান্সাররা নাচ পরিবেশন করে থাকে।

 

 



মন্তব্য