kalerkantho


গুঁড়া দুধে আমদানি শুল্ক কমানোর প্রস্তাব আত্মঘাতী

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৪ জুন, ২০১৮ ০০:০০



গুঁড়া দুধের আমদানি শুল্ক কমানোর প্রস্তাবকে আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত বলে মনে করছে বাংলাদেশ ডেইরি ফারমার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিডিএফএ)। এ জন্য ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেটে গুঁড়া দুধের আমদানি শুল্ক কমানোর যে প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছে তা বাতিলের দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি।

গত মঙ্গলবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত বাজেট পরবর্তী এক সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি জানান তারা। এ সময় বক্তব্য দেন সংগঠনের সভাপতি মো. ইমরান হোসেন। অন্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন মিল্ক ভিটার ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার মুস্তাফিজুর রহমান, জাতীয় দুগ্ধ ডেভেলপমেন্ট ফোরামের সাধারণ সম্পাদক মো. আনিসুর রহমান, এসএমই করপোরেশনের পরিচালক আজাদ চৌধুরী, বিডিএফএর সাধারণ সম্পাদক শাহ এমরানসহ আরো অনেকে।

মো. ইমরান হোসেন তাঁর বক্তৃতায় বলেন, ‘দুধ উত্পাদনে সাধারণ খামারিরা যখন পারদর্শিতা দেখাতে শুরু করেছেন, সেই সময়ই গুঁড়া দুধের শুল্ক কমানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। যেখানে আমদানি শুল্ক ২৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১০ শতাংশ করার প্রস্তাব করা হয়েছে। এটা বাস্তবায়ন হলে দুগ্ধ খামারিরা ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হবেন। কারণ এর আগেও আমদানি শুল্ক কমানো হয়েছে। একসময় এই হার ছিল ৫১ শতাংশ, যা পরে ২৫ শতাংশ করা হয়েছিল। এটি হবে একটি আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত।’

এ সময় দেশে দুধ উত্পাদনের চিত্র তুলে ধরা হয়। ধারাবাহিকভাবে এ উত্পাদন বাড়ছে উল্লেখ করে মো. ইমরান হোসেন বলেন, ‘আমদানি বাড়লে খামারিদের ওপর চাপ তৈরি হবে। তারা দুধ উত্পাদনে উৎসাহ হারাবেন। দুধের উত্পাদন এখন যেখানে ৯০ লাখ মেট্রিক টনের বেশি, সেটা ৫০ লাখ মেট্রিক টনের নিচে চলে আসবে।’

শুধু শুল্ক কমানোর প্রস্তাবনা বাতিলই নয়, সঙ্গে দেশের খামারিদের রক্ষার জন্য ৩০ শতাংশ এন্টি ডাম্পিং শুল্ক চালু করার দাবিও জানান তিনি।



মন্তব্য