kalerkantho


চট্টগ্রামে ৫২৯ কোটি টাকা কর আদায়

খুলনায় ১৫ কোটি ও বরিশালে ছয় কোটি টাকা

বাণিজ্য ডেস্ক   

৮ নভেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



গতকাল কর মেলার শেষ দিনে চট্টগ্রাম, খুলনা ও বরিশালে যথাক্রমে ৫২৯ কোটি, ১৫ কোটি ও ছয় কোটি টাকা কর আদায় হয়েছে। আগ্রহীদের সংখ্যা বাড়ায় চট্টগ্রামে মেলা রাত ১০টা পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

চট্টগ্রাম : চট্টগ্রাম আয়কর মেলায় সাত দিনে মোট ৫২৯ কোটি ৭০ লাখ টাকার কর আদায় হয়েছে। রিটার্ন দাখিল করেছে ৩২ হাজার ৫৮৪ জন আর দুই লাখ ৮৪ হাজার জন কর সেবা নিয়েছে। গতকাল মেলার শেষ দিনে বিকেল ৫টা পর্যন্ত এ তথ্য পাওয়া গেছে। আগ্রহীদের সংখ্যা বাড়ায় মেলা রাত ১০টা পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। মেলা আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক ও কর অঞ্চল-১ কমিশনার মাহবুব হোসেন কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘বিকেল ৫টা পর্যন্ত হিসাবে ৫২৯ কোটি টাকার কর আদায় হয়েছে। রাত ১০টা নাগাদ মেলা চলবে। তাই কর আদায়ের পরিমাণ আরো বাড়বে।’

খুলনা : গ্রাহকদের আগ্রহে রেখেই শেষ হলো খুলনা কর অঞ্চলের আয়োজনে সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলা। শেষ দিনে করদাতা বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, ব্যবসায়ী, ডাক্তার, নার্স, প্রকৌশলী, পুলিশ কর্মকর্তাসহ নানা পেশার মানুষদের মেলায় উপস্থিতি ছিল চোখের পড়ার মতো। বিগত ছয় বছরের মধ্যে এবারের আয়কর মেলায় রেকর্ড পরিমাণ রিটার্ন জমা পড়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত শেষ দিনে মেলায় তিন হাজার ৩৪৭ রিটার্ন জমা দিয়েছে। তারা কর দিয়েছে ১৫ কোটি ২০ হাজার ৭৪০ টাকা। এ নিয়ে সপ্তাহব্যাপী মেলায় ২২ কোটি টাকারও বেশি আয়কর জমা পড়ছে। দুপুরে মেলা প্রাঙ্গণে নর্থ ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটি শিক্ষার্থীদের কর বিষয়ে ধারণা দেন কর কর্মকর্তারা।

এদিকে মেলায় রিটার্ন দাখিলে গেল ছয় বছরের রের্কড গত সোমবারই অতিক্রম করে। ওই দিন পর্যন্ত ২০ হাজার ৭৩১টি দাখিল হয়। সর্বশেষ ২০১৬ সালের আয়কর মেলায় রিটার্ন দাখিল হয়েছিল ১৫ হাজার ৯৭২টি। এর আগে ২০১৫ সালে মেলায় রিটার্ন জমা পড়ে ১০ হাজার ৯১০টি, ২০১৪ সাল ১৩ হাজার ১২০টি, ২০১৩ সালে আট হাজার ২৯৮টি, ২০১২ সালে সাত হাজার ৫০৬টি এবং ২০১১ সালে চার হাজার ৩১৪টি।

বরিশাল : বরিশালে আয়কর মেলার শেষ দিন গতকাল উপচে পড়া ভিড় ছিল। এবার আয়কর আদায়ের পরিমাণ বিগত যেকোনো সময়ের চেয়ে বেড়েছে। এই ধারা ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। এই বছর আয়কর মেলার লক্ষ্যমাত্রা ছিল ছয় কোটি টাকা। তবে বিকেলেই ছয় কোটি সাড়ে ২০ লাখ টাকা আয়কর আদায় করা হয়। সাত দিনব্যাপী মেলার শেষ দিন বিকেলে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

কর কমিশনার মোহাম্মদ জাহিদ হাছান জানান, বরিশাল কর অঞ্চলে ১১টি স্পটে মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ বছর এক লাখ দুই হাজার ৮৩৪ জন করদাতা সেবা গ্রহণ করেছে। মেলায় প্রাপ্ত রিটার্ন সংখ্যা ১০ হাজার ৪০। আদায়কৃত আয়করের পরিমাণ ছয় কোটি ২০ লাখ ৪৯ হাজার ৭০৭ টাকা। ই-টিআইএন গ্রহণকারীর সংখ্যা ৮৩৬। সব মিলিয়ে এবার আয়কর মেলায় রিটার্ন দাখিলকারী এবং আয়কর আদায়ের পরিমাণ বেশি। চলতি অর্থবছরে বরিশাল অঞ্চলে কর আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ৪৩৫ কোটি টাকা।



মন্তব্য