kalerkantho


৩৩ লাখ টাকা পেল শ্রমিক ও তাদের স্বজনরা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ আগস্ট, ২০১৭ ০০:০০



গত তিন বছরে শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন তহবিল থেকে এক হাজার ৪১৫ শ্রমিক এবং তাদের স্বজনদের প্রায় ১১ কোটি টাকা সহায়তা দেওয়া হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বিভিন্ন দুর্ঘটনায় নিহত, আহত এবং দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত শ্রমিকদের চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে এসব তথ্য জানিয়েছে শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন।

শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত এ আয়োজনে ৫৮ জন শ্রমিক এবং তাদের স্বজনদের মাঝে ৩২ লাখ ৮০ হাজার টাকার চেক বিতরণ করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মো. মুজিবুল হক।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশের বড় প্রতিষ্ঠানগুলো শ্রমিক অংশগ্রহণমূলক লভ্যাংশ আইন-ওয়ার্কার্স প্রফিট পার্টিসিপেশন ফান্ড (ডাব্লিউপিপিএফ) মেনে তাদের লভ্যাংশের ৫ শতাংশ শ্রমিক কল্যাণে ব্যয় করলে দেশে কোনো শ্রমিক আর অসহায় থাকবে না।

শ্রম প্রতিমন্ত্রী বলেন, বর্তমান শ্রমবান্ধব সরকার অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতে নিয়োজিত শ্রমিকদের জন্য শ্রমিক কল্যাণ তহবিল এবং রপ্তানিমুখী গার্মেন্টস শিল্পের শ্রমিকদের কল্যাণে গঠিত কেন্দ্রীয় তহবিল থেকে সহায়তা প্রদান করছে। অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতে নিয়োজিত শ্রমিকদের কল্যাণে গঠিত শ্রমিক কল্যাণ তহবিলে বর্তমানে জমার পরিমাণ প্রায় আড়াই শত কোটি টাকা। প্রতিমন্ত্রী শ্রম আইনের আলোকে প্রণীত ডাব্লিউপিপিএফের বাস্তবায়নে বড় কম্পানি বা শিল্প মালিকদের উদ্যোগী হওয়ার আহ্বান জানান।

মুজিবুল হক জানান, অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতের কোনো শ্রমিক দুর্ঘটনায় মৃত্যুবরণ করলে ২ লাখ এবং রপ্তানিমুখী গার্মেন্টস শিল্পের কোনো শ্রমিক দুর্ঘটনায় মৃত্যুবরণ করলে ৩ লাখ এবং বীমা বাবদ ২ লাখ মোট ৫ লাখ টাকা সহায়তা পাচ্ছে।

অনুষ্ঠানে শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক ড. এ এম এম আনিসুল আউয়ালের সভাপতিত্বে মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত সচিব মিঞা আব্দুল্লাহ মামুন, শ্রম পরিচালক আবু হেনা মোস্তফা কামাল উপস্থিত ছিলেন।



মন্তব্য