kalerkantho


সরবরাহ কম থাকায় চিনির দাম বেড়েছে

বাণিজ্য ডেস্ক   

১২ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



চিনি কারখানার মালিকরা বাজারে চিনি কম ছাড়ায় খুচরা বাজারে সংকট দেখা দিয়েছে। দুই দিন আগেও খুচরা বাজারে খোলা চিনির দাম ছিল ৭১ টাকা কেজি।

কিন্তু দুই দিনের মাথায় কেজিপ্রতি দুই টাকা বেড়ে হয়েছে ৭৩ টাকা। এ ছাড়া প্যাকেটজাত চিনিতে দাম বেড়েছে কেজিপ্রতি এক টাকা করে। খবর বাংলানিউজ২৪ডটকমের।

গতকাল রাজধানীর বাড্ডা ও কারওয়ান বাজার ঘুরে দেখা গেছে, খুচরা বাজারে প্রতি কেজি খোলা চিনি বিক্রি হচ্ছে ৭৩ টাকায়। প্যাকেটজাত চিনি বিক্রি হচ্ছে ৭৬ টাকায়।

বাড্ডার খুচরা ব্যবসায়ী শাহাদাত হোসেন বলেন, ‘কিছুদিন আগে প্রতি ৫০ কেজি বস্তা চিনির দাম ছিল তিন হাজার ৩৮০ টাকা, সেখানে এখন কিনতে হচ্ছে তিন হাজার ৫০০ টাকায়। ফলে কেজিপ্রতি মূল্য পড়ে ৭০ টাকা। এর সঙ্গে আনুষঙ্গিক খরচ যোগ করলে দাম পড়ে যায় ৭১ টাকা। তাই প্রতি কেজি ৭৩ টাকায় বিক্রি না করলে লোকসান হয়ে যায়।

এ ছাড়া আমদানিকারকদের সিন্ডিকেট কারসাজিসহ নানা কারণে গেল এক বছরে প্রায় দ্বিগুণ বেড়েছে চিনির দাম। রমজানের আগে খুচরা বাজারে প্রতি কেজি চিনির দাম ছিল ৫০ থেকে ৫২ টাকা। এ ছাড়া দেশে চিনির আমদানি ও স্থানীয় মজুদ চাহিদার চেয়েও বেশি। এর পরও কোনো কারণ ছাড়াই হঠাৎ হঠাৎ করে বাড়ানো হয় নিত্যপ্রয়োজনীয় এই পণ্যটির দাম। আর আমরাই বা কী করব বলেন?’ তিনি বলেন, যেমন দামে কিনতে হয় তেমন দামেও বিক্রি করতে হয়।

কারওয়ান বাজারের ব্যবসায়ী আজাদ আহম্মেদ বলেন, দেশে বছরে চিনির চাহিদা ১৬-১৭ লাখ টন। এর মধ্যে দেশে উৎপাদিত হয় এক লাখ থেকে দেড় লাখ টন। তাই বাজার মূলত আমদানিনির্ভর।


মন্তব্য