kalerkantho


বাবার স্মরণসভায় অঞ্জন চৌধুরী

সততা স্যামসন এইচ চৌধুরীকে সাফল্যের শীর্ষে এনেছিল

পাবনা প্রতিনিধি   

৬ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



সততা স্যামসন এইচ চৌধুরীকে সাফল্যের শীর্ষে এনেছিল

স্যামসন এইচ চৌধুরীর সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন পরিবারের সদস্যরা। ছবি : কালের কণ্ঠ

সততা, সময়নিষ্ঠতা, মানুষের প্রতি ভালোবাসা আর পরিশ্রম স্যামসন এইচ চৌধুরীকে সাফল্যের শীর্ষে নিয়েছিল। প্রচণ্ড রকমের দেশপ্রেমিক ছিলেন তিনি। তাঁর মৃত্যুর এত বছর পরও এখনো আমরা তাঁর সম্পর্কে নতুন নতুন তথ্য জানতে পারছি। গতকাল শনিবার স্যামসন এইচ চৌধুরীর সপ্তম মৃত্যুবার্ষিকীতে পাবনা প্রেস ক্লাবের উদ্যোগে ক্লাব অডিটরিয়ামে এক স্মরণসভায় কনিষ্ঠ সন্তান ও স্কয়ার গ্রুপের পরিচালক অঞ্জন চৌধুরী এ কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, ‘সরকারের উদ্যোগের পাশাপাশি তিনি প্রাইভেট সেক্টরের প্রসারে বেশি আগ্রহী ছিলেন। জীবনে অনেক প্রতিকূল অবস্থা তিনি অত্যন্ত ধৈর্যের সঙ্গে মোকাবেলা করেছেন। দেশের প্রতি অগাধ ভালোবাসার কারণে সরকারের কোনো পদে না থাকার পরেও তাঁর মৃত্যুর পরে মন্ত্রিপরিষদ সভা এবং সংসদে তাঁর প্রতি শোক প্রস্তাব নেওয়া হয়।’

ক্লাব সভাপতি শিবজিত নাগের সভাপতিত্বে স্মরণসভায় বক্তব্য দেন পাবনার জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন, পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম, পাবনা চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি সাইফুল ইসলাম স্বপন, প্রেস ক্লাব সম্পাদক আঁখিনূর ইসলাম রেমন, সাংবাদিক রবিউল ইসলাম রবি, আব্দুল মতীন খান, আহমেদ উল হক রানা, আখতারুজ্জামান আখতার প্রমুখ। এর আগে গতকাল স্কয়ার গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যানের মৃত্যুবার্ষিকী পালন উপলক্ষে সকালে পাবনা শহরতলির বৈকণ্ঠপুরস্থ অ্যাসট্রাস বাংলো বাড়িতে বিশেষ প্রার্থনা ও স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানটির পরিচালনা ও সঞ্চালক ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাপ্টিস্ট চার্চ ফেলোশিপের কোষাধ্যক্ষ শ্যামুয়েল আশীষ বিশ্বাস। এর আগে প্রয়াত স্যামসন এইচ চৌধুরীর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। প্রার্থনা ও প্রথম স্মরণসভার শুরুতে পরিবারের পক্ষে স্মৃতিচারণা করেন প্রায়ত স্যামসন এইচ চৌধুরীর সহধর্মিণী মিসেস অনিতা চৌধুরী ও স্কয়ার ফার্মার ব্যবস্থাপনা পরিচালক তপন চৌধুরী।

প্রার্থনা উপস্থাপন ও অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন ড. ডেনিস দিলীপ দত্ত। এ সময় স্যামসন এইচ চৌধুরীর বড় ছেলে স্কয়ার গ্রুপের চেয়ারম্যান স্যামুয়েল এস চৌধুরী, মেজো ছেলে স্কয়ার ফার্মার এমডি তপন চৌধুরী, ছোট ছেলে স্কয়ার টয়লেট্রিজ ও মাছরাঙা টেলিভিশনের এমডি অঞ্জন চৌধুরী পিন্টুসহ ঘনিষ্ঠজনরা উপস্থিত ছিলেন।

 



মন্তব্য