kalerkantho


সিপাহি নেবে সেনাবাহিনী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১২:১৯



সিপাহি নেবে সেনাবাহিনী

সৈনিক পদে লোক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। এসএসসি পাস করলেই আবেদন করা যাবে। আবেদনের শেষ তারিখ ৩১ ডিসেম্বর। বিস্তারিত জানাচ্ছেন পাঠান সোহাগ

সৈনিক পদে সাধারণ, কারিগরি ও চালক ট্রেডে ভর্তির বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। বিজ্ঞপ্তিটি ছাপা হয়েছে ১ ডিসেম্বর দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায়। পাওয়া যাবে http://www.army.mil.bd  ও http://joinbangladesharmy.army.mil.bd ওয়েবসাইটে।

আবেদনের যোগ্যতা   
সৈনিক পদে সাধারণ ট্রেডে (জিডি) নারী ও পুরুষ উভয় প্রার্থী এবং কারিগরি ট্রেডে শুধু পুরুষ আবেদন করতে পারবে। ২৬ জানুয়ারি ২০২০ তারিখে বয়স সাধারণ ট্রেডে আবেদনকারীদের ক্ষেত্রে ১৭ থেকে ২০ বছর, কারিগরি ট্রেডে ১৭ থেকে ২১ বছর এবং ড্রাইভার পেশার ক্ষেত্রে বয়সসীমা ১৮ থেকে ২১ বছর। সাধারণ ট্রেডে কমপক্ষে জিপিএ ৩.০০ পেয়ে এসএসসি বা সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে। মহিলা সৈনিক পদে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে উত্তীর্ণরা অগ্রাধিকার পাবে। কারিগরি ট্রেডে ভোকেশনাল প্রতিষ্ঠান থেকে সংশ্লিষ্ট কারিগরি বিষয়সহ ন্যূনতম জিপিএ ৩.০০ পেতে হবে। এসএসসি বা সমমান পরীক্ষা হলে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে জিপিএ ৩.০০ পেয়ে উত্তীর্ণ এবং সংশ্লিষ্ট ট্রেড কোর্সে যোগ্য হতে হবে। চালক পেশার ক্ষেত্রে এসএসসি বা সমমান পরীক্ষায় যেকোনো বিভাগ থেকে জিপিএ ৩.০০ পেয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে। আবেদনকারীর বিআরটিএ অনুমোদিত প্রতিষ্ঠান থেকে ড্রাইভিং-কাম-অটোমেকানিকস কোর্সে যোগ্য এবং টিটিটিআই থেকে ড্রাইভিং প্রশিক্ষণের সনদ থাকতে হবে। শারীরিক যোগ্যতা, আবেদনের নিয়ম ও বাছাইপ্রক্রিয়ার তথ্য জানা যাবে বিজ্ঞপ্তিতে।

বাছাইপ্রক্রিয়া
সেনাবাহিনীর পার্সোনেল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন পরিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, আবেদনকারীদের কয়েক ধাপে বাছাই করা হয়। প্রথমে নেওয়া হয় স্বাস্থ্য পরীক্ষা। এতে উচ্চতা, ওজন, বুকের মাপ ঠিক আছে কি না দেখা হয়। বডি ফিটনেস না থাকলে প্রাথমিক ধাপেই বাদ পড়তে হবে। তাই পরীক্ষার আগে বিজ্ঞপ্তির বর্ণনা অনুযায়ী নিজেকে তৈরি করে নিতে হবে। উচ্চতা অনুযায়ী ওজন ঠিক করতে হবে, শারীরিক সমস্যা থাকলে চিকিত্সকের পরামর্শ অনুযায়ী সারিয়ে নিতে হবে। প্রাথমিক স্বাস্থ্য ও সাঁতার পরীক্ষার জন্য পুরুষ প্রার্থীরা সেন্ডু গেঞ্জি, শর্ট প্যান্ট, ট্রাউজার এবং নারীরা প্রয়োজনীয় পোশাক সঙ্গে রাখতে পারেন।

লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা
সেনাবাহিনীর পার্সোনেল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন পরিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, লিখিত পরীক্ষায় বাংলা, ইংরেজি, গণিত, সাধারণ জ্ঞান এবং বুদ্ধিমত্তা থেকে ৫০ নম্বরের প্রশ্ন আসে। সাধারণত পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণির পাঠ বই থেকে প্রশ্ন আসে। এসব শ্রেণির বইয়ের ওপর ভালো দখল থাকলে লিখিত পরীক্ষায় ভালো করা যাবে। সাধারণ জ্ঞানের জন্য সাম্প্রতিক বিষয়াবলির পাশাপাশি ভাষা আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জ্ঞান রাখতে হবে। এ ছাড়া তিন বাহিনীর সম্পর্কে জ্ঞান রাখতে হবে। লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের মৌখিক পরীক্ষায় মানসিক দক্ষতা, মূল্যবোধ ও সহনশীলতা যাচাইয়ের জন্য প্রশ্ন করা হয়। মৌখিক পরীক্ষায় চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত প্রার্থীদের নিয়োগ দেওয়া হবে।

সুযোগ-সুবিধা
নির্ধারিত স্কেলে বেতন-ভাতা, উচ্চতর শিক্ষার সুযোগ, বিনা মূল্যে খাবার ও বাসস্থান, সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিত্সা সুবিধা, বিনা মূল্যে সরকারি পোশাক-পরিচ্ছদ, ভর্তুকি মূল্যে রেশনসহ রয়েছে নানা সুযোগ-সুবিধা।



মন্তব্য