kalerkantho


স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে ১২৮২ নিয়োগ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ অক্টোবর, ২০১৮ ১২:১৪



স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে ১২৮২ নিয়োগ

মডেল, শাহীন ও সিনিন, ছবি, ইয়ামিন মজুমদার


ফার্মাসিস্ট, স্বাস্থ্য সহকারী, পরিসংখ্যানবিদসহ বিভিন্ন পদে লোক চেয়ে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে সরকারের স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। অনলাইনে আবেদন করা যাবে ৩১ অক্টোবর বিকেল ৪টা পর্যন্ত। বিস্তারিত জানাচ্ছেন আহমদ শুভ

১০০ নম্বরের লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা নেওয়া হবে। লিখিত পরীক্ষায় ৭০ নম্বর এবং মৌখিক পরীক্ষায় বরাদ্দ ৩০ নম্বর

বিভিন্ন পদে লোক চেয়ে দুটি বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। একটি বিজ্ঞপ্তিতে ফার্মাসিস্ট (ডিপ্লোমা) চাওয়া হয়েছে ৬২৭ জন। অপরটিতে স্বাস্থ্য সহকারী ৫৪৮ জন, স্টোরকিপার ৪৫ জন, পরিসংখ্যানবিদ ২৭ জন, হেলথ এডুকেটর ১ জন, অফিস সহকারী-কাম-কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক ১৫ জন, সাঁটমুদ্রাক্ষরিক-কাম-কম্পিউটার অপারেটর ৬ জন, কোল্ড চেইন টেকনিশিয়ান ১ জন, কীটতত্ত্বীয় টেকনিশিয়ান ১ জন, ওয়ার্ড মাস্টার ১ জন এবং ল্যাবরেটরি অ্যাটেনডেন্ট চাওয়া হয়েছে ১০ জন। বিজ্ঞপ্তি ছাপা হয়েছে ৯ অক্টোবরের ইত্তেফাকে। পাওয়া যাবে যঃঃঢ়ং://নরঃ.ষু/২ছছহঊযব লিংকে।

আবেদনের যোগ্যতা
ফার্মাসিস্ট (ডিপ্লোমা) পদে স্বীকৃত ইনস্টিটিউট হতে ফার্মাসিতে ডিপ্লোমা ডিগ্রি এবং বাংলাদেশ ফার্মেসি কাউন্সিল থেকে রেজিস্ট্রেশনপ্রাপ্ত হতে হবে। বিজ্ঞান বা জীববিজ্ঞান অনুষদের যেকোনো বিষয়ে স্নাতকোত্তর বা সমমানের ডিগ্রি অথবা স্বীকৃত ইনস্টিটিউট থেকে স্বাস্থ্য শিক্ষায় এমপিএইচ ডিগ্রি থাকলে হেলথ এডুকেটর পদে আবেদন করা যাবে। সাঁটমুদ্রাক্ষরিক-কাম-কম্পিউটার অপারেটর পদে এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ এবং কম্পিউটার ওয়ার্ড প্রসেসিং, ডাটা এন্ট্রি ও টাইপিংয়ে প্রতি মিনিটে বাংলা ২৫ শব্দ ও ইংরেজি ৩০ শব্দ টাইপিং গতি থাকতে হবে। পরিসংখ্যানবিদ পদে পরিসংখ্যান, গণিত, অর্থনীতি বিষয়ে স্নাতক বা সমমান ডিগ্রি, কোল্ড চেইন টেকনিশিয়ান পদে রেফ্রিজারেশন বা এয়ার কন্ডিশনিং ট্রেডে এইচএসসি (ভোকেশনাল), কীটতত্ত্বীয় টেকনিশিয়ান পদে জীববিজ্ঞানসহ বিজ্ঞান বিভাগে এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণরা আবেদন করতে পারবেন। অফিস সহকারী-কাম-কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক পদে আবেদনের জন্য এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ এবং কম্পিউটার ওয়ার্ড প্রসেসিং, ডাটা এন্ট্রি ও টাইপিংয়ে প্রতি মিনিটে বাংলা ২০ শব্দ ও ইংরেজি ২০ শব্দ টাইপিং গতি থাকতে হবে। স্বাস্থ্য সহকারী, স্টোরকিপার, ওয়ার্ড মাস্টার পদে এইচএসসি বা সমমান এবং ল্যাবরেটরি অ্যাটেনডেন্ট পদে এসএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলেই আবেদন করা যাবে। ১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে সাধারণ প্রার্থীদের বয়সসীমা ১৮ থেকে ৩০ বছর। মুক্তিযোদ্ধার সন্তান বা প্রতিবন্ধীদের ক্ষেত্রে বয়সসীমা সর্বোচ্চ ৩২ বছর।

যারা আবেদন করতে পারবেন
হেলথ এডুকেটর পদে লালমনিরহাট জেলার প্রার্থী, সাঁটমুদ্রাক্ষরিক-কাম-কম্পিউটার অপারেটর পদে কুমিল্লা, শরীয়তপুর, চুয়াডাঙ্গা, সাতক্ষীরা, আগ্রাবাদ, চট্টগ্রাম ও শরীয়তপুর, পরিসংখ্যানবিদ পদে কুমিল্লা, বাগেরহাট, পাবনা, লক্ষ্মীপুর, রংপুর, শরীয়তপুর, নেত্রকোনা, মানিকগঞ্জ, সাতক্ষীরা, ঝালকাঠি, চট্টগ্রাম, কোল্ড চেইন টেকনিশিয়ান পদে মানিকগঞ্জ, কীটতত্ত্বীয় টেকনিশিয়ান পদে ময়মনসিংহ, স্বাস্থ্য সহকারী পদে কুমিল্লা, বাগেরহাট, ভোলা, পাবনা, চাঁদপুর, যশোর, ময়মনসিংহ, রংপুর, শরীয়তপুর, নেত্রকোনা, চুয়াডাঙ্গা, মানিকগঞ্জ, ঝালকাঠি জেলার প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। অফিস সহকারী-কাম-কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক পদে বাগেরহাট, ভোলা, পাবনা, লক্ষ্মীপুর, নেত্রকোনা, চট্টগ্রাম, স্টোরকিপার পদে কুমিল্লা, বাগেরহাট, ভোলা, পাবনা, চাঁদপুর, যশোর, ময়মনসিংহ, রংপুর, শরীয়তপুর, নেত্রকোনা, মানিকগঞ্জ, সাতক্ষীরা, ঝালকাঠি, ওয়ার্ড মাস্টার পদে শরীয়তপুর এবং ল্যাবরেটরি অ্যাটেনডেন্ট পদে কুমিল্লা, ময়মনসিংহ, রংপুর, মানিকগঞ্জ, ঝালকাঠি, চট্টগ্রাম জেলার প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। নির্দিষ্ট জেলার স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে। স্বাস্থ্য সহকারী পদের ক্ষেত্রে প্রার্থী যে ওয়ার্ডের (পুরনো) পদের জন্য আবেদন করবেন, সে ওয়ার্ডের (পুরনো) বাসিন্দা হতে হবে। একই ইউনিয়নের অন্য ওয়ার্ডের বাসিন্দারা আবেদন করতে পারবেন, তবে সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডে যোগ্য প্রার্থী পাওয়া গেলে অন্য ওয়ার্ডের প্রার্থীদের বিবেচনা করা হবে না। স্বাস্থ্য সহকারীর ওয়ার্ড, ইউনিয়ন, উপজেলাভিত্তিক শূন্যপদের তালিকা সিভিল সার্জন অফিস এবং উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার কার্যালয়ে পাওয়া যাবে।

আবেদন অনলাইনে
অনলাইনে dghsp.teletalk.com.bd ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে। এরই মধ্যে শুরু হয়েছে আবেদনপ্রক্রিয়া। আবেদন করা যাবে ৩১ অক্টোবর বিকেল ৪টা পর্যন্ত। অনলাইন আবেদন ফরমে প্রার্থীর সব তথ্য ধারাবাহিকভাবে পূরণ করতে হবে। আপলোড করতে হবে প্রার্থীর রঙিন ছবি এবং স্বাক্ষরের স্ক্যান কপি। ছবির আকার হবে ৩০০ বাই ৩০০ পিক্সেল ও ফাইল সাইজ সর্বোচ্চ ১০০ কেবি এবং স্বাক্ষরের আকার ৩০০ বাই ৮০ পিক্সেল ও ফাইল সাইজ সর্বোচ্চ ৬০ কেবি। আবেদন সাবমিটের পর ইউজার আইডি, ছবি ও স্বাক্ষরযুক্ত অ্যাপ্লিকেন্ট কপি পাওয়া যাবে। পিডিএফ ফাইলটি ডাউনলোড ও প্রিন্ট করে সংরক্ষণ করতে হবে। আবেদনের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে টেলিটক প্রিপেইড মোবাইল থেকে এসএমএসের মাধ্যমে পরীক্ষার ফি জমা দিতে হবে। ল্যাবরেটরি অ্যাটেনডেন্ট পদে পরীক্ষা ফি ৫৬ টাকা। বাকি সব পদে পরীক্ষা ফি ১১২ টাকা। প্রাথমিকভাবে কোনো কাগজপত্র লাগবে না। লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে ভাইভার সময় প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের মূল কপি সঙ্গে নিতে হবে এবং এক কপি সত্যায়িত অনুলিপি জমা দিতে হবে।

পরীক্ষা পদ্ধতি
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের উপপরিচালক (প্রশাসন)

ডা. মো. আমিরুজ্জামান জানান, কেন্দ্রীয় পরীক্ষা পরিচালনা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুসারে পদগুলোতে ১০০ নম্বরের লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা নেওয়া হবে। লিখিত পরীক্ষায় ৭০ নম্বর এবং মৌখিক পরীক্ষায় বরাদ্দ ৩০ নম্বর। লিখিত পরীক্ষা হবে এমসিকিউ বা বহু নির্বাচনী পদ্ধতিতে। পদভেদে যে শিক্ষাগত যোগ্যতা চাওয়া হয়েছে, সে অনুযায়ী প্রশ্ন প্রণয়ন করা হবে। সাধারণত বাংলা, ইংরেজি, গণিত ও সাধারণ জ্ঞান থেকে প্রশ্ন আসে। লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হবে আউটসোর্সিং পদ্ধতিতে। দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান প্রশ্নপত্র প্রণয়ন, উত্তরপত্র মূল্যায়ন এবং লিখিত পরীক্ষার ফলাফল তৈরি করবে। পরবর্তী সময়ে জেলাওয়ারী মৌখিক পরীক্ষা নেওয়া হবে।

পরীক্ষার প্রস্তুতি
বিগত বছরের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র বিশ্লেষণে দেখা গেছে, বাংলা অংশে ব্যাকরণ ও সাহিত্য থেকে প্রশ্ন করা হয়। ব্যাকরণে কারক, সমাস, সন্ধিবিচ্ছেদ, বিরাম চিহ্নের ব্যবহার থেকে প্রশ্ন আসে। নবম, দশম শ্রেণির বোর্ড প্রণীত ব্যাকরণ বইয়ের উদাহরণগুলো চর্চা করলে কাজে দেবে। এককথায় প্রকাশ, বাগধারা, বিপরীত শব্দ, সমার্থক শব্দ, বানানশুদ্ধি মুখস্থ করতে হবে। সাহিত্য অংশের জন্য বিখ্যাত কবি সাহিত্যিকদের জীবনী ও সাহিত্যকর্ম জানতে হবে।

ইংরেজিতে বেশি প্রশ্ন আসে গ্রামার থেকে। Right form of verbs, Tense, Preposition, Tag question, Article, Gerund বিষয়ে প্রশ্ন করা হয়। Synonym, Antonym, Correct Spelling থেকে দু-একটা প্রশ্ন সব পরীক্ষায়ই থাকে। Translation আসতে পারে। অনুবাদের ক্ষেত্রে ভাবানুবাদ করতে হবে।

গণিতে পাটিগণিত, বীজগণিত, জ্যামিতি—সব বিষয়ই গুরুত্বপূর্ণ। পাটিগণিতে ঐকিক নিয়ম, বয়স নির্ণয়, সরল, সুদকষা, শতকরার প্রশ্ন আসে। বীজগণিতে সেট, সূত্র থেকে প্রশ্ন আসতে পারে। নবম ও দশম শ্রেণির বোর্ড বইয়ের গাণিতিক সমস্যা সমাধান করতে হবে।

সাধারণ জ্ঞানের জন্য দেখতে হবে বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি। সহায়ক হবে সাধারণ জ্ঞানের বই, মাসিক কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স বিষয়ক সাময়িকী ও বিভিন্ন সাম্প্রতিক বুলেটিন। নিয়মিত দৈনিক পত্রিকা পড়ার অভ্যাস করলে সাম্প্রতিকে ভালো করা যাবে। কম্পিউটার ও তথ্য-প্রযুক্তি থেকেও প্রশ্ন থাকতে পারে। এ ছাড়া সাধারণ বিজ্ঞানের মৌলিক ধারণা, স্বাস্থ্য, খাদ্য, পুষ্টি ইত্যাদি থেকে প্রশ্ন আসার সম্ভাবনা আছে। নবম ও দশম শ্রেণির বই থেকে এ দুটি বিষয়ের প্রস্তুতি নিতে পারেন।

বিগত বছরের প্রশ্নপত্র দেখলে পরীক্ষা সম্পর্কে ভালো ধারণা পাওয়া যাবে। বাজারে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিগত বছরের প্রশ্নসংবলিত বিভিন্ন প্রকাশনীর বই পাওয়া যায়। এসব বই প্রস্তুতিতে সহায়ক হবে।

বেতন-ভাতা
জাতীয় বেতন স্কেল ২০১৫ অনুসারে ফার্মাসিস্ট (ডিপ্লোমা) ও হেলথ এডুকেটর পদে ১২৫০০-৩০২৩০ টাকা স্কেলে, সাঁটমুদ্রাক্ষরিক-কাম-কম্পিউটার অপারেটর ও পরিসংখ্যানবিদ পদে ১০২০০-২৪৬৮০ টাকা স্কেলে, কোল্ড চেইন টেকনিশিয়ান ও কীটতত্ত্বীয় টেকনিশিয়ান পদে ৯৭০০-২৩৪৯০ টাকা স্কেলে, স্বাস্থ্য সহকারী, অফিস সহকারী-কাম-কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক, স্টোরকিপার ও ওয়ার্ড মাস্টার পদে ৯৩০০-২২৪৯০ টাকা স্কেলে এবং ল্যাবরেটরি অ্যাটেনডেন্ট পদে ৮৫০০-২০৫৭০ টাকা স্কেলে বেতন পাওয়া যাবে। 



মন্তব্য