kalerkantho


ব্লু হোয়েলের বাংলাদেশ ভার্সন

নীল তিমি গেমস

১৭ অক্টোবর, ২০১৭ ০০:০০



নীল তিমি গেমস

ব্লু হোয়েল গেম আবিষ্কৃত হয়েছে রাশিয়ায়। এই গেম খেলে মারা গেছে মানুষ।

কিন্তু বাঙালিদের জন্য ব্লু হোয়েলের স্টেপগুলো প্রায় ডাল-ভাত। তাই আরো কঠিন কিছু স্টেপ নিয়ে আজ থাকছে ব্লু হোয়েলের বাংলা ভার্সন নীল তিমি গেম। লিখেছেন আফরীন সুমু

* প্রতিদিন ভোর ৫টায় ঘুম থেকে উঠে পার্কে জগিং করতে হবে। জগিংয়ের ভিডিও টাইমিংসহ কিউরেটরকে দেখাতে হবে। এভাবে সাত দিন চলতে পারলে দ্বিতীয় স্টেপে যাওয়া যাবে।

* স্টেপ দুইয়ে ভোরে ওঠার পাশাপাশি সব কাজ শেষ করে রাত ১০টার মধ্যে ঘুমিয়ে পড়তে হবে। এভাবে তাড়াতাড়ি ওঠা ও তাড়াতাড়ি ঘুমানো কনটিনিউ করতে হবে ১০ দিন। তাহলেই গেমার পৌঁছে যাবে তৃতীয় স্টেপে।

* এই স্টেপে রয়েছে অত্যন্ত চালেঞ্জিং একটা কাজ।

সেটি হলো ফেসবুকিং থেকে বিরত থাকা। দিনে আধঘণ্টার বেশি কোনোভাবেই ফেসবুক লগইন রাখা যাবে না।

* চ্যালেঞ্জ বাড়ছে। এই স্টেপে যুক্ত হচ্ছে ভীষণ কঠিন একটা কাজ। কাজটি হল, দিনে ছয় ঘণ্টা একাডেমিক পড়াশোনা করা। যাদের একাডেমিক পড়াশোনা নেই, তারা দিনে ছয় ঘণ্টা উচ্চতর বাংলা ব্যাকরণ চর্চা করবে। কোনোভাবেই এর অন্যথা হওয়া যাবে না। এভাবে দিন পনেরো চলার পর স্টেপ পাঁচ।

* এবার আসছে ছবি আঁকাআঁকির পালা। ব্লু হোয়েলে ব্লেড দিয়ে হাতে লোগো আঁকতে হয়। বাঙালি ছেলে-মেয়েরা তাদের বয়ফ্রেন্ড-গার্লফ্রেন্ডজনিত কারণে এসব আঁকাআঁকি প্রায়ই করে থাকে। সুতরাং তাদের জন্য থাকছে আরো কঠিন কাজ—বায়োলজির প্র্যাকটিক্যাল খাতা করা। এই স্টেপে গেমার চিত্রসহ দিনে দিনে দুইটা করে প্র্যাকটিক্যাল খাতা করবে। যাদের খাতা নেই, তারা নীলক্ষেত থেকে সংগ্রহ করে নেবে। উপর্যুপরি খাতা করার পর গেমার পৌঁছে যাবে স্টেপ নম্বর ছয়ে।

* এবারে আছে মিউজিকের ব্যবস্থা। এই স্টেপে প্র্যাকটিক্যাল খাতা করতে করতে শুনতে হবে এক বিশেষ গান। সুর-তাল-লয়বিহীন এই গান কিউরেটর বিশেষ চ্যানেল থেকে সংগ্রহ করে নিজ দায়িত্বে গেমারকে প্রেরণ করবে।

* এবার গেমার মুখোমুখি হচ্ছে আরো একটি কঠিনতর চ্যালেঞ্জের। এই স্টেপের জন্য তাকে একজন রোগী খুঁজে বের করতে হবে। গেমারের কাজ হবে ওই রোগীর হয়ে যেকোনো সরকারি হাসপাতালে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা এবং দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে কিউরেটরের পাঠানো সেই সুর-তাল-লয়বিহীন বিশেষ গান শোনা।

পরবর্তী স্টেপ : উপরোক্ত স্টেপগুলো পার করার পর যদি কোনো গেমারকে জীবিত পাওয়া যায়, তবে পরবর্তী স্টেপ ভেবে বের করা হবে।


মন্তব্য