kalerkantho


বউয়ের বিড়াল

ফখরুল ইসলাম

৭ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



বউয়ের বিড়াল

জনৈক ব্যক্তির দুই চোখের বিষ ছিল তার বউয়ের বিড়ালটা। তো সে অনেক চিন্তা-ভাবনা করে বিড়ালটাকে তার বাড়ি থেকে ২০ ব্লক দূরে পার্কে রেখে এলো।

মনে মনে ভাবল, ‘এবার আর বিড়ালটা বাড়ি ফিরতে পারবে না। ’ তবে বাড়ি ফিরে দরজা দিয়ে ঢুকতে ঢুকতে দেখল, বিড়ালটাও ঢুকছে!

পরের দিন বিড়ালটাকে ৪০ ব্লক দূরে ড্রাইভ করে ছেড়ে দেবে চিন্তা করল। ঝটপট কাজ সেরে খুশিমনে বাড়ি রওনা দিল। ফিরতি পথে যথারীতি বিড়ালটার সাক্ষাৎ পেল।

দিন যেতে লাগল। ভদ্রলোক যতই দূরে বিড়ালটাকে ফেলে আসত না কেন, বিড়ালটা ঠিক ঠিক বাড়ি চলে আসত! বিরক্ত হয়ে একদিন গাড়ি করে বহুদূর চলে গেল। সে বাঁয়ে মোড় নিল, তারপর ডানে, ব্রিজটা পার করে বাঁয়ে আবার ডানে গিয়ে বাড়ি থেকে নিরাপদ দূরত্ব ভেবে অনেক দূরে এক জায়গায় গিয়ে থামল। শালার বিড়াল আর ফিরতে পারবে না ভেবে মনে মনে একচোট হেসে নিল।

বেশ কয়েক ঘণ্টা পর বাড়িতে বউয়ের কাছে একটা ফোন গেল, ‘বীথি, বিড়ালটা কি তোমার কাছে?’

বীথি : হ্যাঁ, কেন বলো তো?

ভদ্রলোক : হারামজাদাটাকে ফোনে দাও, আমি পথ হারিয়ে ফেলেছি।

দিকনির্দেশনা দরকার।


মন্তব্য