kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।

বসের ধরন!

অফিসে একজন বস থাকেন। তিনি সর্বময় কর্তা! এই বস কিন্তু নানা ধরনের হন। তাঁদের সেই ধরন জানাচ্ছেন রফিকুল ইসলাম কামাল এঁকেছেন বিপ্লব চক্রবর্তী

১৭ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



বসের ধরন!

তেল পছন্দকারী বস

ভুল অর্থ করবেন না! এখানে তেল বলতে সরিষা বা সয়াবিন তেলের কথা বলা হয়নি! এ তেল হচ্ছে ‘কথার তেল’! মানে এ ধরনের বসরা অফিসে নিজের অধীনস্থদের কাছ থেকে কথায় কথায় প্রশংসা শুনতে চান!

 

কলুর বলদ ধরনের বস

এ ধরনের বস তাঁর অধীনস্থদের খাটাতে খাটাতে জান বের করে দিতে চান! ওনার ভাব এমন, ‘বেতন কি এমনি দিচ্ছি! খাটতে থাকো, আরো বেশি খাটতে থাকো!’ তাই অধীনস্থদের অফিস সময়ের বাইরেও উনি কাজ দিয়ে বসেন! কেউ না করতে চাইলে পত্রপাঠ বিদায়।

 

উপহারখেকো বস

ইনি এক কাঠি সরেস বস! শুধু কথায় ওনার চিঁড়া ভিজে না! ওনার চাই ‘উপহার’! অধীনস্থদের কাছ থেকে দামি দামি সব উপহার পেতে ইনি খুব ভালোবাসেন! এ ক্ষেত্রে তাঁকে দামি উপহার দিয়ে অধীনস্থদের বলতে হয়, ‘বস, আপনার জন্য সামান্য এই উপহার!’

 

প্রেমিক বস

জি, আপনি যেটা ভাবছেন সেটাই! এ ধরনের বস নিজের সেক্রেটারি হিসেবে সুন্দরী কোনো মেয়েকে নিয়োগ দেন এবং প্রেমে পড়ে যান! কিন্তু সেই সুন্দরী বসের এ ধরনের ভিমরতিতে সায় না দিয়ে রিজাইন লেটার লেখাকেই শ্রেয় মনে করেন!

 

সবজান্তা বস

এ ধরনের বস নিজেকে সর্ববিষয়ে পণ্ডিত মনে করেন! তাই কথায় কথায় অধীনস্থদের জ্ঞান দিতে থাকেন, ‘এটা কোরো না, ওটা এভাবে হলো কেন, ভাত কম খাবে, কাজ বেশি করবে, পরিসংখ্যানে অফিসে কথা বলার বিষয়টি নেই, ফাইল এভাবে রেখো না, কম্পিউটার ওভাবে স্টার্ট কোরো না’ ইত্যাদি।

 

ঝাড়িবাজ বস

এ ধরনের বস অফিসের অধীনস্থদের ঝাড়ির ওপর রাখতে পছন্দ করেন! কথায় কথায় অধীনস্থদের শুধু ঝাড়ি দেন। এমনকি অফিসের কেউ খুব ভালো কাজ করলেও ইনি ঝাড়ি দিয়ে বলবেন, ‘এটা (ভালো কাজ) কি আপনাকে করতে বলা হয়েছিল?’


মন্তব্য