kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


প্রিয় বালিকাগণ, যে সাতটি কারণে ভার্সিটির হলে থাকা ছেলেকে আপনার বিয়ে করা উচিত

অভিষেক রায়

১১ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



প্রিয় বালিকাগণ, যে সাতটি কারণে ভার্সিটির হলে থাকা ছেলেকে আপনার বিয়ে করা উচিত

♦    ভার্সিটির হলে থাকা ছেলেরা জামাকাপড় পরিষ্কার করতে পারে।

♦    তারা তাদের রুম পরিষ্কার করতে পারে।

আপনি সারা দিন সাজুগুজু নিয়ে ব্যস্ত থাকলেও আপনাকে কিছু বলবে না।

♦    ক্যান্টিনের খাবার খেতে খেতে তারা খাবারের স্বাদই ভুলে যায়, তাই আপনার রান্না যতই বাজে হোক না কেন, তা নিয়ে কখনোই হলে থাকা কোনো ছেলে অভিযোগ করবে না। খেতে পারছে—এটাই অনেক কিছু মনে করে আপনাকে ধন্যবাদ জানাবে।

♦    তারা ৫ মিনিটে রেডি হয়ে আপনাকে নিয়ে বের হতে পারবে। কারণ সকাল ৭টা ৫০ মিনিটে ঘুম থেকে উঠে তারা সকাল ৮টার ক্লাসে উপস্থিত হতে পারে। শোনা গেছে, উসাইন বোল্ট নাকি এভাবে সকাল ৮টার ক্লাসে দৌড়ে যেতে যেতেই অলিম্পিকে এতগুলো গোল্ড মেডেল পেয়েছেন! হলে থাকা ওই ছেলেরাও কখন যে গোল্ড মেডেল পেয়ে যায় বলা মুস্কিল। তখন হয়তো আফসোস করতে পারেন।

♦    হলে থাকা বেশির ভাগ ছেলেই টিউশনি করায়। বাচ্চা থেকে শুরু করে অ্যাডমিশন পর্যন্ত সবাইকে তারা পড়াতে পারে। তাই ভবিষ্যতে আপনার বাচ্চাকে কিভাবে পড়াতে হবে, সে টেনশন আপনাকে নিতে হবে না। সে দায়িত্ব তারাই নিতে পারবে।

♦    হলে থাকা ছেলেদের মাসের শেষের দিকে টাকাপয়সা ফুরিয়ে গেলেও যেভাবেই হোক তারা সায়েন্টিফিক ক্যালকুলেটরের থেকেও ভালোভাবে হিসাব করে মাসের বাকি দিনগুলো চলতে পারে। এ জন্য তাদের ইনকাম যতই কম হোক না কেন, আপনার সংসার ঠিকই তারা ভালোভাবে চালাতে পারবে।

♦    প্রথম বর্ষে প্রোগ্রাম আর সিনিয়রদের কথা শুনতে শুনতে তারা ভুলেই যায় যে তাদের আসলেই কেউ ভালোবাসতে পারে। তাই আপনার সামান্য ভালোবাসার বিনিময়ে আপনাকে অনেক বেশি পরিমাণ ভালোবাসতে পারবে।

 

এখন সিদ্ধান্ত আপনার। জীবনে সুখী, সুন্দর ও সত্যিকারের ভালোবাসা পাওয়ার জন্য অবশ্যই হলে থাকা কোনো ছেলেকে আপনার বিয়ে করা উচিত।

অনেকে বলে, সাঁতার ভালো ব্যায়াম। আরে বোকা, সাঁতার যদি ভালো ব্যায়ামই হবে, তাহলে নীল তিমিদের এ অবস্থা কেন?

ফেসবুক থেকে নেওয়া


মন্তব্য