kalerkantho

এবার নেদারল্যান্ডসে ট্রামে গুলি নিহত ৩

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৯ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



এবার নেদারল্যান্ডসে ট্রামে গুলি নিহত ৩

ক্রাইস্টচার্চের রক্তের দাগ না শুকাতেই এবার সন্ত্রাসী হামলার শিকার হলো নেদারল্যান্ডসের ইউট্র্যাখট শহর। দেশটির পুলিশ জানিয়েছে, গতকাল সোমবার মধ্যাঞ্চলীয় ওই শহরের কয়েকটি এলাকায় গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে যাত্রীবাহী একটি ট্রামে বন্দুকধারীর হামলায় অন্তত তিনজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। আহত হয়েছে বেশ কয়েকজন।

এ ঘটনায় গতকাল  তুর্কি বংশোদ্ভূত সন্দেহভাজন হামলাকারী গোকমেন তানিসকে (৩৭) আটক করেছে পুলিশ। পুলিশপ্রধান রব ভন ব্রি জানান, হামলার সন্দেহভাজনকে গ্রেপ্তারের খবর পাওয়া গেছে। তবে তাকে কোথায় আটক করা হয়েছে তাত্ক্ষণিকভাবে তা তিনি স্পষ্ট করেননি।

নেদারল্যান্ডসের সবচেয়ে জনবহুল ও প্রাচীন শহর ইউট্র্যাখট। স্থানীয় সময় গতকাল সকাল পৌনে ১১টার দিকে সেখানে প্রথম হামলাটি হয়

‘২৪ অক্টোবারপ্লেইন’ জংশনের পাশে; যাত্রীবাহী একটি ট্রামে। হামলাকারী এলোপাতাড়ি গুলি চালিয়ে একটি প্রাইভেট কারে চড়ে

পালিয়ে যায়।

প্রত্যক্ষদর্শীর উদ্ধৃতি দিয়ে স্থানীয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘এনইউ.এন১’ জানায়, হঠাৎ ওই ব্যক্তি ট্রামের যাত্রীদের তাক করে গুলি ছুড়তে থাকে। রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যম ‘এনওএস’কে আরেক প্রত্যক্ষদর্শী বলে, ‘আমি হাত ও জামাকাপড়ে রক্তমাখা এক নারীকে পড়ে থাকতে দেখি। এরপর হাসপাতালে নেওয়ার জন্য তাকে আমার গাড়িতে তুলি। পুলিশ আসতে আসতে ওই নারী অজ্ঞান হয়ে পড়ে।’

হামলায় কতজন হতাহত হয়েছে, তা তাত্ক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। পুলিশ এর আগে জানায়, ইউট্র্যাখটের একটি বাড়ি ঘিরে রেখেছিলেন দেশটির কাউন্টার টেররিজম পুলিশের সদস্যরা। ধারণা করা হচ্ছে, পুলিশ যেকোনো সময় ওই বাড়িতে অভিযান চালাবে।

ইউট্র্যাখটের পুলিশ বিভাগ এক টুইটার বার্তায় লিখেছে, ‘২৪ অক্টোবারপ্লেইন এলাকায় গোলাগুলির ঘটনায় বেশ কয়েকজন হতাহত হয়েছে। পুরো এলাকা ঘিরে ফেলার পাশাপাশি আমরা ঘটনার তদন্ত শুরু করে দিয়েছি। ২৪ অক্টোবারপ্লেইন এলাকায় বেশ কয়েকটি হেলিকপ্টার টহল দিচ্ছে।’

হামলার পর ইউট্র্যাখট শহরে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থা জারি করা হয়েছে। কাউন্টার টেররিজম পুলিশের প্রধান পিটার-জাপ আলবার্সবার্গ এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘শহরের বেশ কয়েকটি জায়গায় গোলাগুলি হয়েছে। হামলাকারীকে ধরতে অভিযানের প্রস্তুতি চলছে।’ প্রাথমিকভাবে এটিকে সন্ত্রাসী হামলা মনে করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

ইউট্র্যাখট শহরের মেয়র জান ভান জানিন এক ভিডিও বার্তায় বলেন, ‘অন্তত তিনজন নিহত এবং ৯ জন আহত হয়েছে।’ যদিও ২০ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করার কথা জানিয়েছে একাধিক ডাচ গণমাধ্যম।

পুলিশ জানায়, তুর্কি বংশোদ্ভূত গোকমেন তানিস নামের এক ব্যক্তি হামলা চালিয়েছে বলে তারা প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছে, কিন্তু তাকে গ্রেপ্তার করা যায়নি।

হামলার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ জানিয়েছেন ডাচ প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুটে। এ ছাড়া ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক জোটের সাপ্তাহিক বৈঠক বাতিল করেছেন তিনি।

হামলার পর ইউট্র্যাখট শহরের ট্রাম ও রেল যোগাযোগ সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। নিরাপত্তার স্বার্থে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে শহরের সব মসজিদ ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও।

নেদারল্যান্ডসে সর্বশেষ এ ধরনের হামলা হয় গত আগস্টে। ১৯ বছর বয়সী এক আফগান তরুণের ছুরিকাঘাতে আহত হয় এক জার্মান ও দুই মার্কিন পর্যটক। সূত্র : এএফপি।

 

মন্তব্য