kalerkantho

প্রধানমন্ত্রী বললেন

এবার রেলে নজর দিন

একনেকে ৬২৭৬ কোটি টাকার আট প্রকল্প অনুমোদন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৬ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



এবার রেলে নজর দিন

মহাসড়কের ওপর গুরুত্ব কমিয়ে রেলওয়ের উন্নয়ন বা রেল যোগাযোগ বাড়ানোর দিকে বিশেষ নজর দেওয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় তিনি এ নির্দেশনা দেন বলে সভা শেষে জানান পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। রাজধানীর শেরেবাংলানগরের এনইসি সম্মেলনকক্ষে সভায় প্রধানমন্ত্রী সভাপতিত্ব করেন।

সভায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশে প্রচুর সড়ক-মহাসড়ক হয়েছে। গত ১০ বছরে দেশে নতুন নতুন রাস্তাঘাট হয়েছে, যা পর্যাপ্ত। এখন রেলের উন্নয়নে বিশেষ জোর দিতে হবে। তিনি বলেন, ‘আমাদের ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম পর্যন্ত এবং চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত হাই স্পিড রেল দরকার।’ এ ছাড়া পায়রা বন্দর পর্যন্ত রেল সংযোগ করার নির্দেশ দেন তিনি। সড়ক ও মহাসড়ক সংস্কার-মেরামতের কথাও বলেছেন। রেলের পাশাপাশি নৌপথের উন্নয়নে প্রকল্প নিতে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী।

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে জাপানি বিনিয়োগকারীদের জন্য একটি অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার সিদ্ধান্ত ছিল অনেক আগেই। এবার সেই অর্থনৈতিক অঞ্চলের অবকাঠামো উন্নয়ন করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এরই অংশ হিসেবে গতকাল একনেক সভায় ‘নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে জাপানি অর্থনৈতিক অঞ্চলের জন্য অবকাঠামো উন্নয়ন’ শিরোনামের একটি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে খরচ হবে দুই হাজার ৫৮২ কোটি টাকা। এর মধ্যে সরকারি তহবিল থেকে ৪৫৫ কোটি টাকা এবং জাপান আন্তর্জাতিক সহযোগিতা সংস্থার (জাইকা) ঋণ পাওয়া যাবে দুই হাজার ১২৭ কোটি টাকা।

একনেক সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, ‘আমরা ভারত ও চীনের জন্য অর্থনৈতিক অঞ্চল করছি। সেখানে তাদের জন্য অবকাঠামো নির্মাণ করে দেওয়া হচ্ছে। এবার জাপানকেও তাদের অর্থনৈতিক অঞ্চলের জন্য ভূমি অধিগ্রহণ, রাস্তাঘাট নির্মাণসহ অন্যান্য অবকাঠামো করে দেওয়া হবে।’ মন্ত্রী বলেন, ‘জাপানি উদ্যোক্তাদের জন্য অর্থনৈতিক অঞ্চলের অনসাইট উন্নয়ন করা হলে তারা বিনিয়োগে আকৃষ্ট হবে। এতে সেখানে বিপুলসংখ্যক মানুষের কর্মসংস্থান হবে। এটি আমাদের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। ২০২৩ সালের মধ্যে প্রকল্পের কাজ শেষ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেজা)।’

নির্মিত হবে ৩৪০টি সেতু : গতকালের একনেক সভায় দেশের উপজেলা, ইউনিয়ন ও গ্রামের সড়কে অনূর্ধ্ব ১০০ মিটারের সেতু নির্মাণের একটি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে খরচ হবে এক হাজার ৯৮৩ কোটি টাকা। ২০২৪ সাল নাগাদ প্রকল্পের কাজ শেষ হবে। সভা শেষে মন্ত্রী বলেন, দেশের অনেক স্থানে ছোট সেতুগুলো ভেঙে পড়ছে। চলাচলে অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। কোথাও কোথাও মানুষ বাঁশের সাঁকো দিয়ে পারাপার হচ্ছে। এসব দুর্ভোগ কমাতে সরকার এ প্রকল্পটি অনুমোদন করেছে। প্রকল্পের আওতায় ৬১টি জেলার ২৭৫ উপজেলায় ৩৪০টি সেতু নির্মাণ করা হবে। প্রতিটি সেতুর দৈর্ঘ্য হবে ১০০ মিটার।

সংস্কার হবে এক হাজার ৮১২টি মন্দির : সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মন্দির ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান সংস্কারে গতকাল একটি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয় একনেক সভায়। সারা দেশে এক হাজার ৮১২টি মন্দির সংস্কার করা হবে প্রকল্পটির আওতায়। এতে ব্যয় ধরা হয়েছে ২২৯ কোটি টাকা। প্রকল্পের আওতায় হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের সক্ষমতা বৃদ্ধির মাধ্যমে এক কোটি ২৩ লাখ সনাতন ধর্মালম্বী উপকৃত হবে বলে জানিয়েছে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, একনেক সভায় ছয় হাজার ২৭৬ কোটি টাকা ব্যয়ে মোট আটটি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে তিন হাজার ৩১৪ কোটি টাকা খরচ হবে। উন্নয়ন সহযোগীদের কাছ থেকে পাওয়া যাবে দুই হাজার ৯৬২ কোটি টাকা।

 

মন্তব্য