kalerkantho


প্রযোজক হেনস্থা করার পর ঐশ্বরিয়া শুধু পাশে ছিলেন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ অক্টোবর, ২০১৮ ১৫:১০



প্রযোজক হেনস্থা করার পর ঐশ্বরিয়া শুধু পাশে ছিলেন

 প্রযোজক গৌরাঙ্গ দোশির হাতে মার খেয়েছেন তিনি। সম্পর্কে থাকাকালীন গৌরাঙ্গের সঙ্গে মনোমালিন্য হওয়ায় বয়ফ্রেন্ডের হাত মারধর খেতে হয়েছে তাঁকে। বিষয়টি জানাজানি হওয়া সত্ত্বেও রুপোলি জগতের কেউ কখনও মুখ খোলেননি। প্রতিবাদও করেননি। একমাত্র ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনকেই পাশে পেয়েছিলেন তিনি। ‘মি টু ক্যাম্পেইন’ শুরু হওয়ার পর সম্প্রতি এমনই অভিযোগ করেন বলিউড অভিনেত্রী ফ্লোরা সাইনি।

বলিউডে ‘মি টু ক্যাম্পেইন’ শুরু হওয়ার পর একের পর এক অভিনেত্রী যখন মুখ খুলছেন, সেই তালিকায় এবার যুক্ত হল ফ্লোরা সাইনির নামও। সম্প্রতি তিনি অভিযোগ করেন, প্রযোজক গৌরাঙ্গ দোশির সঙ্গে ‘ডেট’ করার সময়ই বয়ফ্রেন্ডের হাতে মারধর খান তিনি। যার ফলে প্রযোজক বন্ধুর সঙ্গে তাঁর বিচ্ছেদও হয়ে যায়। 

কিন্তু, ওই সময় কেউ গৌরাঙ্গের বিরুদ্ধে মুখ খোলেননি। তাঁর উপর অত্যাচার হয়েছে, এই খবর পাওয়ার পরও মুখে কুলুপ এঁটে থাকে বলিউড। শুধুমাত্র ঐশ্বরিয়া রাই-কে পাশে পেয়েছিলেন তিনি।

ফ্লোরার উপর শারীরিকভাবে যেমন নিগ্রহ করা হয়েছে, তা অনুচিত বলেই গৌরাঙ্গের প্রজেক্ট বাতিল করেন ঐশ্বরিয়া রাই। যা তাঁর কাছে অনেক বড় পাওনা ছিল। এমনকী যে ব্যক্তি কোনও অভিনেত্রীকে শারীরিক নির্যাতন করেন, তাঁর প্রজেক্টে কাজ করা কোনওভাবেই সম্ভব নয় বলেও স্পষ্ট জানান রাই সুন্দরী।

গৌরাঙ্গ দোশির প্রজেক্ট রাই বাতিল করার পরই ফ্লোরাকে হুমকির মুখোমুখি হতে হয় বলে অভিযোগ। ফ্লোরার কেরিয়ার নষ্ট করে দেওয়া হবে বলেও হুমকি দেওয়া হয় বলে অভিযোগ করেন অভিনেত্রী।

সম্প্রতি একটি বিধ্বস্ত মুখের ছবি দিয়ে ফ্লোরা তাঁর উপর হওয়া হেনস্থা নিয়ে মুখ খোলেন। যে ছবিতে ফ্লোরার চোখের নীচে কালশিটে পরে থাকতে দেখা যায়। থুঁতনিতেও দেখা যায় আঘাতের চিহ্ন। আর ফ্লোরার এই ছবি দেখার পর থেকেই ফের শোরগোল শুরু হয়। জিনিউজ



মন্তব্য