kalerkantho


'লাভযাত্রী'ও চলবে না.....এবার?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৩:৪৬



'লাভযাত্রী'ও চলবে না.....এবার?

একদিন আগেই ছবির নাম বদলালেন সালমান খান। তাঁর হোম প্রডাকশনসের আপকামিং ছবির 'লাভরাত্রি'র নাম বদলে 'লাভযাত্রী' রাখলেন। কারণ আগের নামটা নিয়ে কিছু গোষ্ঠীর সমস্যা ছিল।

কিন্তু এতেও চিড়ে ভিজল না। নতুন নামকরণের বিরুদ্ধে বুধবার এক হিন্দু গোষ্ঠী গুজরাট হাইকোর্টে আরজি জানিয়েছে, যে এই নতুন নামও গ্রহণযোগ্য নয়। সনাতন ফাউন্ডেশন গত সপ্তাহেই একটি জনস্বার্থ মামলা করে দাবি জানায় যে ছবির নাম ও কিছু দৃশ্য বদলাতে হবে, নইলে হিন্দু ধর্মানুভূতিতে আঘাত করার জন্য ছবিটি নিষিদ্ধ করা হবে।

দলটি বুধবার কোর্টকে জানায়, ছবির নতুন নামটাও মেনে নেওয়া যাচ্ছে না কারণ এখনও সেটা হিন্দু উৎসব নবরাত্রির মতোই শোনাচ্ছে। আবেদনকারীর আইনজীবী বি বি আগরওয়াল কোর্টে ছবির ট্যাগলাইনও পেশ করেন, 'আ জার্নি অব লাভ'- যা ছবির পোস্টার ও প্রমোশনে রয়েছে, এবং বলেন ছবির নাম পরিবর্তন করে 'লাভ কি যাত্রা’ করা যায়।

মঙ্গলবারই ছবির নতুন নাম নিজেই ট্যুইট করে জানান সালমান, আবার লেখেন এটা বানান ভুল নয়। নাম পরিবর্তনের পর আয়ুশ ও ওয়ারিনার নতুন পোস্টারও ট্যুইট করেন ভাইজান।

তবে জনস্বার্থ মামলার শুনানির সময় বুধবার প্রযোজকের পক্ষে আইনজীবী এই দাবিকে 'অপরিণত' আখ্যা দেন। তিনি বলেন, ছবিটা এখনও সেন্সর বোর্ড অবধিও যায়নি। জবাবে ডিভিশন বেঞ্চের প্রধান বিচারপতি প্রশ্ন করেন, সেন্সর বোর্ডের সার্টিফিকেশন ছাড়া কী করে ছবির প্রোমো রিলিজ হয়? বিচারপতি রেড্ডি এ দিন আরো বলেন, প্রয়োজন পড়লে বেঞ্চকে ছবিটা দেখতেও হতে পারে।

আয়ুশ শর্মা ও ওয়ারিনা হুসেন অভিনীত এই ছবি হিন্দুদের ৯ দিনব্যাপী উৎসব নবরাত্রি নিয়ে। ছবির পরিচালকও নবাগত, নাম অভিরাজ মানিওয়ালা। এই বছরই ৫ অক্টোবর মুক্তি পাওয়ার কথা এই ছবির।

তবে মামলাকারী আদালতে এই মর্মে আপিল করেন, যে ছবির নাম অনেক হিন্দুর মনে আঘাত হানতে পারে। ছবির বিষয় ও সংলাপ এখনও একই রয়েছে, যা যেকোনো হিন্দু ধর্মাবলম্বী মানুষের কাছে অপমানজনক। তিনি আরো বলেন, নবরাত্রি ভীষণ জনপ্রিয় উৎসব। আর এই উৎসবের মধ্যে দিয়ে যদি লাভরাত্রিতে গুজরাটকে দেখানো হয়, সে ক্ষেত্রে এই রাজ্যেরও মানহানি হতে পারে।
সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস



মন্তব্য