kalerkantho


৮টি গান থাকবে সুরজ-ইসাবেল এর নতুন ছবিতে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ জুলাই, ২০১৮ ১১:৪৫



৮টি গান থাকবে সুরজ-ইসাবেল এর নতুন ছবিতে

সদ্য মুক্তি পেয়েছে সালমান খান-ক্যাটরিনা কাইফ অভিনীত ও তাঁর পরিচালিত অ্যাকশন এন্টারটেইনার 'রেস ৩'। ব্লকবাস্টার ছবিটি মুক্তির পর বেশ খানিকটা সময় বিশ্রাম নেওয়া হয়েছে তাঁর। এবার তিনি শুরু করতে যাচ্ছেন নতুন ছবির কাজ।

সিনেমাটোগ্রাফার টার্নড ডিরেক্টর রেমো ডি'সুজা এবার হাত দেবেন তাঁর পরবর্তী কাজে। আর এটি হবে একটি ডান্স-রোমান্টিক ড্রামা। ছবিতে প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করবেন সুরজ পাঞ্চোলি ও ইসাবেল কাইফ।

উল্লেখ্য, বলিউড অভিনেতা আদিত্য পাঞ্চোলির ছেলে সুরজ পাঞ্চোলি। এটা তাঁর দ্বিতীয় ছবি। ২০১৫ সালে প্রথম ছবি 'হিরো'র জন্য সেরা পুরুষ অভিষেক ক্যাটাগরিতে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার পান তিনি। 

আর ইসাবেল কাইফের এটা প্রথম ছবি। বলিউড ডিভা ক্যাটরিনা কাইফের ছোট বোন তিনি।

ছবিটির চিত্রনাট্য করেছেন পরিচালক নিজে। ছবির ৬টি গানের শুটিংয়ের জন্য সম্প্রতি লন্ডন উড়ে গেছেন তিনি। 'টাইম টু ডান্স' শিরোনামের ছবিটি প্রসঙ্গে একটি সূত্র গণমাধ্যম ডিএনএকে জানায়, যেহেতু এটা একটা মিউজিক্যাল লাভ স্টোরি, তাই এতে থাকবে নানা ধরনের গান আর নাচ। প্রতিটি গান সুন্দর ও সুসম্পন্ন করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হবে। 

এ প্রসঙ্গে সুরজ পাঞ্চোলি বলেন, ছবিটিতে ৮টি গান থাকবে। পরিচালক টিমের সাথে লন্ডনে যোগ দিয়েছেন, কেননা তিনি নিজেই সবগুলো গানের কোরিওগ্রাফি করতে চান।

অভিনেতা আরো বলেন, ছবিটির তিনটি গান ইতিমধ্যে শেষ করা হয়েছে। তার একটি রোমান্টিক ট্র্যাক। যেটিতে আমি আর ইসাবেলা পারফরম করেছি। বাকি দুটি কমপ্লিট ডান্স ট্র্যাক। আমরা নানা ধরনের ডান্স ফরম ব্যবহার করছি প্রতিটি গানে। প্রতিটি গান চিত্রায়িত হচ্ছে ভিন্ন মাত্রায়। 

ছবিটি দুজন প্রতিযোগীর নৃত্য প্রতিযোগিতায় পারফরম করা নিয়ে নির্মিত। সুরজ পাঞ্চোলি বলেন, আমরা ৮টি গানের মধ্যে প্রথমে ৬টি গানের কাজ শেষ করব। বাকি দুটি- যেগুলো মূলত ক্লাইম্যাক্স সিকোয়েন্সের জন্য রাখা হয়েছে, পরে শুট করা হবে। সে দুটির মধ্যে একটি ডান্স ট্র্যাক, আরেকটি রোমান্টিক গান।

রেমো ডি'সুজা বরাবরই তাঁর কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত মুখ খোলেন না। তবে জানা গেছে, দুই মাসের টানা শিডিউল নির্ধারণ করা হয়েছে। ইতিমধ্যে ৪০ দিন শুটিং শেষ হয়েছে। ১৪ আগস্ট পর্যন্ত টানা শুটিং চলবে এবং এর মধ্যেই ছবির অধিকাংশ কাজ শেষ হবে বর জানা গেছে।
সূত্র : ডিএনএ

   

 

          

  



মন্তব্য