kalerkantho


জানুয়ারিতে ডিভোর্স হয় বাপ্পা-চাঁদনীর

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৫ মে, ২০১৮ ০৮:২৭



জানুয়ারিতে ডিভোর্স হয় বাপ্পা-চাঁদনীর

চাঁদনীর সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের প্রসঙ্গটি প্রকাশ্যে আনলেন গায়ক বাপ্পা মজুমদার। অনেকদিন ধরে এ তারকা জুটির বিচ্ছেদের গুঞ্জন শোনা গেলেও মুখ খোলেননি তারা। সম্প্রতি অভিনেত্রী-সঞ্চালক তানিয়া হোসাইনের সঙ্গে বাগদানের সূত্র ধরে বাপ্পা জানালেন জানুয়ারিতে চাঁদনীর সঙ্গে ডিভোর্স হয়েছে। নিজের ফেসবুক হ্যান্ডেলের মাধ্যমে বৃহস্পতিবার দুপুরে বিষয়টি খোলাসা করেন বাপ্পা।

সম্প্রতি ফেসবুকে বাগদানের আংটির ছবি শেয়ার করেন তানিয়া। তারপরই বাপ্পার সঙ্গে বিয়ের গুঞ্জন ওঠে। পরে বিষয়টি বাপ্পা ও তানিয়া দুজনই স্বীকার করেন।

তিনি লেখেন, গত ৯ অক্টোবর ২০১৭ আমাদের ডিভোর্সের আইনি প্রক্রিয়া শুরু হয় আর শেষ হয় ৯ জানুয়ারি ২০১৮ তে বিবাহের সমাপ্তিতে। আর আমরা আলাদা ছিলাম তাও ১ বছরের একটু বেশি সময় ধরে।

চাঁদনী প্রসঙ্গে লেখেন, অনেক বছর একসাথে থেকে, থাকার চেষ্টা করে অবশেষে হার মানতে হয়েছে আমার আর চাঁদনীর। আমরা পারিনি আমাদের সংসার নিয়ে বাকি জীবন কাটাতে। কোনো অভিযোগ কিংবা অসম্মান আমার চাঁদনীর প্রতি নেই, এমনকি চাঁদনীর ও আমার প্রতি কোনো অসম্মানবোধ আছে বলে মনে করিনা। যা হয়েছে তা ভাগ্যের লিখন মনে করি।


ওই স্ট্যাটাসে বাপ্পা আরো বলেন, ‘তানিয়া আমার বন্ধু। দারুণ একজন বন্ধু। তানিয়ার সাথে আমার যোগাযোগ এবং ভালোলাগাও। এর সূত্র ধরেই অতিসম্প্রতি আমি আমার ভাবনা তানিয়াকে জানাই, তানিয়াও তার ভাবনা আমাকে জানায়। আমরা আমাদের পরিবারের সান্নিধ্য ছাড়া জীবনে চলতে চাই না। তাই ২ পরিবারের সিদ্ধান্তে একান্তই পারিবারিকভাবে আমাদের বাগদান হয়। আগেই বলেছি ব্যক্তিগত বিষয়গুলো আমি বরাবরই নিজের ভেতর রাখতে চাই। যেখানে পরিবার ইনভলড সেখানে আর অপরিষ্কার কোনো চিত্র নেই। বাকিটা পরিবেশ আর পরিস্থিতি। আপনারা প্রার্থনা করবেন।’

২০০৮ সালের ২১ মার্চ চাঁদনীকে বিয়ে করেন বাপ্পা মজুমদার। দীর্ঘ দশ বছর সংসার করার পর সম্পর্কের ইতি টানলেন তারা। আর  ২০০৯ সালের ২০ জুন উপস্থাপক-পরিচালক দেবাশীষ বিশ্বাসকে বিয়ে করেন তানিয়া হোসাইন। বিয়ের এক বছরের মাথায় তাদের বিচ্ছেদ হয়ে যায়।


মন্তব্য