kalerkantho


মিতুর নায়িকা হয়ে ওঠার গল্প!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ মে, ২০১৮ ২২:৩৯



মিতুর নায়িকা হয়ে ওঠার গল্প!

'নায়িকা হওয়ার আশা নিয়ে ঢাকায় আসি। কিন্তু ঢাকায় এসে আর নায়িকা হওয়া হয়ে ওঠে না। পরী নামে এক নায়িকার সহকারী হয়ে যাই। কিন্তু হাবভাব এমন করি যেনো নায়িকার চেয়ে আমার গুরুত্বই বেশি। সবাই আমাকে ভয় পাই।' 'আকাশে মেঘ নেই' ধারাবাহিক সম্পর্কে এভাবেই বলছিলেন মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের প্রথম রানার আপ জাহারা মিতু।

বর্তমানে বেসরকারি একটি টেলিভিশন চ্যানেলে নাটকটি সম্প্রচারিত হচ্ছে। প্রতি বৃহস্পতিবার, শুক্রবার ও শনিবার রাত ৯টা ৪৫ মিনিটে সম্প্রচার হয় ধারাবাহিকটির।

নাটকের শুরুর গল্প সম্পর্কে মিতু বলেন, চলচ্চিত্রের শ্যুটিংয়ের জন্য এক জমিদারবাড়িতে যাই ইউনিটের সবাই। ওই চলচ্চিত্রের নায়ক-নায়িকা থেকে সবাই সেখানে ছিলেন। জমিদার বংশের উত্তরাধিকারীও সেখানে থাকেন।

একটা শ্যুটিং ইউনিটের লোকজনদের পর্দার পেছনে যে গল্পগুলো থাকে, তা অত্যন্ত যত্ন সহকারে এই ধারাবাহিকে তুলে ধরা হয়েছে। প্রতিটি চরিত্রের নিজের ব্যক্তিগত জীবন থেকে শুরু করে অন্য সহকর্মীর সঙ্গে হাসি-ঠাট্টার সবকিছু তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে বলেও জানান মিতু।

 

ধারাবাহিকটিতে টুনি হিসেবে মিতুর অনবদ্য অভিনয় যে কোনো দর্শকের মন ছুঁয়ে যেতে বাধ্য। টুনির হাবভাবে দর্শক হাসি আটকে রাখতে পারবে না বলেই বিশ্বাস মিতুর।

একপর্যায়ে মূল নায়িকা পরীকে ছাপিয়ে নায়িকা বনে যান টুনি। স্বপ্ন ধরা দেয় তার কাছে। এগোতে থাকে 'আকাশে মেঘ নেই' এর গল্প। নাটকটি পরিচালনা করেছেন রাশেদ রাহা এবং গল্পভাবনা ও চিত্রনাট্য রচনায় ফেরারী ফরহাদ।

মিতু ছাড়াও ধারাবাহিকটিতে অভিনয় করেছেন আমিন খান, আনিসুর রহমান মিলন, জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায়, ইন্তেখাব দিনার, শ্যামল মাওলা, অপর্ণা, তাজিন আহমেদ, মৌটুসী বিশ্বাস এবং মাজনুন মিজানসহ আরো অনেকে।



মন্তব্য