kalerkantho


ঠাকুরগাঁওয়ের ‘বীরাঙ্গনা’ টেপরি রানিকে নিয়ে মিজানের গান

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ মার্চ, ২০১৮ ১৬:০৮



ঠাকুরগাঁওয়ের ‘বীরাঙ্গনা’ টেপরি রানিকে নিয়ে মিজানের গান

দেশকে স্বাধীন করতে গিয়ে অনেক মা-বোন সম্ভ্রম হারিয়েছেন। দেশ এসব সম্ভ্রম হারানো  মা-বোনদের সর্বোচ্চ সম্মান দিয়ে ‘বীরাঙ্গনা’ উপাধি দিয়েছেন। সেই বিরাঙ্গনাদের নিয়েই ‘বীরাঙ্গনা’ শিরোনামের গানের কথাগুলো শ্রোতাদের ভাবাবে।  নিজের নতুন গান ‘বীরাঙ্গনা’ নিয়ে এভাবেই নিজের অভিব্যক্তির কথা জনালেন ওয়ারফেজ ব্যান্ডের সাবেক ভোকাল কন্ঠশিল্পী মিজান।

ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈল উপজেলার বলিদ্বারা গ্রামের টেপরি রানি একজন বীরাঙ্গনা। ১৯৭১ সালে পাক বাহিনী ও রাজাকার দ্বারা অমানুষিক  নির্যাতনের স্বীকার হয়েছেন তিনি।

সেই টেপরি রানীকে নিয়ে ‘বীরাঙ্গনা’ শিরোনামের গানটি লিখেছেন দেওয়ান লালন আহমেদ, সুর ও সঙ্গীতায়োজন করেছেন রাজিব হোসাইন। 'বীরাঙ্গনা' গানটি মিউজিক ভিডিও নির্মাণ করেছেন সৈয়দ তানভীর আহমেদ। গানটি প্রকাশ করছে ধ্রুব মিউজিক স্টেশন (ডিএমএস)।

পেশায় বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর উর্ধতন কর্মকর্তা এবং ‘বীরাঙ্গনা’ গানটির গীতিকার দেওয়ান লাল আহমেদ জানালেন, আমি হৃদয়ে ধারণ করি আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশকে। আমাদের নতুন প্রজন্ম এই বিষয়গুলোকে যাতে তাদের মনে, মননে ও মগজে ধারণ করে সেটি মাথায় রেখেই আমার এই প্রয়াস।  

গানটি প্রসঙ্গে ধ্রুব মিউজিক স্টেশনের কর্ণধার সঙ্গীত শিল্পী ধ্রুব গুহ বলেন, ১৯৭১ এর মার্চ থেকে ডিসেম্বর। এই ৯মাসের রক্তক্ষয়ী আমাদের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে ‘বীরাঙ্গনা’ মা-বোনদের অবদান অনেক। আর আমরা যারা সংস্কৃতিকর্মী আছি, দেশ, মুক্তিযোদ্ধা এবং বীরাঙ্গনা এদের প্রতি আমাদের দায়বদ্ধতা অনেক বেশি। এই দায়বদ্ধতা থেকেই বীরাঙ্গনা গানটি প্রকাশের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আশা করছি এই গানটি একটু হলেও সকল দর্শক- শ্রোতা এবং নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের সময়কার কথা ভাবাবে।

২২ মার্চ (বৃহস্পতিবার) ধ্রুব মিউজিক স্টেশন (ডিএমএস) তাদের ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ করবে গানটির ভিডিও। পাশাপাশি গানটি শুনতে পাওয়া যাবে ডিএমএস ওয়েব সাইট, জিপি মিউজিকে।


মন্তব্য