kalerkantho


জিয়া খান আত্মহত্যা মামলা : বিচার শুরু সুরজের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১২:১১



জিয়া খান আত্মহত্যা মামলা : বিচার শুরু সুরজের

অভিনেত্রী জিয়া খান আত্মহত্যা মামলায় বিচার শুরু হয়েছে বলিউড অভিনেতা  আদিত্য পাঞ্চোলি ও জারিনা ওয়াহাব দম্পতির ছেলে সুরজ পাঞ্চোলির। আজ একটি বিশেষ আদালতে মামলাটির বিচারকাজ শুরু হয়। অভিযুক্ত সুরজের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০৬ ধারায় (অ্যাটেম্পট টু সুইসাইড বা আত্মহত্যার প্ররোচনাদান) অভিযোগ আনা হয়েছে। 

সিবিআইয়ের চার্জশিট অনুযায়ী, ২০১৩ সালের ৩ জুন মুস্বাইয়ে তাঁর নিজ বাসায় ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায় জিয়া খানের মরদেহ। তিনি অমিতাভ বচ্চনের সাথে 'নিশব্দ' ছবিতে অভিনয় করেছেন। জিয়ার মা রাবেয়া খান জানান, মৃত্যুর দুই দিন আগে জিয়া সুরজের বাসা থেকে আসে। 

সিবিআই আরো জানায়, জিয়া খানের লেখা তিন পাতার একটি চিঠি জব্দ করে পুলিশ। তাতে সুরজের বিরুদ্ধে শারীরিকভাবে 'হেনস্তা' ও শারীরিক ও মানসিক 'অত্যাচার'-এর অভিযোগ আনেন ওই অভিনেত্রী। এরপর সুরজের বিরুদ্ধে 'সত্য গোপন' ও 'মনগড়া তথ্য' প্রদানের অভিযোগ আনা হয়।

আরো পড়ুন : ইরফান খান 'ব্ল্যাকমেইল' করছেন

সুরজের আইনজীবী প্রশান্ত পাতিল জানান, আদালত প্রসিকিউশনকে সাক্ষীদের তালিকা প্রদানের জন্য বলেছেন। যাতে তাদের বিরুদ্ধে সমন জারি করে আদালতে হাজির করা যায়। আগামী ২১ তারিখ আবার শুনানির দিন ধার্য করেছেন আদালত।

আজ আদালতে হাজির ছিলেন এই মামলায় জামিনে থাকা সুরজ পাঞ্চোলি। ২০১৩ সালের ১০ জুন তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। ক'দিন পর বোম্বে হাইকোর্ট তাঁর জামিন মঞ্জুর করেন। 

জিয়ার মা রাবেয়া খানের পিটিশনের প্রেক্ষিতে হাইকোর্ট পরে মামলাটির অধিকতর তদন্তের জন্য সিবিআইকে হস্তান্তর করে ২০১৪ সালের জুলাইতে। রাবেয়ার অভিযোগ ছিল, পুলিশ ঠিকমতো মামলাটির তদন্ত করছে না। পরে সিবিআইয়ের বিরুদ্ধেও একই অভিযোগ আনেন তিনি এবং মামলাটির সঠিক তদন্তের জন্য একটি বিশেষ তদস্তদল গঠনের দাবি জানান। তিনি অভিযোগ করেন, সিবিআই এটাকে 'হত্যা' নয়, 'আত্মহত্যা' বলে চলিয়ে দিতে চাচ্ছে। তবে, তাঁর এই অভিযোগ 'বিভ্রান্তিকর' মর্মে খারিজ করে দেন উচ্চ আদালত।
সূত্র : ডিএনএ


মন্তব্য