kalerkantho


প্রেমিক বিবেকের সঙ্গে ঐশ্বর্যর সেলফি! তুললেন শ্বশুর অমিতাভ?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ জানুয়ারি, ২০১৮ ২০:৩৫



প্রেমিক বিবেকের সঙ্গে ঐশ্বর্যর সেলফি! তুললেন শ্বশুর অমিতাভ?

ঐশ্বর্য-বিবেক -ফাইল ফটো

জ্বী হ্যাঁ! এতে কোনো ফাঁকফোকড় নেই। অমিতাভজীই গত বৃহস্পতিবার নিজহাতে তুললেন পুত্রবধূ ঐশ্বর্য রাইয়ের সঙ্গে সাবেক প্রেমিক বিবেক ওবেরয়ের এক ফ্রেমে দাঁড়ানো ছবি। এই স্থিরচিত্রটি এখন নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়ে পড়েছে। 

এমন ছবি অমিতাভ কেন তুলতে যাবেন? 

‘কারণ’ এবং ছবির ‘সত্যাসত্য’ অনুসন্ধানে অবশ্য বেশি দূর যেতে হয়নি। এই ছবি সত্যিই অমিতাভ তুলেছেন। তবে এটা একটা গ্রুপ সেলফি। ৬ দিনের ভারত সফরকালে গত বৃহস্পতিবার ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু দেশটির শীর্ষ উদ্যোক্তাদের সঙ্গে মোলাকাত করেন। এরপর সন্ধ্যায় বলিউডের রথি-মহারথীদের সঙ্গেও ছিল পার্টি। এসময় তিনি বলিউড শাহানশাহ অমিতাভ বচ্চন, খ্যাতিমান চিত্রনির্মাতা মধুর ভাণ্ডারকার, করন জোহর, সুভাষ ঘাই, ইমতিয়াজ আলি, রনি স্ক্র‍ুওয়ালা, সারা আলী খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 

এসেছিলেন অমিতাভপুত্র ও ঐশ্বর্যের স্বামী খোদ অভিষেক বচ্চন আর ঐশ্বরিয়ার সাবেক ‘বাগদত্ত’ বিবেক ওবেরয়ও। অনুষ্ঠানের একপর্যায়ে নেতানিয়াহুকে পাশে নিয়ে সেলফি তোলেন অমিতাভ। এতে পুত্র অভিষেক আর পুত্রবধূ ঐশ্বরিয়াকে তার পেছনেই দেখা যাচ্ছে। আর ছবির মাঝামাঝি একদম পেছনে দেখা যাচ্ছে বিবেককে। 

নেতানিয়াহুর সঙ্গে অমিতাভের তোলা এই সেই গ্রুপ সেলফি যেখানে রয়েছেন ঐশ্বর্য ও বিবেক

সেলফি হিসেবে ঐশ্বরিয়া আর বিবেকের মাঝখানে দূরত্ব ভালই ছিল। কিন্তু পাঁড় ভক্তরা এসব নিয়ে খুব একটু বাছবিচার করছে না। তারা ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে অমিতজীর তোলা ছবি যেখানে ঐশ্বরিয়ার সঙ্গে সাবেক প্রেমিক বিবেকও আছে- তা শেয়ার করছে খুব। এর কারণ অবশ্য একটাই- অনেক অনেক দিন পরে দুজনকে এক ফ্রেমে দেখা গেছে। সঙ্গে বোনাস হিসেবে আছেন অ্যাশের স্বামী অভিষেকও!

২০০৪ সালে এক ছবির শুটিংয়ে দুজনের সাক্ষাৎ। তারা ক্রমশ কাছাকাছি চলে আসেন। সময়টা ছিল তখন যখন ঐশ্বর্য প্রেমিক সালমানের সঙ্গে বিচ্ছেদের ক্ষত ভুলতে চাইছিলেন। নিজের ভালোবাসার কষ্ট বিবেকের সঙ্গে শেয়ার করতেন। একসময়ে দুজন আরো কাছাকাছি হন। এই খবর তখনকার সালমানকে তাঁতিয়ে দিয়েছিল। গরম মেজাজ নিয়ে সালমান ফোনে বিবেককে হুমকিও দেন। এ নিয়েও অনেক কিছু ঘটে যায়।       

আরো পড়ুন  সালমানের সঙ্গে ক্যাটরিনার ‘ঘনিষ্ঠতা’ নিয়ে যা বললেন লুলিয়া

তবে দুজনের সম্পর্কের ধারাবাহিকতায় বিবেকের সঙ্গে ঐশ্বর্যর বিয়ে একরকম নিশ্চিত- এটা মনে করা হচ্ছিল। এতে সম্মতি ছিল বলিউডে একসময়ের জনপ্রিয় নায়ক বিবেক ওবেরয়ের পিতা চরিত্রাভিনেতা সুরেষ ওবেরয় ও বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বর্যর মায়ের। 

আর অমিতাভপুত্র অভিষেকের সঙ্গে বিয়ে ঠিক হয়ে ছিল রাজকাপুরের নাতনি কারিশমা কাপুরের। কাপুর আর বচ্চন, দুই পরিবারই সম্মত ছিল। কিন্তু কি থেকে যে কী হয়ে গেলে কে জানে! দুজনের বিয়ে হই হই করেও শেষ তক হলো না। 

আরো পড়ুন  সাবেক স্বামীর সাথে কারিশমা!

হঠাৎ করেই ঐশ্বরিয়ার আকাশে হাজির হলেন অভিষেক। হয়তো খামোখাই বিবেককে ভুলে গেলেন বা ভুলতে হলো বিশ্বসুন্দরীর। মহাধূমধামে বচ্চন পরিবারের বউ হয়ে গেলেন অ্যাশ। এ নিয়ে অনেকে অনেক কথা বলেছেন তখন এবং এখন। তবে ওই সময়ে কলকাতার সিনেপত্রিকা আনন্দলোক অসাধারণ এক প্রচ্ছদ করেছিল ঐশ্বরিয়া-অভিষেকের বিয়ে নিয়ে। প্রচ্ছদ কাহিনীর শিরোনাম ছিল- অংকের বিয়ে! 

ভক্তরা এখনও ঐশ্বর্য-বিবেক বা সালমান-ঐশ্বর্য সম্পর্ককে কেন এত মূল্যায়ন করে তা অনেকটাই পরিষ্কার বলে দিয়েছিল ওই শিরোনাম।  

 



মন্তব্য