kalerkantho


'কুমারিকা মিস ন্যাচারাল' চ্যাম্পিয়ন হলেন সুমাইয়া আনজুম

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ জানুয়ারি, ২০১৮ ২১:৩৫



'কুমারিকা মিস ন্যাচারাল' চ্যাম্পিয়ন হলেন সুমাইয়া আনজুম

ছবি : কালের কণ্ঠ

গত শনিবার (১৩ জানুয়ারি, ২০১৮) সন্ধ্যা ৭টায় ঢাকার হোটেল গার্ডেনিয়া গ্র্যান্ড হল-এ অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ‘কুমারিকা মিস ন্যাচারাল ২০১৭’ এর গ্র্যান্ড ফিনালে। আড়ম্বরপূর্ণ এই অনুষ্ঠানে মোট ১০ জন প্রতিযোগি থেকে শীর্ষ ৩ জনকে চূড়ান্ত বিজয়ী ঘোষণা করা হয়।

এ বছর মিস কুমারিকা প্রতিযোগিতার চ্যাম্পিয়ন এর মুকুট অর্জন করেন মিস সুমাইয়া আনজুম, প্রথম রানার আপ এবং দ্বিতীয় রানার আপ হন যথাক্রমে মিস তিয়াশা শামস সৃস্টি এবং মিস নাদিয়া সুলতানা। মিস বিউটিফুল হেয়ার হয়েছেন কাশফিয়া তাহসিন আমানী এবং মিস বিউটিফুল স্কিন হয়েছেন জান্নাতুল নওরিন।

অনুষ্ঠানে শীর্ষ ১০ প্রতিযোগী নাচ, ক্যাটওয়াক, অভিনয় ইত্যাদি বিভিন্ন পারফরম্যান্সের মাধ্যমে তাদের প্রতিভা তুলে ধরেন। অনুষ্ঠানে একটি অডিও ভিজুয়াল ডকুমেন্টারির মাধ্যমে প্রতিযোগীদের পারিবারিক এবং অন্যান্য ব্যাকগ্রাউন্ড সম্পর্কে তুলে ধরা হয়। সঙ্গীত শিল্পী ডি রকস্টার শুভ অনুষ্ঠানে গান পরিবেশনা করেন। 

প্রকৃতিই সকল সৌন্দর্য্যের উৎস ও প্রতীক। এই প্রকৃতি আর তারুণ্যের প্রতিনিধি হিসেবে বাংলাদেশে কুমারিকা ব্র্যান্ডটি কাজ করে আসছে। প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যের যথাযথ মূল্যায়ন এবং পরিবেশ সুরক্ষায় সচেতনতা বৃদ্ধিকে কুমারিকা তাদের দায়িত্ব মনে করে। এরই প্রেক্ষিতে ২০১৩ সাল থেকে প্রতি বছর ‘কুমারিকা মিস ন্যাচারাল’ নামক অনলাইনভিত্তিক সুন্দরী প্রতিযোগিতার আয়োজন করে আসছে। 

কুমারিকার পক্ষ থেকে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, হেমাস কনজ্যুমার ব্র্যান্ডস প্রাইভেট লিমিটেড এর কান্ট্রি ডিরেক্টর, জনাব কাজী আরিফ জামান এবং মার্কেটিং ম্যানেজার, নুসরাত জাহান। 

পরিশেষে সেরা ১০ জন প্রতিযোগী সম্মানিত বিচারকমণ্ডলীর মুখোমুখি হন। সেখানে তাদের আত্মবিশ্বাস, ন্যাচারাল লুক, প্রকৃতিপ্রেম, উপস্থিতবুদ্ধি ইত্যাদির বিচারে বিজ্ঞ বিচারকমণ্ডলী তাদের নম্বর দেন। ফেসবুকের মাধ্যমে প্রাপ্ত ভোট ও বিচারকমণ্ডলীর প্রদত্ত নম্বরের ভিত্তিতে নির্বাচিত হন এ আসরের বিজয়ী এবং দু’জন রানার আপ। বরাবরের মতো এবারও বিজয়ী পাচ্ছেন আসন্ন ভালোবাসা দিবসে কুমারিকা নিবেদিত বিশেষ টেলিভিশন নাটকে অভিনয়ের সুযোগ। এছাড়াও শীর্ষ তিন প্রতিযোগী পাচ্ছেন কুমারিকা প্রস্তুতকারক দেশ শ্রীলঙ্কা ভ্রমণের সুযোগ।

দুইমাসব্যাপী চলমান এই প্রতিযোগীতার চূড়ান্ত বিচারক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিউটিশিয়ান রহিমা সুলতানা রিতা, অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্ব, অভিনেত্রী মেহজাবিন চৌধুরী, অভিনেতা এবং টিভি ব্যাক্তিত্ত আব্দুন নূর তুষার এবং টিভি ও চলচিত্র পরিচালক শিহাব শাহিন। প্রতিযোগীদের গ্রুমিং এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন ফ্যাশন ডিরেক্টর এবং ইমেজ কন্সালট্যান্ট রামিম রাজ। 

এবছর কুমারিকা মিস ন্যাচারাল প্রতিযোগিতা আয়োজনের দায়িত্ব পালন করে বিজ্ঞাপনী সংস্থা মিস্টিক মাইন্ডস। ডিজিটাল এবং মেক ওভার পার্টনার হিসেবে কাজ করে ওয়েব পুকুর এবং হারমনি স্পা। এছাড়াও টিভি, রেডিও এবং প্রেস পার্টনার হিসেবে কাজ করে যথাক্রমে আরটিভি, ঢাকা এফ এম এবং সমকাল। গালা ইভেন্ট পরিচালনা করে এইচ টু ও। প্রতি বছর হেমাস কনজ্যুমার ব্র্যান্ডস প্রাইভেট লিমিটেড অনলাইনভিত্তিক এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করে আসছে।


                                                        

 



মন্তব্য