kalerkantho


তাহসান নায়ক, ৪৭জনকে টেক্কা দেয়া রাইসা ছবির প্রাণ

মাহতাব হোসেন   

৩ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৮:৪৮



তাহসান নায়ক, ৪৭জনকে টেক্কা দেয়া রাইসা ছবির প্রাণ

নতুন ছবি নিয়ে মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ যেন একের পর এক চমক দিয়েই যাচ্ছেন। তাসকিন আহমেদকে নিজের চলচ্চিত্রে যুক্ত করে, দিয়েছিলেন প্রথম চমক। দ্বিতীয় চমকটা ছিল আরো বড়। গায়ক ও ছোটপর্দার অভিনেতা তাহসান খানকে নিজের চলচ্চিত্রে প্রথমবারের মতো যুক্ত করে চমকে দেন। তাহসান 'যদি একদিন' চলচ্চিত্রের মাধ্যমে বড় পর্দার নায়ক হিসেবে অভিষিক্ত হতে যাচ্ছেন।

তবে এই দুই চমককে ছাপিয়ে ছবির সবচেয়ে বড় চমক হিসেবে নির্মাতা মোস্তফা কামাল রাজ যার কথা বলছেন, সে হলো তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া আফরিন শিখা রাইসা। মায়াবী চেহারার রাইসাই 'যদি একদিন' ছবির প্রাণ। তাঁকে ঘিরেই আবর্তিত হবে গল্প। রাইসার বয়স ৯। সে রাজধানীর আজিমপুর এলাকার গ্রিনলাইন স্কুলে। এর আগেও টুকটাক কাজ করলেও এটাই ওর সবচেয়ে বড় কাজ- জানালেন রাজ।

মোস্তফা কামাল রাজ কালের কণ্ঠকে বলেন, রাইসা অনেক মেধাবী একটি শিশু। তাকে ঘিরেই ছবির গল্প। এখন তাকে অনুশীলন করাচ্ছি। ইতোমধ্যে সে বাইসাইকেল চালানো শিখেছে। আরো বেশকিছু বিষয় রয়েছে সেগুলো করাচ্ছি। এই মুহূর্তেও সে আমার কাছে রয়েছে। ছবিতে তার ভূমিকা কী? এই প্রশ্নের জবাব এখন দেবো না। শুধু বলবো আমার ছবির সবচেয়ে ইমপোর্ট্যান্ট ক্যারেক্টার রাইসা।

রাজ বলেন, চরিত্রটির নাম রুপকথা। এই চরিত্রে রাইসাকে বাছাই করেছি ৪৭ জনের মধ্য থেকে। সেটা ছিল বড় একটা প্রতিদ্বন্দ্বীতামূলক বাছাই প্রক্রিয়া। রুপকথার ফিল্মে বয়স ৭।

আফরিন শিখা রাইসার সাথে যখন যোগাযোগ করা হয় তখন রাইসা একটা মুভি দেখছিল। তারপরেও কানে ফোন নিয়ে কথা বলতে শুরু করে। রাইসা জানায় সে এখন মুভি দেখা নিয়ে ব্যস্ত কিন্তু কথা বলতে সমস্যা নেই। রাইসা বলে, 'আমি সাইকেল চালানো শিখেছি। এখন অভিনয় শিখছি।'

রাইসার প্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা। তার অভিনয় তাকে মুগ্ধ করে। সে বলে, 'তিশা আপু আমার জান। তার অভনয়, নাটক সিনেমা আমার মিস হয় না।'  অভিনয়ের দিকে পা বাড়ালেও রাইসা বড় হয়ে হতে চায় টিচার। টিচার কেন? সে কথা অবশ্য জানে না সে।

৬ জানুয়ারি থেকে মোস্তফা কামাল রাজের ছবি 'যদি একদিন' এর শুটিং শুরু হবে।  

 



মন্তব্য