kalerkantho


'চিরঞ্জীব সঞ্জীব' নিয়ে আসছে কবিয়াল

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ নভেম্বর, ২০১৭ ১১:৫৬



'চিরঞ্জীব সঞ্জীব' নিয়ে আসছে কবিয়াল

২০০৮ সালের কথা। বিশ্ববিদ্যালয়পড়ুয়া ক'জন যুবক ভাবলেন মিউজিক করবেন।

যেই ভাবা সেই কাজ। ফজলে রাব্বী খান, কিঙ্কর এহসান, হুমায়ুন আজম রেওয়াজ আর কাজী শামস- এই চার যুবক মিলে গড়লেন একটি ব্যান্ড। এরপর তাঁদের সাথে যোগ দিলেন তানিম ও রানা। পরের দুজন গিটার বাজাতেন। বিদেশি যন্ত্র-নির্ভর সংগীত করার কথা ভাবলেও তাঁদের শরীর থেকে বেরোতো মাটির গন্ধ। এমন একটি নাম রাখতে চাইলেন ব্যান্ডের যা শ্রোতাদের মনে তো বটেই, দাগ ফেলবে নিজেদের মনেও। তাই, নিজেদের স্যাটিসফেকশনের জায়গা থেকে অনেক ভেবে ব্যান্ডের নাম রাখলেন- কবিয়াল।

অন্য অনেক ব্যান্ডের মতো খুব একটা ভাঙাগড়া হয়নি কবিয়ালে। শুধু ২০১৪ সালে তানিম পাড়ি দেন সুদূর মার্কিন মুলুকে, তাঁর জায়গায় ব্যান্ডে বাজাতে আসেন অন্তর- যিনি এখনো বাজাচ্ছেন।

প্রতিষ্ঠাতা সদস্যদের মাঝে দুজন আছেন আর দুজন ব্যান্ড ছেড়েছেন ব্যক্তিগত কাজে। ব্যান্ডের বর্তমান লাইন-আপ হলো : ড্রাসম ও ভোকাল : কাজী শামস, বেহালা ও পারকাশনস : হুমায়ুন আজম রেওয়াজ, গিটার : অন্তর ও মারুফ, বেস : মাশরুর আর ব্যান্ড ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করেন মারিনা মিতু।  

এতদিন পর কেন প্রথম গান- এ প্রশ্নের জবাবে ব্যান্ড লিডার ও প্রতিষ্ঠাতা সদস্য কাজী শামস কালের কণ্ঠকে বলেন, আমরা নিজেদের প্রস্তুত করতে সময় নিয়েছি। গতানুগতিক হতে চাইনি। দ্রুতপ্রতিষ্ঠার স্রোতে গা ভাসাতে চাইনি।  আমরা আমাদের আবেগের জায়গা থেকে সংগীতে এসেছি, সংগীত করি- আমাদের মধ্যে সংগীতের বাণিজ্যিক উপলব্ধি কম। আমরা চাই, শ্রোতাদের শুদ্ধ কিছু দিতে। আর এ জন্য নিজেদের প্রস্তুতিটা সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন। এ ছাড়াও ব্যান্ড সদস্যদের ব্যান্ড ছেড়ে যাওয়া, নতুন সদস্যদের আসা, তাদের সঙ্গে পুরনোদের মিলিয়ে নেওয়া- আরো এমন অনেক কারণে প্রথম গান রিলিজ করতে একটু দেরি হয়ে গেল।  

প্রথম গানটি করছেন সঞ্জীব চৌধুরীকে নিয়ে, এর পেছনে কারণটা কী- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এটা তো খুবই স্পষ্ট যে শুধু বাংলাদেশি গানে নয়, টোটাল বাংলা গানেই সঞ্জীব চৌধুরী ম্যাটারস। তিনি আমাদের অনুপ্রেরণা। তিনি  আগামী আরো অনেক প্রজন্মের অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবেন। আমরা আমাদের ভালোবাসা থেকে, আমাদের কমিটমেন্টের জায়গা থেকে তাঁকে নিয়ে গান বেঁধেছি। আমরা জানি আমরা কিছুই করতে পারিনি, তবুও মনে করি 'চিরঞ্জীব সঞ্জীব' শ্রোতাদের সঞ্জীব-স্মরণ করাবে। এটা সঞ্জীব চৌধুরীর প্রতি আমাদের ছোট, সামান্য একটা ট্রিবিউট।  

 


মন্তব্য