kalerkantho


হিরোসিমা দিবসে একান্তে প্রাক্তন স্বামীর সঙ্গে স্ত্রী, তারপর...

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ অক্টোবর, ২০১৭ ১২:০৬



হিরোসিমা দিবসে একান্তে প্রাক্তন স্বামীর সঙ্গে স্ত্রী, তারপর...

ঘর ভাঙলেও সম্পর্ক মরে না। সম্পর্ক লুকিয়ে থাকে বালিশের নীচে, আলমারির চাবিতে, পানির গ্লাসে।

এই সত্যিটাকে সম্বল করেই স্বল্প সময়ের ছবি বানাচ্ছেন কলকাতার পরিচালক সব্যসাচী ভৌমিক। তাঁর এই নতুন শর্ট ফিল্মের নাম লাভ অন দা ডে অফ সেপারেশন। এর আগে ডিফারেন্ট সোল, নাট্যমেলার দেশে, নাগরিক রাজার ভিটে, আ লেটার অন দ্য টাইমলাইন, রিভারসাইড কলিকাতা নর্থ শিরোনামের পাঁচটি ডকুমেন্টরি করেছেন তিনি। বানিয়েছেন বিবেক, এসকেপ রুট, অ্যানথোলজি অফ পোয়েমস নামের তিনটি শর্ট ফিল্মও।

ছবিতে দেখানো হবে অলিপ্রিয়া এবং রিতেশ নামের এক দম্পতির সম্পর্কের টানাপোড়েনের গল্প। অশান্তির জেরে তাঁদের ডিভোর্স হয়েছে। তৈরি হয়েছে দূরত্বও। এরকম অবস্থায় একদিন প্রাক্তন স্বামীর কাছে নিজের জিনিষপত্র ফিরিয়ে নিয়ে যেতে আসে স্ত্রী। দিনটি ৬ আগস্ট।

হিরোসিমা দিবস। এই ঘরে লুকিয়ে আছে কত প্রেম, খুনসুটি, যৌবনের উচ্ছ্বাস, ঝগড়া-অভিমান-মনোমালিন্য আর সব ভেঙে চুরমার হয়ে যাওয়ার বেদনাতুর স্মৃতি। দুজনের মধ্যে শুরু হয় কথাবার্তা। কথোপকথনে উঠে আসে ফেলে আসা দিনের ভালোলাগা। এরমধ্যেই  হঠাৎ পুরোনোদিনের মতো দুজনের মধ্যে শুরু হয় খুনসুটি। যেন প্রাণ ফিরে পায় সম্পর্ক। মনে পড়ে কত কিছু। কত ভালোবাসা-মন্দলাগা। তা হলে কি সদ্য ভেঙে যাওয়া সম্পর্ক আবার জোড়া লাগবে হিরোসিমা দিবসে? নাকি নাটকের জল গড়াবে অন্য কোনওদিকে, অন্যভাবে?

শ্রষ্ঠা প্রযোজিত লাভ অন দা ডে অফ সেপারেশনের কাহিনি ও চিত্রনাট্য লিখেছেন পরিচালক স্বয়ং। হাওড়ার একটি বাড়িতে ২৯ অক্টোবর থেকে শুরু হবে শুটিং। বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন রাহুল বন্দ্যোপাধ্যায়, অমৃতা চট্টোপাধ্যায়, পিয়ালী মুখোপাধ্যায় প্রমুখ। ছবির কাজ শেষ হলে প্রথমে এটিকে কোনও ফেস্টিভালে পাঠানোর পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানালেন প্রযোজক সোমনাথ কর। তারপর ইউটিউব সহ অন্যান্য জায়গায় দেখানোর ব্যবস্থা করা হবে বলে জানান তিনি। আপাতত ছবি কাজ শুরুর অপেক্ষা।


মন্তব্য