kalerkantho


যাদের দ্বারা নির্যাতিত হয়েছিলেন এই অভিনেত্রীরা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ অক্টোবর, ২০১৭ ১৭:৫০



যাদের দ্বারা নির্যাতিত হয়েছিলেন এই অভিনেত্রীরা

বলিউড অভিনেতা ও অভিনেত্রীদের মধ্যে প্রেম বা বিয়ে নতুন কিছু নয়। তাঁদের প্রেম বা বিচ্ছেদও বেশ আলোচনার বিষয় হয়ে ওঠে।

বিচ্ছেদের পর কেউ চুপ করে থাকে কেউ আবার অপরজনের বিরুদ্ধে মারাত্মক সব অভিযোগ এনে বসে। বন্ধ হয়ে যায় মুখ দেখাদেখি, একসঙ্গে কাজ করতেও দেখা যায় না একে অপরকে। সম্পর্ক থাকাকালীন প্রেমিকের হাতে শারীরিক নির্যাতনের শিকারও হতে হয় প্রেমিকা অভিনেত্রীকে। এমন উদাহরণও রয়েছে।

সালমান-ঐশ্বরিয়া : সালমান ও ঐশ্বরিয়ার সম্পর্কের কথা সবার জানা। দিল দে চুকে সনমের এই জুটির প্রেম ও বিচ্ছেদ দীর্ঘদিন প্রচারের আলোয় ছিল। এমনিতে দেখে সালমান-ঐশ্বরিয়াকে সুখী বলেই মনে হতো। তবে বিচ্ছেদের পর সালমানের নামে একাধিক অভিযোগ আনেন নায়িকা।

বলেন, সালমানের খারাপ ব্যবহারে তিনি বীতশ্রদ্ধ হয়ে পড়েছিলেন।

হিংসাত্মক ব্যবহার করত সালমান। খুব মদ খেত। এই সম্পর্ক তাঁর কাছে দুঃস্বপ্নের মতো।

সঞ্জয়-কারিশমা : বলিপাড়ার অন্যতম আলোচনা বিষয় থেকেছে কারিশমা কাপুরের বিয়ে ও বিচ্ছেদ। ব্যবসায়ী সঞ্জয় কাপুরের সঙ্গে বিয়ে হয় কারিশ্মার। স্বামীর বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ এনেছিলেন তিনি। পরে বিচ্ছেদ হয়ে যায়। দুই সন্তানকে নিজের কাছে রাখার জন্য আদালতের কাছে অনুমতি চান। মামলা জেতেন তিনি।

সঞ্জয় খান-জিনাত আমান : সঞ্জয় খানকে ভালোবাসতেন জিনাত আমান। সঞ্জয় তখন বিবাহিত। তবে প্রেমে অন্ধ ছিলেন জিনাত। তাঁকে খুব মারধর করতেন সঞ্জয়। মার খেয়ে হাসপাতালেও ভর্তি হতে হয়েছে অভিনেত্রীকে।

রাজা-শ্বেতা : বিয়ের ১৪ বছর পর স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছিলেন ভোজপুরি অভিনেত্রী শ্বেতা তিওয়ারি। জনসমক্ষে বলেছিলেন, রাজা মদ্যপ অবস্থায় বাড়ি ফিরে তাঁর উপর অত্যাচার করত। মারধর করত।

ববি-রমনিক : সিনে ইন্ডাস্ট্রিতে ববি ডার্লিং নামে পরিচিত পাখি শর্মার বিবাহিত জীবন সুখের হয়নি। এই তো মাসখানেক আগে স্বামী রমনিক শর্মার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন ববি। অভিযোগপত্রে লিখেছেন, তাঁকে মারধর করত রমনিক। বিকৃত কাম চরিতার্থ করত।


মন্তব্য