kalerkantho


প্রিয় নায়কের জন্য ভালোবাসা

মাহতাব হোসেন   

১৫ আগস্ট, ২০১৭ ২১:৫০



প্রিয় নায়কের জন্য ভালোবাসা

তাঁর মৃত্যু নিয়ে এখনো ধোঁয়াশা কাটেনি। স্বাভাবিক মৃত্যু নাকি আত্মহত্যা এখনো কূল কিনারা হয়নি।

এরই মধ্যে চলে গেছে ২১টি বছর। এতো বছর পরে হয়তো অনেক প্রিয় মানুষকেও মানুষ ভুলে যায়। কিন্তু সালমান শাহকে এদেশের মানুষ ভোলে না। মানুষের জনপ্রিয়তা দিন দিন ভাটা পড়ে, হয়তোবা মৃত্যুর পরে অনেকটা মলিনও হতে শুরু করে। কিন্তু সালমানের জনপ্রিয়তা কমেনি, বরঞ্চ দিনের পর দিন এই নায়কের জনপ্রিয়তা বেড়েই গেছে। তরুণ প্রজন্মের নিকট এখনো তিনি 'আইকন। '

বাংলা চলচ্চিত্রের ক্যারিয়ারে যুক্ত হয়েছে মাত্র ২৭টি ছবি। এতো অল্প সংখ্যক ছবিও তাঁকে বাঁচিয়ে রেখেছে দিনের পর দিন। সিনেমার গল্পের কাহিনী ও সংলাপের চেয়েও তাঁর স্টাইলের স্বকীয়তা তাকে নিয়ে গেছে অনন্য উচ্চতায়।

যে ফ্যাশন, স্টাইল তিনি নব্বইয়ের দশকের শুরুতেই করে গেছেন তা এই দীর্ঘ সময় পর এসেও অনন্য, স্মার্ট। সালমানের অনেক স্টাইল বলিউডের খানরাও অনুসরণ করেন। যার প্রমাণ প্রতিনিয়ত হিন্দি ছবিগুলোতে পাওয়া যায়।

মৃত্যুর পরেও সালমান এদেশের হাজার হাজার মানুষের মনে স্থায়ী জায়গা করে রেখেছেন, সে জায়গার ব্যাপকতা শুধুই বাড়ে। নতুন প্রজন্মের তরুণ-তরুণীরা সালমানের সে সময়ের ছবি দেখে শুধু মুগ্ধই হয় না দারুণ রোমাঞ্চিতও অনুভব করে, আর মনে একরাশ আক্ষেপ তৈরি হয় কেন এতো আগে চলে যাওয়া! বাংলাদেশে এখনো অসংখ্য ভক্ত রয়েছে যারা সালমানকে বুকে ধারণ করে রেখেছেন সত্তায়, অন্তরে, ভেতরে বাহিরে। ভালোবাসার ব্যাপকতায় ঘাটতি নেই, রয়েছে শুধুই ভালোবাসা।

তেমনই একজন ভক্ত নাহিদ ইমন। যিনি তার দৈনন্দিন জীবনের সমস্ত সত্তায় রেখেছেন প্রিয় নায়ককে। শয়নে, স্বপনে ভাবনায় সালমান। নিজের একটি পোশাকের দোকানে বেঁধে রেখেছেন সালমানের ছবি। যার জন্য প্রতিনিয়ত অনুভব করেন শুধু ভালোবাসা। ভালোবাসায় বেঁচে থাকেন সবার প্রিয় নায়ক।


মন্তব্য