kalerkantho


শেষ হতে পারে স্টার জলসার দুটি ধারাবাহিক!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ মে, ২০১৭ ১১:২৮



শেষ হতে পারে স্টার জলসার দুটি ধারাবাহিক!

স্টার জলসায় আসছে নতুন তিনটি ধারাবাহিক। ইতিমধ্যেই তিনটি ধারাবাহিকের প্রোমো দেখানো হয়েছে চ্যানেলে কিন্তু এখনও স্লট উল্লেখ করা হয়নি। মোটামুটি ভাবে মে মাসের শেষ থেকে বা জুনের প্রথম সপ্তাহ থেকেই নতুন ধারাবাহিকগুলি শুরু হতে চলেছে বলে শোনা যাচ্ছে। সাধারণত আইপিএল চলাকালীন নতুন ডেইলি সোপ লঞ্চ না করাই দস্তুর কারণ এই সময়ে সব বিনোদন চ্যানেলের জিআরপি এক ঝটকায় অনেকটা নেমে যায়। আইপিএলের আগে স্টার জলসার জিআরপি ৭০০ এর ওপর পৌঁছে গিয়েছিল কিন্তু এখন তা নেমে এসেছে ৫০০ এর ঘরে। শুধু স্টার জলসা নয়, জি বাংলার জিআরপিও অনেকটাই নেমে গিয়েছে আইপিএলের কারণে। তাই এই অবস্থায় নতুন ধারাবাহিক লঞ্চ করাটা খুব একটা ফলপ্রসূ হবে না। এখন প্রশ্ন হলো, নতুন যে তিনটি ধারাবাহিক আসছে সেগুলি কোন কোন স্লটে আসবে অর্থাৎ কোন কোন চলতি ধারাবাহিক বন্ধ হবে?

সম্প্রতি বিক্রম চট্টোপাধ্যায়ের দুর্ঘটনার পরে টেলিপাড়ায় একটি গুঞ্জন রয়েছে যে 'ইচ্ছেনদী' বন্ধ হয়ে যাবে খুব তাড়াতাড়ি। যদিও স্টার জলসা কর্তৃপক্ষ এই গুঞ্জনকে সত্য বলতে নারাজ। এই বিষয়ে তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তাঁরা জানান যেকোনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা এখনও পর্যন্ত হয়নি। ওদিকে টেলিপাড়া সূত্রের খবর, ইচ্ছেনদী ছাড়াও বন্ধ হতে পারার তালিকায় সবচেয়ে ওপরের দিকে রয়েছে যে দুটি ধারাবাহিক, সেগুলি হলো দেবীপক্ষ ও স্বপ্ন উড়ান। এও শোনা যাচ্ছে যে দেবীপক্ষর স্লটে আসতে পারে সুরিন্দর ফিল্মস এর মায়ার বাঁধন। তবে চ্যানেলের পক্ষ থেকে এখনও পর্যন্ত এই বিষয়ে কোনও আনুষ্ঠানিক ঘোষণা হয়নি।

ধারাবাহিকের প্রযোজক সংস্থা অ্যাক্রোপলিস এন্টারটেইনমেন্টও এই বিষয়ে কিছু মন্তব্য করতে নারাজ। গত ৩০ জানুয়ারি লঞ্চ হয় দেবীপক্ষ। এই ধারাবাহিকেই লম্বা ব্রেকের পরে টেলিভিশনে ফিরেছিল গীতশ্রী ও ইন্দ্রজিতের জনপ্রিয় জুটি। ধারাবাহিকের চিত্রনাট্যও ছিল বেশ টানটান, একেবারেই বাঁধা গতের গল্প নয়। পরিবারের প্রেক্ষাপটে অরগানাইজড ক্রাইম নিয়ে এই ধরনের গল্প বাংলা টেলিভশনে বেশ বিরল। কাস্টিংও ছিল দুর্দান্ত। সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ধারাবাহিকের সেট। শোনা যায়, এই চোখ ধাঁধানো সেটটি বানাতে প্রায় ২ কোটি টাকা ব্যয় হয়েছিল। সাম্প্রতিক সময়ে বাংলা টেলিভিশনে এত বিলাসবহুল সেট খুব একটা দেখা যায়নি। কিন্তু টিআরপি তালিকায় খুব বেশিদূর এগোতে পারেনি এই ধারাবাহিক। যদিও গত সপ্তাহের তুলনায় এই সপ্তাহে কিছুটা হলেও টিআরপি বেড়েছে।

বলতে গেলে দেবীপক্ষর সঙ্গেই প্রায় লঞ্চ হয়েছিল স্বপ্ন উড়ান। সাংবাদিক ও পুলিশ সদস্যর প্রেম নিয়ে একটু ভিন্ন ধরনের ধারাবাহিক হয়ে উঠতে পারত কিন্তু হয়নি। টিআরপিতেও খুব একটা সুবিধা করে উঠতে পারেনি। তাই এই ধারাবাহিকটি বন্ধ হওয়ারও প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে। তবে নতুন যে তিনটি ধারাবাহিক আসছে সেগুলি নিয়ে দর্শকদের মধ্যে বিশেষ উৎসাহ থাকবে। প্রথমত, মায়ার বাঁধন অত্যন্ত আবেগধর্মী গল্প, যা সাধারণত বাংলা টেলিভিশনের দর্শক উপভোগ করে। দ্বিতীয়ত, দর্শক দীর্ঘদিন ধরে অপেক্ষা করে আছেন রুকমা রায়ের প্রত্যাবর্তনের জন্য। রুকমার সঙ্গে ইন্দ্রজিৎ চক্রবর্তীর জুটি দর্শকদের কাছে বেশ অপ্রত্যাশিত। তাই এই জুটি নিয়ে কৌতূহল দর্শক টানতে সক্ষম হবে বলেই আশা করা যায়।

 



মন্তব্য