kalerkantho


যৌবনে ঝড় তোলা চিত্রনায়িকার করুণ পরিণতি!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৭:২৬



যৌবনে ঝড় তোলা চিত্রনায়িকার করুণ পরিণতি!

এক সময়ে ছিলেন পর্দা কাঁপানো অভিনেত্রী। ভারতের  দক্ষিণী সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা নিশা নুর। অনেক পুরুষেরই স্বপ্ন ছিল তাঁকে ঘিরে। তামিল এবং মালয়ালি সিনেমার সুপারস্টার রজনীকান্ত এবং কমল হাসানের সঙ্গে বহু সিনেমায় অভিনয় করেছেন নিশা। তবে ২০০৭ সালে এইডসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় তাঁর। তবে সম্প্রতি নায়িকার মৃত্যুর আগে চেহারার রূপ যে আকার ধারণ করেছিল তারই একটি ছবি ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়েছে।

যে পুরুষরা তাঁকে নিয়ে রঙিন স্বপ্ন দেখতেন তাঁরা নিশার এই চেহারা দেখলে আঁতকে উঠবেন। অনেকে বলেন, তামিল সিনেমার জগৎ ছেড়ে পতিতাবৃত্তিতে নামতে বাধ্য করা হয় নিশাকে। একাধিক পুরুষের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে মিলিত হওয়ায় তাঁর শরীরে বাসা বাধে মারণব্যাধী এইডস।

অবশ্য, প্রথমদিকে তিনি নিজেও জানতেন না তার এইডস হয়েছে। তামিলনাড়ুর একটি হাসপাতালে শারীরিক পরীক্ষার পর তিনি বিষয়টি জানতে পারেন।

ধীরে ধীরে তার শরীরের এমন অবস্থা হয় যে তাকে দেখলেই মানুষ ভয়ে আঁতকে উঠত। তার মুখ দেখে চেনার উপায় ছিল না। টিক টিক টিক (১৯৮১), কল্যাণা আগাথিগাল (১৯৮৬) এবং আইয়ের দ্য গ্রেট (১৯৯০) সিনেমার জন্য বিশেষভাবে পরিচিত ছিলেন এই অভিনেত্রী। পরিবারের খরচ চালাতেই নাকি তিনি পতিতাবৃত্তিতে নামতে বাধ্য হয়েছিলেন। অ‌থচ মৃত্যুর সময় তাঁর পাশে দাঁড়াননি তাঁর পরিবার ও বন্ধুরা। মৃত্যু পর রাস্তা থেকে উদ্ধার হয় তাঁর কঙ্কালসার লাশ। হায়, ভাগ্যের কী নিদারুণ পরিহাস!


মন্তব্য