kalerkantho


ট্রাম্পের দিকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার আহবান লিন্ডসে লোহানের!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৫:৫১



ট্রাম্পের দিকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার আহবান লিন্ডসে লোহানের!

হলিউড অভিনেত্রী লিন্ডসে লোহান মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের প্রতি দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রতি সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার আহবান জানিয়েছেন।
লোহান বলেন, জাতির উচিত এখন প্রেসিডেন্টের পেছনে দাঁড়ানো। তিনি বলেন, আমরা শুধু লোকের দোষ খুঁজতেই ব্যস্ত থাকি। কিন্তু শুধু কারো পতনেই সমস্যার সমাধান হবে না। আর আমার ধারণা আমরা সকলেই সেটা জানি।
অথচ এই ট্রাম্পই ২০০৪ সালে লিন্ডসে লোহানের বিরুদ্ধে লিঙ্গ বিদ্বেষমূলক মন্তব্য করেছিলেন। সেসময় লোহানের বয়স ছিল মাত্র ১৮।
এক রেডিও সাক্ষাতকারে ট্রাম্প বলেন, “লোহান সম্ভবত গভীরভাবে অস্থির ও সমস্যাগ্রস্ত। আর এ কারণেই সে বিছানাতে খুব ভালো করবে। অস্থির নারীরা বিছানাতে সব সময়ই সেরা হয়ে থাকেন। ”
ফেসবুকে ব্রিটেনের পত্রিকা দ্য ডেইলি মেইলের সঙ্গে সাক্ষাতকার দেওয়ার সময় লোহান বলেন, “তোমরা যদি তাকে পরাস্ত করতে না পারো তাহলে তার সঙ্গে যোগ দাও”।


দ্য প্যারেন্ট ট্র্যাপ এবং মিন গার্লস খ্যাত এই অভিনেত্রী হেরোইনের মতো মাদকাসক্তির জন্যও বিখ্যাত। সম্প্রতি ইসলাম ধর্মের প্রতি নিজের বেড়ে চলা আগ্রহের ব্যাপারেও কথা বলেন লোহান।
তিনি ইসলামকে একটি সুন্দর ধর্ম বলে আখ্যায়িত করেন এবং তার নিজের ইসলামে ধর্মান্তরিত হওয়ার সম্ভাবনার কথাও জানান। তিনি বলেন, যে কোনো কিছুই সম্ভব।
তিনি বলেন, তিনি কোরআন পড়ছিলেন। এবং যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে যেতে ভয় পাচ্ছেন। কারণ ট্রাম্প মুসলিমদের যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করে আতঙ্ক সৃষ্টি করেছেন।
সম্প্রতি লোহান তুরস্কে সিরীয় শরণার্থী শিবিরে পরিদর্শনে যান। এসময় তিনি ট্রাম্পের প্রতি শরণার্থীদেরকে সহায়তা দেওয়ার এবং মুসলিমদের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের আহবান জানান।
লোহান সম্প্রতি তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোয়ানের সঙ্গেও সাক্ষাত করেন। লোহান বলেন, তুরস্ক সিরীয় শরণার্থীদেরকে বেশ সহায়তা করছে। তুরস্কের নজির টেনে যুক্তরাষ্ট্রকেও শরণার্থীদের প্রতি সহায়তার হাত    বাড়িয়ে দিতে বলেন লোহান।
সূত্র: দ্য ইনডিপেনডেন্ট


মন্তব্য