kalerkantho


দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ে দিশা পাটানিকে 'ভার্জিন গাছ' বানিয়ে পূজা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২১:৩৯



দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ে দিশা পাটানিকে 'ভার্জিন গাছ' বানিয়ে পূজা

ভারতের দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের হিন্দু কলেজে এক ধরনের প্রথা আছে। প্রতিবছর ভ্যালেন্টাইনস ডেতে তারা দমদমি মাতার পূজা করে।

এবছর সেই দমদমি মাতা হিসেবে পূজিত হলেন দিশা পাটানি।

ভ্যালেন্টাইনস ডের দিন পূজা হয় দমদমি মায়ের। আজ সকাল সাড়ে দশটা নাগাদ পূজা হয়। শুধু হিন্দু কলেজ নয়। অন্য কলেজ থেকেও পূজায় এসেছিল পুরুষ ‘ভক্তরা’। একটি গাছ, যাকে তারা ভার্জিন ট্রি বা কুমারী গাছ আখ্যা দিয়েছে, তাকে পূজা করা হয়। এবছর গাছটি সাজানো হয়েছে বিভিন্ন রঙের দিয়ে। তার উপরেই আসন দমদমি মায়ের। এবছর সেই সিটে দিশা পাটানির ছবি।

সাধারণত কোনও অভিনেত্রীকেই প্রতিবছর দমদমি মা হিসেবে পূজা করা হয়। ভোটের মাধ্যমেই চূড়ান্ত হয় দমদমি মায়ের নাম। এবছর দিশা ছাড়া প্রতিযোগিতায় ছিলেন নার্গিস ফাখরি। কিন্তু নার্গিসকে হারিয়ে দমদমি মায়ের আসন করায়ত্ত করেন দিশা। কলেজের দ্বিতীয় ও তৃতীয় বর্ষের ছাত্ররা দমদমি মা হিসেবে দিশাকে পছন্দ করে।

পূজার পুরোহিত হয় কোনও নবাগত। আর যারা পূজায় অংশ নেয়, সেইসব ‘ভক্তদের’ জন্য রয়েছে কড়া নিয়ম। যেভাবেই হোক সামনের ৬ মাসের মধ্যে তাদের ভার্জিনিটি হারাতে হবে। এটা পূজার অন্যতম আচার।  


মন্তব্য