kalerkantho


জ্যাকের মৃত্যু নিয়ে দ্বন্দ্ব : কী বলছেন ক্যামেরন?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৯:৩২



জ্যাকের মৃত্যু নিয়ে দ্বন্দ্ব : কী বলছেন ক্যামেরন?

ডুবে যাচ্ছে টাইটানিক। একটি কাটের পাটাতনে উঠে কোনওরকমে প্রাণ বাঁচানোর চেষ্টা করছে রোজ। পাটাতনের এক কোণ ধরে ঝুলছে জ্যাক। কিন্তু পাটাতনটা ছিল বেশ বড়। অনায়াসে তাতে উঠে নিজের প্রাণ বাঁচাতে পারত জ্যাক। টাইটানিক রিলিজের পর থেকে সোশাল সাইটে এই নিয়ে অনেক সমালোচনা হয়েছে। কিন্তু সম্প্রতি জেমস ক্যামেরন জানিয়েছেন, এমন হতে পারত না। একসঙ্গে থাকতে পারত না জ্যাক ও রোজ।

গত ২০ বছর ধরে এই সমালোচনা চলছে। একের পর এক আঙুল উঠেছে ক্যামেরনের ওপর। কেউ কেউ তো এও বলেছেন, রোজ বড়ই স্বার্থপর। তাই তো জ্যাককে সেই কাঠের পাটাতনে উঠতে দেয়নি। যখন জ্যাক জমে বরফ হয়ে গেছে, তাকে সমুদ্রে ফেলে দিয়েছে। কিন্তু নিজের পিতৃদত্ত প্রাণটি বাঁচিয়ে ফিরেছে।

এমন সমালোচনার পর আর চুপ থাকতে পারেননি ক্যামেরন। একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, “দেখ, এটা খুব সহজ। চিত্রনাট্যের ১৪৭ পাতায় লেখা আছে জ্যাক বোর্ড থেকে বেরিয়ে গেল যাতে সে (রোজ) বাঁচতে পারে। এবার এটা নিয়ে যে যা খুশি বিশ্লেষণ করতে পারে। ” তবে এর সঙ্গে তিনি আরও একটি কথা জানিয়েছেন। বলেছেন, যদি কেউ ২৮ ডিগ্রি ফারেনহাইট (মাইনাস ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস) তাপমাত্রায় থাকে, তার ব্রেন ধীরে ধীরে কাজ করা বন্ধ করে দেবে। যদি জ্যাক সাঁতারের চেষ্টাও করত, তাহলেও ওই তাপমাত্রায় তা সম্ভব ছিল না। আগেই সে মারা যেত। তাই জ্যাকের কাছে সবথেকে ভালো উপায় ছিল নিজের দেহের উর্ধ্বাংশ বাইরে রেখে কোনও জাহাজ বা নৌকো খোঁজার চেষ্টা করা।  


মন্তব্য