kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


জুলফিকারের সংলাপে কাঁচি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ অক্টোবর, ২০১৬ ১৭:১৫



জুলফিকারের সংলাপে কাঁচি

ছবির মুক্তিতে কোনও বাধা নেই। কিন্তু তার জন্য কাঁচি চালাতে হয়েছে জুলফিকারের কিছু সংলাপে।

কিছু সংলাপ বদলেছে ছবির।

এই শুক্রবার মুক্তি পাওয়ার কথা জুলফিকারের। কিন্তু ছবি মুক্তির আগে এক সংখ্যালঘু সংগঠন ছবিটি নিয়ে আপত্তি তোলে। ছবির কিছু দৃশ্য ও সংলাপ নিয়ে আপত্তির কথা জানায় তারা।

সাধারণত বিদায় সম্ভাষণে “আল্লা হাফিজ়” কথাটি বলা হয়। ছবিতে দেখানো হয়েছে “আল্লা হাফিজ” বলে গুলি চালিয়ে জুলফিকারকে হত্যা করা হচ্ছে। ছবির আরেকটি জায়গায় বলা হয়েছে, “টেরোরিস্ট নেহি, জেহাদি হ্যায়, ইন লোগোকো মাদ্রাসা পাঠাও। ” এই সংলাপে আপত্তি আছে সংগঠনটির। তাছাড়া মুসলিম অধ্যুষিত খিদিরপুর, গার্ডেনরিচ, মেটিয়াবুরুজকে কলকাতার মধ্যে ছোট্ট দেশ বলে বর্ণনা করা হয়েছে।

মূলত এই তিনটি বিষয়ে সংগঠনটির আপত্তি ছিল। বিষয়গুলি নিয়ে সংখ্যালঘু সংগঠনটির সঙ্গে বৈঠকে বসেন ছবির পরিচালক সৃজিৎ মুখোপাধ্যায় এবং প্রযোজক মহেন্দ্র সোনি। সংগঠনের দাবি মেনে ছবির ওই দৃশ্য ও বক্তব্যগুলি এডিট করা হয়েছে। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী “আল্লা হাফিজ”-এর পরিবর্তে ছবিতে “আলবিদা” শব্দটি ব্যবহার করা হয়েছে। টেরোরিস্ট-জেহাদি-মাদ্রাসার সংলাপটিও এডিট করা হয়েছে। ছবির ট্রেলার এবং ছবিটি থেকে খিদিরপুর, গার্ডেনরিচ এবং মেটিয়াবুরুজ এলাকার উল্লেখ সরিয়ে ওটাকে কোনও নামহীন জায়গা বলা হয়েছে।

এডিট করার পর এই সংগঠনের সদস্যদের নাকি দেখানোও হয় ছবিটি। ছবিটিতে আর কোনও আপত্তিকর বিষয় নেই বলে জানিয়েছেন সংগঠনের সদস্যরা।


মন্তব্য