kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সংবাদ প্রতিদিনের প্রতিবেদন

সকালে প্রেম, বিকেলে অভিমান: শুভশ্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২১:৪৪



সকালে প্রেম, বিকেলে অভিমান: শুভশ্রী

পূজায় এবার জোড়া ছবি মুক্তি পাচ্ছে শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়ের। তার ব্যস্ততার মাঝেই কেরিয়ার, জীবন আর দেবকে নিয়ে মন খুললেন নায়িকা।

সংবাদ প্রতিদিন: কতটা ব্যস্ত দুটি ছবির প্রোমোশন নিয়ে? একই দিনে তো মুক্তি পাচ্ছে ‘প্রেম কী বুঝিনি’ আর ‘অভিমান’।
শুভশ্রী: একই সময়ে দুটি ছবির প্রোমোশন পড়েছে বলে খুবই ব্যস্ত। ঘরে দুই-তিন ঘণ্টা করে ফিরছি। সারাটা দিন বাইরে বাইরে। বলতে পারো সকালে প্রেম, বিকেলে অভিমান। (হাসি)

সংবাদ প্রতিদিন: বাংলায় ২০১৫-তে ‘শেষ বলে কিছু নেই’-এর পর তো আর ছবিতে দেখা যায়নি। অনেক দিন পর একই সঙ্গে আবার দুটো ছবির মুক্তি। একটু গ্যাপে মুক্তি পেলে ভাল হত মনে হয় না?
শুভশ্রী: না, সেটা মনে হয় না। আমার কেরিয়ারে এই প্রথম এক সঙ্গে দুটি ছবি মুক্তি পাচ্ছে। সেটা নিয়ে আমি খুবই এক্সাইটেড। যুদ্ধক্ষেত্রে নেমে পড়েছি, যেটা হবে সেটাই পজিটিভলি নেব।

সংবাদ প্রতিদিন: প্রায় এক বছরের ওপর টলিউডে কোনও ছবি মুক্তি পায়নি। কতটা মিস করছেন?
শুভশ্রী: দেখো সেই সময়ে আমি সাউথে খুব ভাল অফার পেয়ে সেখানে কাজ করছিলাম। কলকাতায় সেই সময়ে কোনও কমিটমেন্ট ছিল না। তাই বাইরে কাজ করছিলাম। কাজ করাটাই ইম্পর্ট্যান্ট।

সংবাদ প্রতিদিন: তবু এই এক বছরে টলিউডে আপনি ছিলেন না, আপনার ছবি বেরোয়নি পেজ থ্রি-তে আপনাকে নিয়ে কথা হয়নি, এতে অসুবিধে হয়নি?
শুভশ্রী: দেখো অনেস্টলি বলতে গেলে আমার কোনও ইনসিকিওরিটি নেই। আর একটা জিনিস খুব মনে হয়, জীবনে সব কিছুই খুব টেম্পোরারি, তা সে এই খবরে থাকাই হোক বা সাফল্য। তাই যখন যেমন আছি, তার মধ্যেই আনন্দে থাকি। আমার ভাল থাকার সঙ্গে সাফল্য বা খবরের কাগজে ছবি বেরনোর সম্পর্ক নেই। ভাল থাকাটা ভিতরের ব্যাপার।

সংবাদ প্রতিদিন: ‘প্রেম কী বুঝিনি’-তে কেমন চরিত্র? ওম-এর মতো তুলনায় অনভিজ্ঞ অভিনেতার সঙ্গে কাজ করতে কেমন লাগল?
শুভশ্রী: এটা প্রেমের ছবি। মেয়েটা তার প্রেমের জন্য লন্ডন পর্যন্ত যায়। কিন্তু ওরা পরস্পরকে কতটা ভালবাসে এটা বুঝতেই পারে না। আর নতুনদের সঙ্গে কাজ করতে ভাল লাগে। ওমের মতো নতুন অভিনেতাদের মধ্যে একটা খিদে থাকে, ডেডিকেশন থাকে।

সংবাদ প্রতিদিন: ‘অভিমান’-এ আপনার স্ক্রিন প্রেজেন্স কতটা?
শুভশ্রী: দেখো ট্রেলারে একটা কনফিউশন রাখা হয়েছে। আমি সেটা এক্ষুনি ভাঙতে চাই না।

সংবাদ প্রতিদিন: রাজ চক্রবর্তীর সঙ্গে ‘চ্যালেঞ্জ’ এর পর আবার আট বছর পর কাজ করলেন? কেমন অভিজ্ঞতা?
শুভশ্রী: এই ছবিতে কাজ করার সময়ে এটা আমার জন্য বাড়তি উৎসাহ হিসেবে কাজ করেছে। রাজ অত্যন্ত ট্যালেন্টেড ডিরেক্টর। তবে এবার শুটিংয়ে আমি আর সায়ন্তিকা ওর মাথা খারাপ করে দিয়েছি বলতে পারো। এত বকবক করেছি আমরাও যে, পাগল-পাগল হয়ে গিয়েছিল।

সংবাদ প্রতিদিন: পূজার মধ্যে ‘ধূমকেতু’ মুক্তি পিছিয়ে গেল, এতে আপসেট কি?
শুভশ্রী: দেবের সঙ্গে ‘ধূমকেতু’ আমার কাছে খুব স্পেশাল ছবি। এত ছবির ভিড়ে ওটা মুক্তি না পেয়ে একদিকে ভালই হয়েছে।

সংবাদ প্রতিদিন: ‘ধূমকেতু’ করতে গিয়ে দেবের সঙ্গে সম্পর্কটা আগের থেকে স্বাভাবিক হয়েছে?
শুভশ্রী: হ্যাঁ, হ্যাঁ, এখনই অনেকটা স্বাভাবিক। অনেকদিন পর ওর সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতা বেশ ভাল।

সংবাদ প্রতিদিন: এই যে একটা লম্বা বিরতির পর ছবি মুক্তি পাচ্ছে– এই সময়টা টলি সার্কিট থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন, কারও ওপর কোনও অভিমান হয়নি?
শুভশ্রী: না, না। আমি এই ভাবেই থাকতে প্রেফার করি। অভিমান কার ওপর হবে? যাদের ভালবাসি, অভিমান তাদের ওপর হয়। বেছে ছবি করতে চাই। যে অফার ভাল লাগবে সেটাই করব। আমার কোনও তাড়া নেই।


মন্তব্য