kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় আহত আওয়ামী লীগ নেতা ১০ মাস ধরে নিখোঁজ

জামালপুর প্রতিনিধি   

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৪:১৯



২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় আহত আওয়ামী লীগ নেতা ১০ মাস ধরে নিখোঁজ

২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলায় মাথায় স্প্লিন্টারবিদ্ধ তেজগাঁও কলেজের উপাধ্যক্ষ আব্দুল হান্নান ১০ মাস ধরে নিখোঁজ রয়েছেন। তার বাড়ি জামালপুর জেলার সরিষাবাড়ী উপজেলার সাতপোয়া ইউনিয়নের চর চুনিয়াপটল গ্রামে।

তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপকমিটির সহসম্পাদক ও কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহসভাপতি ছিলেন।

তেজগাঁও কলেজের বাংলা বিভাগের শিক্ষক সরিষাবাড়ীর কৃতিসন্তান অধ্যাপক আব্দুল হান্নান গত বছরের ৭ ডিসেম্বর থেকে হঠাৎ নিখোঁজ হন। পরদিন ৮ ডিসেম্বর তাঁর স্ত্রী একই কলেজের শিক্ষিকা (দর্শন) আফরোজা সুলতানা শেরেবাংলা নগর থানায় আব্দুল হান্নান নিখোঁজের ব্যাপারে সাধারণ ডায়েরি করেছেন। যার নম্বর ৫৫২। এরপর থেকে তাঁর আর কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি।

শেরেবাংলা নগর থানার জিডি ও আব্দুল হান্নানের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, ২০১১ সালের ১ জুন তিনি রাজধানীর তেজগাঁও কলেজের উপাধ্যক্ষ ৩ (সৃষ্ট পদ ২) হিসেবে যোগদান করেন। তিনি এর আগে তেজগাঁও কলেজেই বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। ২০১৫ সালের ৭ ডিসেম্বর (সোমবার) সকালে ঢাকার ইন্দিরা রোডের কলেজ ছাত্রাবাসসংলগ্ন বাসা থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পর আব্দুল হান্নান নিখোঁজ হন। বাইরে যাওয়ার সময় তাঁর ব্যবহৃত মোবাইলটি বাসায় রেখে যান। ওই দিন তিনি আর বাসায় ফিরেননি। এরপর বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করেও তাঁর সন্ধান মেলেনি। আব্দুল হান্নান ওই কলেজেরই ছাত্রাবাস তত্ত্বাবধায়ক ছিলেন। স্ত্রী ও তিন মেয়ে নিয়ে তিনি কলেজের স্টাফ কোয়াটারে থাকতেন। নিখোঁজের কিছুদিন আগে তিনি কলেজের উপাধ্যক্ষের পদ হারান।

কলেজ সুত্রে জানা গেছে, ২০১১ সালে তেজগাঁও কলেজে উপাধ্যক্ষ পদে কর্তৃপক্ষ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেয়। সব প্রক্রিয়া অনুসরণ ও যোগ্যতার ভিত্তিতে ওই বছরের ১ জুন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. আব্দুর রশীদের স্বাক্ষরে আব্দুল হান্নান উপাধ্যক্ষ ৩ (সৃষ্ট পদ ২) হিসেবে নিয়োগ পান। অভিযোগ রয়েছে, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় বিধিমালা লঙ্ঘন করে কলেজের অধ্যক্ষ ও গভর্নিংবডির সুবিধামতো অযৌক্তিক কিছু শর্তারোপ করে আব্দুল হান্নানকে নিয়োগপত্র দেওয়া হয় যার সূত্র নম্বর তেক/উপাধ্যক্ষ/সৃষ্টপদ-২/নিয়োগ/১১০৬০১(৩)। ওই সব অযৌক্তিক শর্তের সুযোগে ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে তাঁকে উপাধ্যক্ষ পদ থেকে বিনা নোটিশে অব্যাহতি দেন অধ্যক্ষ। এরপর ওই পদে নিয়োগ দেওয়া হয় জামালপুর জেলার সরিষাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হারুন-অর-রশীদকে। নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত উপাধ্যক্ষ ৩ হারুন-অর-রশীদ একই কলেজের অধ্যক্ষ তেজগাঁও থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রফেসর মো. আব্দুর রশীদের সহোদর।

নিখোঁজ আব্দুল হান্নান এর নিকটাত্মীয়রা জানান, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকার পরও কলেজের উপাধ্যক্ষ পদ থেকে আব্দুল হান্নানকে সরিয়ে দেওয়ায় তিনি চরম অপমানিত বোধ করেছেন। বিষয়টি তিনি মেনে নিতে পারছিলেন না। তাই দলের অনেক শীর্ষ নেতা ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে তিনি কয়েকদফা আপত্তি জানিয়েছেন। কিন্তু কোনো সুবিচার পাননি। নিকটাত্মীয়রা আরও জানান, উপাধ্যক্ষ পদ ছাড়াও আব্দুল হান্নানের সাথে অধ্যক্ষ আব্দুর রশীদের ভেতরে ভেতরে রাজনৈতিক বিরোধ ছিল। আব্দুল হান্নান আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপকমিটির বর্তমান সহসম্পাদক এবং কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সিনিয়র সহসভাপতি। ২১ আগস্ট আওয়ামী লীগের জনসভায় গ্রেনেড হামলায় তিনি মাথার সামনের অংশে তিনটি স্প্লিন্টারবিদ্ধ হন। রাজশাহী কলেজের ভিপি, রাকসুর এজিএস ও রাবি ছাত্রলীগের সভাপতিসহ ছাত্রজীবন থেকেই তিনি আওয়ামী রাজনীতির বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেন। অপরদিকে অধ্যক্ষ আব্দুর রশীদের রাজনৈতিক উত্থান আব্দুল হান্নানের হাত ধরেই। আব্দুর রশীদ বর্তমানে জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও সম্প্রতি তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি হয়েছেন। আব্দুল হান্নান ও আব্দুর রশীদ উভয়ই আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জামালপুর ৪ (সরিষাবাড়ী) আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়নে সংসদ সদস্য প্রার্থী হওয়ার প্রত্যাশায় চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিলেন।

শেরেবাংলা নগর থানার ওসি গোপাল গণেশ বিশ্বাস বলেন, আব্দুল হান্নান মানসিকভাবে অসুস্থ ছিলেন। তাঁর নিখোঁজের কোনো ক্লু মেলেনি, তবে চেষ্টা অব্যাহত আছে।


মন্তব্য