kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


দুই পুরুষ ও 'দেবী' পাওলি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৫:৫৫



দুই পুরুষ ও 'দেবী' পাওলি

আমাদের এই সমাজে একজন পুরুষ যদি প্রেমে পড়ে জীবন নষ্ট করতেন তা হলে সমাজ তাকে এক বা একাধিক সুযোগ দেয় যাতে তিনি আবার জীবনটাকে গুছিয়ে নিতে পারেন। এমনটা ছিল ১০০ বছর আগেও।

সেই ১৯১৭ সাল। শরৎবাবু লিখেছিলেন 'দেবদাস '। তখন সময়টা যেমন আলাদা ছিল। সমাজের নিয়মনীতিও ছিল একেবারে আলাদা। কিন্তু দেখুন, ১০০ বছর কেটে গেল কিন্তু এই সামাজিক ধারণার কোনও বদল ঘটল না।

সমাজ চলে পুরুষের শাসনে। পুরুষ নিজের ভোগের জন্য অদ্ভুত সব নিয়ম তৈরি করে নারীদের উপর চাপিয়ে দেয়। আর চলে নির্যাতন। নতুন বাংলা ছবি 'দেবী ' চোখে আঙুল দিয়ে দেখায় যে , এই মেল ইগো আর ভিক্টোরিয়ান যুগের নিয়মনীতি নিয়েও প্রশ্ন তোলা যায়। কীভাবে ?

এই ছবি প্রশ্ন ছুঁড়ে দেয় একজন নারী যদি ঠিক এভাবেই ভালোবাসার জন্য তার জীবন নষ্ট করে ফেলে , তা হলে সমাজ তাকে ঠিক কোন নজরে দেখবে ? তাতে সেই নারীর কী অনুভূতি হবে ? আর যে পুরুষদের জড়িয়ে তাকে নিয়ে এই কথা হবে , তারাই বা কীভাবে রিঅ্যাক্ট করবে এই ঘটনায় ? এই ছবি শ্যুটিং করে নায়িকা পাওলি বলেছিলেন , 'দেখতে চাই সমাজের রক্ষণশীল মানুষদের কেমন লাগে এই ছবি। 'অনেকেই আঁচ করতে পারছেন নিশ্চয়ই শরত্চন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের লেখা কোন গল্প এই ছবির ভিত হতে পারে। ঠিকই ধরেছেন। প্রদীপ চুড়িয়াল আর ম্যাকনেইল ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেড নিবেদিত এই 'দেবী', দেবদাস -এর জেন্ডার রিভার্সাল। যেখানে দেবদাস হয়ে যায় দেবী।

এমন একটা বিপ্লবী ছবি নির্মাণের পিছনে রয়েছেন পরিচালক ঋক বসু। এতদিন টলিউডের বিভিন্ন বিখ্যাত ছবির ট্রেইলার বানাতেই বেশি স্বচ্ছন্দ ছিলেন যিনি। ঋক বলছেন , 'এই ভাবনা আমার মাথায় ঘুরছে গত দু' বছর ধরে। পাওলির সঙ্গে হঠাত্ আলোচনা করার পর বিষয়টা ছবির আকার নিল। প্রথমে ছবির নামটাও আমি ভেবেছিলাম 'পাওলি '।

কিন্তু ঋতর্ষির সঙ্গে আলোচনা শুরু হওয়ার পর কিছু পরিবর্তন হল। " প্রসঙ্গত, ঋতর্ষি দত্ত এই ছবির চিত্রনাট্য আর সংলাপ লিখেছেন। তারও এটা প্রথম ছবি। ছবির দৃশ্যগহণের দায়িত্বে ছিলেন রানা দাশগুন্ত, যার কাজ আগেও সমালোচক মহলে প্রশংসা কুড়িয়েছে। ছবির মিউজিকও নিউ এজ বলে দাবি পরিচালকের। আর এই প্রথম বাংলা ছবিতে থাকছে হিন্দি গান। ছবির সঙ্গীত হেঁশেল সামলেছেন স্যাভি আর কুন্তল দে। প্রযোজক প্রদীপ চুড়িয়ালকে প্রশ্ন করা গেল , এরকম একটা নতুন টিম নিয়ে কাজ করার ভাবনা মাথায় এল কেন ? তার উত্তর , 'এবার সেই নতুন প্রজন্মকে সুযোগ দেওয়া উচিত, যারা বাংলা ছবিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে বলে মনে করছি। প্রযোজক হিসেবে এটা আমার দায়িত্ব। '

তবে এই ছবি দেখার জন্য অপেক্ষা করতে হবে আগামী বছর পর্যন্ত। ২০১৭ শুরুর দিকে মুক্তি পাবে 'দেবী


মন্তব্য