kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ফের মাতাতে আসছেন দেব

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:৫৯



ফের মাতাতে আসছেন দেব

‘লাভ এক্সপ্রেস’ মুক্তি পাচ্ছে৷ সুপারস্টার দেব-এর ফ্যানদের জন্য এটাই যথেষ্ট যে, ছবিতে দেব রয়েছেন৷ সঙ্গীতপ্রেমীদের অনেকে আবার এই ছবি দেখতে চান কারণ জিত্ গঙ্গোপাধ্যায়ের সুরে এই ছবির তিনটে গানই হিট৷ জিত্ গঙ্গোপাধ্যায় বলছেন, ‘আমি আর দেব একসঙ্গে জুটি বেঁধে এলে তো গান হিট হবেই৷ ‘লাভ এক্সপ্রেস’-এও যে তেমনটা হয়েছে, সেটা বোঝাই যাচ্ছে দর্শকের ফিডব্যাক থেকে৷’ তবে তালিকা এতে শেষ নয়৷ ‘লাভ এক্সপ্রেস’ দেখার কারণ বেশ কয়েকটি রয়েছে৷ ১৷ এই ছবি দুর্দান্ত রোম্যান্টিক কমেডি৷ পুজা আসার আগে চারিদিকে খুশির আমেজ৷ রম-কম দেখতে এই সময় কার না ভালো লাগে৷ ২৷ দেব-নুসরতের রোম্যান্সে ভরপুর এই ছবি৷ ৩৷ ছবির পরতে-পরতে অ্যাডভেঞ্চার৷ ৪৷ ছবিতে মজাও প্রচুর৷ তাই ছবিটি দেখে দর্শক সিনেমাহল থেকে বেরোবেন আনন্দ নিয়ে৷

দেবকে জিজ্ঞেস করা গেল এই ছবির শ্যুটিং-এর কোন অংশ স্মৃতিতে থেকে যাবে? দেব বলছেন, ‘লাভ এক্সপ্রেস’-এর গল্পটাই এতটা আলাদা, এমন ছবি আমি কোনোদিনও করিনি৷ একটা রাতের গল্প৷ সে কারণে ট্রেনে শ্যুটিং করার দৃশ্যগুলো মনে থাকবে চিরকাল৷ এই ছবির শ্যুটিং করার সময় যে প্রচুর মজা হয়েছিল, সে কথা বলছেন সব অভিনেতাই৷ নায়িকা নুসরত যেমন বললেন, ‘আমার সবচেয়ে মজা যেটা লেগেছিল, উত্তরবঙ্গে যখন আমরা ছবির শ্যুটিং করছিলাম, প্রতিদিন শ্যুটিংয়ে এমন মানুষের ভিড় উপচে পড়ত, যে শ্যুটিং করা যাবে কিনা, সেটাই বোঝা যেত না৷ ছবির নায়ক যখন দেব, এমনটা তো হওয়ারই ছিল৷ আমার সেই সময় দারুণ মজা লাগত৷ আর এটা থেকেই বুঝতে পেরেছি, ‘লাভ এক্সপ্রেস’-এর ফার্স্ট ডে ফার্স্ট শো দেখতে কত মানুষ ভিড় করবেন৷’

অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষ আবার যোগ করলেন, ‘লাভ এক্সপ্রেস’সম্পর্কে আমাকে যে প্রশ্নই করা হোক, আমার উত্তর একটাই৷ এই ছবিটা সিনেমাহলে গিয়ে দেখলে সত্যি মজা পাবেন৷ তাই মিস করবেন না! রুদ্রনীলের পাশাপাশি ছবিতে রয়েছেন কাঞ্চন মল্লিক থেকে খারাজ মুখোপাধ্যায়৷ যাঁদের কমেডি অবশ্যই চোখে লেগে থাকবে৷ তা হলে আর দেরি কেন? ‘লাভ এক্সপ্রেস’-এর টিকিট কাটুন৷ আপনার যাত্রা শুভ হোক!

সূত্র: এই সময়


মন্তব্য