kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৭ জানুয়ারি ২০১৭ । ৪ মাঘ ১৪২৩। ১৮ রবিউস সানি ১৪৩৮।


নিষেধের যুগ পেরিয়ে কিউবায় রোলিং স্টোন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৬ মার্চ, ২০১৬ ০০:৪৫



নিষেধের যুগ পেরিয়ে কিউবায় রোলিং স্টোন

গোটা বিশ্বে রাজত্ব কায়েম করলেও অধরা থেকে গিয়েছিল একটি দেশ। অনেক কিছুই হয়ত পাল্টে গেছে, তবে তাঁদের ঘিরে শ্রোতাদের যে বিরাট আগ্রহ এখানেও আছে, তা বিলক্ষণ জানেন জ্যাগার–‌রা। তাই প্রায় ৫০ বছর পর কিউবায় নিজেদের প্রথম অনুষ্ঠান নিয়ে উচ্ছ্বসিত তাঁরাও। শুক্রবার রাতে প্রায় ৫ লক্ষ দর্শকের সামনে হাভানায় অনুষ্ঠান করবে রোলিং স্টোন। এক ঐতিহাসিক সপ্তাহের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে কিউবা। এর সূচনা মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সফরে। পূর্ণতা পেতে চলেছে জ্যাগারদের হাত ধরে। সঠিক অর্থেই ইতিহাস। তাই উচ্ছ্বাস বেঁধে রাখতে পারেননি জ্যাগার নিজেও। হাভানা বিমানবন্দরে নেমে তাই সময়কেই কৃতিত্ব দিলেন। বললেন, ‘‌সময় সব কিছু পাল্টে দেয়। ’‌ ৬০-এর দশকে ইউরোপ ও আমেরিকার বেশ কিছু জায়গায় রক মিউজিক ও হিপি সংস্কৃতি নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়। ১৯৫৯-এর বিপ্লবের পর পশ্চিমি দুনিয়ার সঙ্গীতের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেন ফিদেল কাস্ত্রো। টেলিভিশন, রেডিও সব জায়গাতেই রোলিং স্টোন, বিটলস বা এলভিস প্রিসলি'র মত শিল্পীদের গান নিষিদ্ধ করা হয়। যদিও পরে আফসোস করেছিলেন কাস্ত্রো নিজেই। তাই ২০০০ সালে হাভানার এক পার্কে লেননের মূর্তি বসাতে উদ্যোগী হয়েছিলেন। এত বছর পরও রোলিং স্টোন-এর ‘‌অল ডাউন দ্য লাইন’‌ বা ‘‌গেট অফ মাই ক্লাউড’-এর মতো গানের মায়া আজও কাটিয়ে উঠতে পারেননি কিউবাবাসী।   সামনে থেকে ঐতিহাসিক এই অনুষ্ঠান দেখার সুযোগ পেয়ে মধ্য বয়সেও আবেগের বাঁধ মানছে না অনেকের।

সূত্র: আজকাল


মন্তব্য