kalerkantho


'দৃশ্যগুলো করতে প্রথম প্রথম বেশ লজ্জা পেয়েছি'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ মার্চ, ২০১৬ ১৪:০৯



'দৃশ্যগুলো করতে প্রথম প্রথম বেশ লজ্জা পেয়েছি'

এয়ারটেলের প্রযোজনায় একটি নাটকের মাধ্যমে পর্দায় অভিষেক ঘটেছিল। এরপরে প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক ও চলচ্চিত্রকার হুমায়ূন আহমেদের 'ঘেটুপুত্র কমলা' চলচ্চিত্রে ঘেটুপুত্র চরিত্রে অভিনয় করে তুমুল আলোচনায় আসে মামুন।

বর্তমানে মামুন ব্যস্ত রুবেল আনুশ পরিচালিত নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প চলচ্চিত্রের শেষ লটের শুটিং নিয়ে। গতকাল রাতে রাজধানীর প্রিয়াঙ্কা শুটিং হাউজে কথা হলো কিশোর এই অভিনয়শিল্পীর সাথে। মামুনের সাথে কথা বলে বিস্তারিত জানাচ্ছেন মাহতাব হোসেন

ক্যামেরার সামনে মামুনের মুখ। ব্যস্ত। চোখে দূরবীন লাগিয়ে কি যেন খুঁজে যাচ্ছে। মুখে অদ্ভুত এক্সপ্রেশন। পাশে মুসা আর বাপ্পী। প্রথমবার একটু উনিশ-বিশ হলো।

দ্বিতীয়বার পরিচালক আনুশ চিৎকার দিয়ে বললেন ওকে। শট ওকে। আমি মামুনকে ডেকে নিলাম। কথা হচ্ছিল দোতলার বারান্দায়। ছোট মামুন বেশ বড় হয়ে গেছে।

'এখন কোন ক্লাসে পড়ছ?'
মামুনের চোখেমুখে এখনো কৈশোরের ছাপ স্পষ্ট। পরিচিত মানুষজনের সামনে মামুন আর অপরিচিত মানুষজনের সামনে আরেক মামুন।
'এইবার নিউ টেনে। গ্যাপ হইছে কিছুটা'

'গ্যাপ কেন?'
'আম্মা মারা যাওয়ার পর কিছুটা সমস্যা হলো। এরপরে ঘেটুপুত্র কমলা করলাম। সেখানেও বেশ সময় লেগে গেল। '

'স্যাড। গ্যাপ হতেই পারে। '

মামুন কথা বলার সময় কিছুটা জড়তা রাখলেও সেই জড়তা কাটিয়ে সাবলীলভাবে কথা বলতে শুরু করে। আমি মামুনকে এই ছবি সম্পর্কে প্রশ্ন করতে শুরু করি। বেশ চ্যালেঞ্জিং রোল। সিমলার বিপরীতে ছোট্ট মামুনকে 'হিরো'র অংশ করতে হচ্ছে। কেমন ছিল শুরুর অভিজ্ঞতা? মামুন জানাল, 'যেদিন মহরত হয় ছবির, সেদিন রাতেই সিমলা আপুর সাথে কিছু দৃশ্যে শুট করা হয়। সিমলা আপুকে তো আমি জ্ঞান হবার পর থেকেই দেখছি। উনি একজন ভালো অভিনেত্রী। কিন্তু আমি তাঁর বিপরীতে অভিনয় করবো এইটা কল্পনাও করতে পারি নাই। উনি আমার চেয়ে কত সিনিয়র। '

'সিনিয়র এই কারণেই সমস্যা?'
'হ্যাঁ তা তো অবশ্যই। উনার সাথে কিছু 'হার্ড' দৃশ্য রয়েছে। যেগুলো করতে গিয়ে আমি লজ্জায় পড়ে গেলাম। মনে হচ্ছিল পালিয়ে যাই। কিন্তু একটা ছবিতে কাজ শুরু করেছি। কথা দিয়েছি। এখন পালিয়ে যাই কিভাবে? প্রথম লজ্জা লাগলেও সে লজ্জা ভেঙে যায়। আসলে অভিনয় বিষয়টাই আলাদা। '

'এখন কেমন লাগছে, কি মনে হচ্ছে ছবিতে কেমন অভিনয় করা হয়েছে?'
'আসলে আমি তো ছোটদের রোল করেছি। এখানে একটা লিড রোল। খুব চ্যালেঞ্জিং। আমি চেষ্টা করেছি ভালো কিছু করার। সিমলা আপু বেশ হেল্প করেছে। '

'দর্শকরা কেমন মামুনকে দেখতে পারবে ছবিতে?'
'দর্শকরা এখানে ভিন্ন মামুনকে দেখতে পারবে। এয়ারটেলের টেলিফিল্মে এক মামুনকে দেখেছে, ঘেটুপুত্র হিসেবে এক মামুনকে দেখেছে, নিষিদ্ধ প্রেমের গল্পে একদম ভিন্ন মামুনকে দেখতে পারবে। '

সেট রেডি হয়ে গেছে। শুট শেষ করতে হবে। মামুনের ডাক পড়ল। ক্যামেরা অন। মামুন রেডি। পরিচালক চিৎকার দিয়ে উঠলেন রোলিং...


মন্তব্য