kalerkantho


১৮ মাস গোপনে কোথায় ছিলেন? জানালেন হানি সিং

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ মার্চ, ২০১৬ ২০:০৬



১৮ মাস গোপনে কোথায় ছিলেন? জানালেন হানি সিং

আজ ৩৩ বছরে পা দিলেন সঙ্গীত শিল্পী হৃদেশ সিং। অবশ্য এই নামে তিনি নিজের পরিবার ছাড়া আর কোথাও বিশেষ পরিচিত নন। বিলেতের ট্রিনিটি স্কুল থেকে সঙ্গীত নিয়ে পড়াশোনা করে দেশে ফিরে র‌্যাপার হিসেবে বেশ নাম করে নিয়েছিলেন তিনি। তবে বলিউডে ধূমকেতুর মতো আবির্ভুত হওয়ার পর তাঁর সফরনামা হয়ে ওঠে রূপকথার মতোই। কথা হচ্ছে ইয়ো ইয়ো হানি সিং-কে নিয়েই।

একের পর এক হিট গান ও সুপারহিট স্টেজ শো-এ পর হঠাত্‍‌ করেই দেড় বছর আগে লাপাত্তা হয়ে যান হানি সিং। কাউকে কিছু না জানিয়েই নিঃশব্দে সরে যান হানি সিং। গুঞ্জন ওঠে তিনি নাকি রিহ্যাবে ভর্তি হয়েছে ড্রাগের নেশা ছাড়াতে। কেউ কেউ বলেছিলেন একটি আন্তর্জাতিক শো-এ গিয়ে শাহরুখ খানের সঙ্গে বচসা হওয়ার জেরেই নাকি তাঁর এই অন্তর্ধান।

কিন্তু এই সব গুজবকে মিথ্যে প্রমাণ করে, তাঁর অন্তর্ধানের পিছনে আসল কারণটি অকপটে তাঁর ভক্তদের জানালেন হানি সিং। ১৮ মাসের মৌনতা ভেঙে তিনি ভাগ করে নিলেন তাঁর জীবনের সব থেকে অন্ধকার সময়ের ইতিকথা।

অকপট হানি সিং জানিয়েছেন, 'এই প্রথম আমি এই নিয়ে মুখ খুলছি। আমি চাই আমার সব ভক্তরা আমার মুখ থেকে পুরোটা জানুন... তৃতীয় কোনও ব্যক্তির থেকে নয়। গত ১৮ মাস আমার জীবনের সব থেকে অন্ধকারময় সময় ছিল। কারও সঙ্গে কথা বলার মতো অবস্থায় আমি ছিলাম না। আমি জানি গুজব ছড়িয়েছিল যে আমি ড্রাগ ওভারডোজের জন্যে রিহ্যাবে ভর্তি আছি। কিন্তু সেই সবই ভুল কথা। এই পুরো সময়টাই আমার নয়ডার বাড়িতেই ছিলাম। সত্যিটা হলো আমি বাইপোলার ডিজঅর্ডারের সমস্যায় ভুগছিলাম। সেই সঙ্গে ছিল অত্যাধিক মদ্যপানের নাছোড় নেশা। এই ১৮ মাসে আমি চার বার ডাক্তার পাল্টেছি। কোনও ওষুধই কাজ করছিল না। অদ্ভুত সব জিনিস হচ্ছিল আমার সঙ্গে। আমি বেশ ভয়ই পেয়ে গিয়েছিলাম। অবশেষে দিল্লির এক ডাক্তারের চিকিত্‍‌সায় আমার রোগ সারল। একটা সময়ে তো মনে হচ্ছিল এর থেকে আর কোনওদিনই বেরোতে পারব না। ৪-৫ জন লোকের সামনে আসতেও ভয় পাচ্ছিলাম। তবে সেই সময়ে আমার মা আমাকে সামলেছেন। তিনি না থাকলে আজ আপনাদের সামনে আরও একবার ফিরে আসতে পারতাম না। '

১৮ মাস পর ফের স্টেজে ফিরতে চলেছেন হানি সিং। ১৮ মার্চ দুবাইতে আয়োজিত টাইমস অফ ইন্ডিয়া ফিল্ম অ্যাওয়ার্ডস-এ পারফর্ম করবেন তিনি।


মন্তব্য